২১ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

কক্সবাজারে শশুরবাড়ী থেকে হবু জামাই অপহৃত

কক্সবাজারে শশুরবাড়ী থেকে হবু জামাই অপহৃত

স্টাফ রিপোর্টার, কক্সবাজার ॥ রামু গর্জনিয়া থোয়াইংগা কাটার রোহিঙ্গা নবী হোসেনের ঘোনা নামের এলাকা থেকে জামাল হোসেন নামের এক ব্যক্তিকে অপহরণ করেছে সশস্ত্র রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীরা। বিয়ের দিন তারিখ ঠিক করতে নতুন জামাই শশুরবাড়িতে আসলে মঙ্গলবার মধ্য রাতে এ ঘটনা ঘটে। অপহৃত ব্যক্তি বড়বিলের নবী হোসেনের পুত্র।

গৃহকর্তা শফি আলম জানান, সোমবার দিবাগত রাত একটার দিকে তিন জন অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী মুখোশ পরিহিত অবস্থায় খাওয়ার পানি পান করার কথা বলে ঘুম থেকে ডেকে তুলে। বাড়ীর ভিতর ঢুকে নিজেদেরকে শিকারি পরিচয় দিয়ে তারা আমাদের দুই জনকে হাত ও চোখ বেধে ফেলে। ঘর থেকে বের করে কিছু দুর নেয়ার পর আমাকে (শফিআলম) ছেড়ে দেয়। হাত বাঁধা অবস্থায় জামাল হোসেনকে তারা নিয়ে যায়।

অপহরণের ঘটনা কাউকে না বলতে শাসিয়ে দেয়া হয়। যদি কাউকে জানালে নিজেদের বিপদ নিজেরা ডেকে আনবে বলে হুশিয়ার করে। অপহৃত জামাল হোসেন গৃহকর্তা শফি আলমের মেয়ের হবু জামাই। তিনি রাতে শশুর বাড়ীতে এসে রাত যাপন করছিল। তিনি জানান, তারা যাবার সময় বাড়ী থেকে দুইটি মোবাইল ফোন, র্টচলাইট, পাঁচ হাজার টাকা, চাউল, পিয়াজ, মরিচ শুটকি মাছ, কাপড় ইত্যাদি নিয়ে যায়। রোহিঙ্গা ও স্থানীয় চিহ্নিত দস্যুরা সিন্ডিকেট করে অপহরণ বাণিজ্য ও স্থানীয়দের বাড়ীঘরে লুটতরাজ চালিয়ে যাচ্ছে।

স্থানীয় ইউপি সদস্য নুরুল ইসলাম জানান, জামাল হোসেন শশুড় বাড়ীতে বেড়াতে গিয়ে অপহরণ হয়েছে। নতুন বউকে এখনও আনুষ্ঠানিক ভাবে ঘরে তুলে নিয়ে আসেনি। তবে কাবিন ও আকদ্ হয়েছে। বিয়ের দিন তারিখ ঠিক করার জন্য সে শশুড় বাড়ীতে গিয়েছিল বলে জানান তিনি। গর্জনিয়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, অপহৃত ব্যক্তিকে উদ্ধারকল্পে পুলিশ তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে।