১৬ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মাগুরায় সড়ক দুর্ঘটনায় শ্যালক ভগ্নিপতি নিহত

নিজস্ব সংবাদদাতা, মাগুরা, ২৪ সেপ্টেম্বর ॥ সোমবার সকালে মাগুরা ফরিদপুর মহাসড়কের মাগুরা পৌর এলাকার পারনান্দুয়ালী নামকস্থানে সড়ক দুর্ঘটনায় শ্যালক ভগ্নিপতি দুই মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছে। নিহতরা হলো- মাগুরা শহরের কাউন্সিল পাড়ার মৃত শাহাজাদার ছেলে মনিরউদ্দিন তালুকদার লাভলু (৩৫) ও তার শ্যালক সৌদি প্রবাসী নিয়ামুল (২৪)। নিয়ামুল ফরিদপুরের ভাঙ্গার আব্দুল ওয়াদুদের ছেলে। মনিরউদ্দিন তালুকদার লাভলু মাগুরা শহরে সাকুরা কালার ল্যাবে চাকরি করতেন। নিহত লাভলু ও নিয়ামুল সম্পর্কে আপন শ্যালক ও ভগ্নিপতি। নিয়ামুল ভগ্নিপতি বাড়িতে বেড়াতে এসেছিল।

ফরিদপুরে বাইক আরোহী

নিজস্ব সংবাদদাতা ফরিদপুর থেকে জানান, ভাঙ্গায় পৃথক দুটি সড়ক দুর্ঘটনায় মোটরসাইকেল আরোহী, বাসের হেলপারসহ ৩ জন নিহত হয়েছে। এর মধ্যে মোটরসাইকেল-পিকআপ মুখোমুখি সংঘর্ষে মোটরসাইকেল চালক নিহত হয়েছেন। সোমবার দুপুর ২টার দিকে ভাঙ্গা উপজেলার মালিগ্রাম-সদরপুর সড়কের নাসিরাবাদ ইউনিয়নের আব্দুল্লাবাদ নামক স্থানে এ ঘটনা ঘটে। জানা গেছে একটি মোটরসাইকেলের সঙ্গে একটি পিকআপের মুখোমুখি সংঘর্ষে হলে ঘটনাস্থলেই মোটরসাইকেল চালক ইমরান হোসেন (৩০) নিহত হয়। নিহত ইমরান সদরপুর উপজেলার চন্দ্রপাড়া গ্রামের জয়নাল মিয়ার ছেলে। ইমরান মোটরসাইকেল চালিয়ে সদরপুর থেকে ভাঙ্গার দিকে আসার পথে দুর্ঘটনার শিকার হন। এছাড়া সড়কের পাশে দাঁড়িয়ে থাকা পাথর ভর্তি একটি ট্রাকের সঙ্গে ঢাকাগামী ফালগুনী পরিবহনের একটি বাস ওই ট্রাককে ধাক্কা দিলে ওই বাসের সহযোগীসহ দুইজন নিহত হয়।

পটিয়ায় শিক্ষিকা

নিজস্ব সংবাদদাতা পটিয়া থেকে জানান, চট্টগ্রাম-কক্সবাজার আরকান মহাসড়কের পটিয়া উপজেলার মনসা এলাকায় বাস চাপায় এক শিক্ষিকা নিহত হয়েছেন। নিহত শিক্ষিকার নাম বর্ণা বড়ুয়া (৪০)। তিনি উপজেলার জঙ্গলখাইন ইউনিয়নের ঊনাইনপুরা গ্রামের রনজিত বড়ুয়ার কন্যা। বর্ণা মনসা চৌধুরী পাড়া চাইল্ড কেয়ার স্কুলের শিক্ষিকা। সোমবার সকালে চট্টগ্রামমুখী একটি মিনিবাসের চাপায় এই ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, প্রতিদিনের মত শিক্ষিকা বর্ণা সকালে মনসা চৌধুরী পাড়া চাইল্ড কেয়ার স্কুলে যাচ্ছিলেন। মহাসড়ক পারাপারের সময় বর্ণাকে মিনিবাস (চট্টমেট্রো চ-১১-০৮০২) চাপা দিলে গুরুতর আহত হন। এই সময় এলাকার লোকজন উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

সিলেটে আওয়ামী লীগ নেত্রী

স্টাফ রিপোর্টার সিলেট অফিস থেকে জানান, মোটরসাইকেলের চাকায় ওড়না পেঁচিয়ে ছিটকে পড়ে আওয়ামী লীগ নেত্রী রতœা বেগমের মৃত্যু ঘটেছে। রবিবার রাত আনুমানিক ১২টার দিকে সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়কের কৈতক সেতুর পাশে দুর্ঘটনাটি ঘটে। জানা যায়, রাত ৯টার দিকে সিলেট শহরের রাজার গলি এলাকার নিজ বাসা থেকে ছেলেকে নিয়ে মোটরসাইকেলযোগে ছাতক উপজেলার কৈতক যাওয়ার উদ্দেশে রওয়ানা হন রতœা বেগম। যাত্রা পথে সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়কের জাউয়া বাজারের নিকটবর্তী কৈতক ব্রিজের আগে পরনের ওড়না মোটরসাইকেলের চাকায় পেঁচিয়ে গেলে তিনি পেছন থেকে পড়ে যান। গুরুতর আহত অবস্থায় সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

বরিশালে এনজিও কর্মী

স্টাফ রিপোর্টার বরিশাল থেকে জানান, পৃথক দুটি সড়ক দুর্ঘটনায় দুই নিহত ও দুই আহত হয়েছে। রবিবার রাতে নগরীর সিএন্ডবি রোড ও উজিরপুর উপজেলার আটিপাড়া এলাকায় এ দুটি দুর্ঘটনা ঘটে। এরমধ্যে সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টায় বরিশাল-ঢাকা মহাসড়কের উজিরপুরের আটিপাড়ায় যাত্রীবাহী বাসের চাঁপায় ভ্যানের যাত্রী বাবুল ফকির (৪৬) নিহত হন। সে আগৈলঝাড়া উপজেলার বড় বাশাইল গ্রামের মৃত আব্দুস সাত্তার ফকিরের পুত্র। দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত ভ্যানচালক রুবেল ও যাত্রী শাহআলম ফকিরকে শেবাচিমে ভর্তি করা হয়।

একইদিন রাত পৌনে ১০টার দিকে নগরীর সিএন্ডবি সড়কে ডিম ভর্তি পিকআপ ভ্যানের চাঁপায় গৌরাঙ্গ বালা (২৭) নামের এক বাইসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন। সে আগৈলঝাড়ার রামানন্দেরআক গ্রামের মনরঞ্জন বালার পুত্র ও বরিশালে পদক্ষেপ এনজিওতে কর্মরত ছিলেন।

নাটোরে চালক

নিজস্ব সংবাদদাতা নাটোর থেকে জানান, বড়াইগ্রামে যাত্রীবাহী বাস ও ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে ট্রাকচালক কলিমউদ্দিন কালু (৪৫) নিহত ও বাসের যাত্রীসহ পাঁচ আহত হয়েছেন। সোমবার বিকেল তিনটার দিকে উপজেলার বনপাড়া-হাটিকুমরুল মহাসড়কের আগ্রান সূতির পাড়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত কলিমউদ্দিন কালু উপজেলার বনপাড়া পৌরসভার গুনাইহাটি গ্রামের মৃত মিজানুর রহমানের ছেলে।