১৬ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

নির্বাচনে সৎ জনসম্পৃক্ত ব্যক্তিকে মনোনয়ন দিতে আহ্বান রাষ্ট্রপতির

নির্বাচনে সৎ জনসম্পৃক্ত ব্যক্তিকে মনোনয়ন দিতে আহ্বান রাষ্ট্রপতির

নিজস্ব সংবাদদাতা, কিশোরগঞ্জ ॥ ভাটির শার্দুলখ্যাত রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ বলেছেন, রাষ্ট্রপতি দলমত নির্বিশেষে দেশের সবার, এ জন্য রাজনৈতিক দল কাকে মনোনয়ন দিবেন-সেটা বলতে পারব না। তবে যারা সৎ চরিত্রের, এলাকার উন্নয়ন ও সাধারণ মানুষের চিন্তা করেন-এমন ব্যক্তিকে সকল রাজনৈতিক দল মনোনয়ন দিতে আহ্বান জানিয়েছেন। আর জনগণকেও নির্বাচনে বুঝে শুনে সৎ ও যোগ্য ব্যক্তিদের ভোটে নির্বাচিত করার পরামর্শ দিয়েছেন।

তিনি আরও বলেন, রাষ্ট্রপতির কোনো ক্ষমতা নেই, সব ক্ষমতা সাধারণ মানুষের। এ জন্য জনপ্রতিনিধিদের কেউ ক্ষমতা দেখানো উচিত নয়। রাষ্ট্রপতি সোমবার বিকেলে হাওড় অধ্যুষিত অষ্টগ্রাম উপজেলায় খেলার মাঠে আয়োজিত এক সুধী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।

দ্বিতীয় মেয়াদে রাষ্ট্রপতি হওয়ায় হাওড়ের রাণী অষ্টগ্রামে তাঁকে দেয়া গণসংবর্ধনার জবাবে আগতদের উদ্দেশে নিজের অনুভূতি ব্যক্ত করতে গিয়ে তিনি আরও বলেন, ‘রাষ্ট্রপতি মফস্বলে এলে মানুষের দুঃখ-দুর্দশা হবে বিধায় তাঁকে বঙ্গভবনে থাকতে হয়। বাইরের আলো-বাতাস নিতে পারি না। বঙ্গভবনের অন্যরা যখন তখন যেখানে ইচ্ছে সেখানে যেতে পারেন, কিন্তু আমি সাধারণ মানুষের কাছে যেতে পারি না। একসময় আমি তিন উপজেলায় বেশিরভাগ সময় ঘুরাঘুরি করতে আসতাম আপনাদের সাথে কথা বলার জন্য। এখন আর এটা সম্ভব না’। সুধী সমাবেশে যোগদানের আগে রাষ্ট্রপতি গার্ড অব অনার গ্রহণ করেন এবং উপজেলা পরিষদ সম্প্রসারণ ভবনসহ ৮টি স্থাপনার উদ্বোধন করবেন।

অষ্টগ্রাম উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ফজলুল হক হায়দারী বাচ্চুর সভাপতিত্বে সুধী সমাবেশে বক্তৃতা করেন মোঃ আফজাল হোসেন এমপি, এ্যাডভোকেট সোহরাব উদ্দিন এমপি, রাষ্ট্রপতির বড় ছেলে রেজওয়ান আহমেদ তৌফিক এমপি, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ জিল্লুর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এম.এ আফজল, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শহীদুল ইসলাম জেমস ও অষ্টগ্রাম রোটারী ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ মোস্তফা আরিফ খান। এ সময় রাষ্ট্রপতির সামরিক সচিব, প্রেস সচিব, বঙ্গভবনের সামরিক-বেসামরিক অন্যান্য কর্মকর্তা ছাড়াও সরকারের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

দ্বিতীয় মেয়াদে মোঃ আবদুল হামিদ রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত হওয়ার পর নিজ জেলা কিশোরগঞ্জে এটি তাঁর দ্বিতীয় সফর। দেশের ২১তম রাষ্ট্রপতি হিসেবে গত ২৪ এপ্রিল শপথ নেওয়ার পর গত ১১ মে বাবা হাজী তায়েব উদ্দিন ও মা তমিজা খাতুনের কবর জিয়ারত করতে নিজগ্রাম মিঠামইনের কামালপুরে একদিনের প্রথম সফরে এসেছিলেন তিনি। এর দীর্ঘ ৪ মাস ১৩ দিন পর সোমবার নিজের সাবেক নির্বাচনী এলাকায় আনুষ্ঠানিক সফরে এসে তিনি জেলার অষ্টগ্রাম, মিঠামইন ও ইটনায় আরো বেশি উন্নয়ন কাজ হবে বলে প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন। এ সময় আয়োজিত সভাটি লোকজনের আগমনে বিশাল জনসভায় রূপ নেয়। অষ্টগ্রাম ও তার আশপাশ থেকে হাজার হাজার মানুষ রাষ্ট্রপতির ভাষণ শুনতে নাগরিক সভায় যোগদান করেন।

পাঁচ দিনের সফরের প্রথমদিন বেলা ২টায় রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ ঢাকা থেকে হেলিকপ্টারযোগে হাওড় অধ্যুষিত অষ্টগ্রাম উপজেলার হেলিপ্যাডে অবতরণ করবেন। সেখান থেকে নতুন ডাকবাংলোয় গমনের পর রাষ্ট্রপতি গার্ড অব অনার গ্রহণ করেন। পরে বিকেলে অষ্টগ্রাম খেলার মাঠে সুধী সমাবেশে যোগদান শেষে সন্ধ্যায় তিনি রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ অডিটরিয়ামে উপজেলার গণ্যমান্য ব্যক্তিদের সাথে মতবিনিময় করেন। ওইদিন ডাকবাংলোতে তিনি রাত্রিযাপন করবেন।

শুক্রবার (২৮ সেপ্টেম্বর) বাড়ির মসজিদে জুম্মার নামাজ আদায় করে রাষ্ট্রপতি বাবা হাজী মোঃ তায়েব উদ্দিন এবং মা তমিজা খাতুনের কবর জিয়ারত করবেন। পরে ওইদিন বিকেল সাড়ে ৩টায় হেলিকপ্টারযোগে বঙ্গভবনের উদ্দেশ্যে রাষ্ট্রপতি মিঠামইন ত্যাগ করবেন।