১৯ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সারাবিশ্বে ৪৮ ঘণ্টা বন্ধ থাকতে পারে ইন্টারনেট সংযোগ!

ফিরোজ মান্না ॥ বিশ্বজুড়ে ৪৮ ঘণ্টা ইন্টারনেট সংযোগ বন্ধ থাকতে পারে। নিয়মিত রক্ষণাবেক্ষণের অংশ হিসেবে মূল ডোমেইন নেম সিস্টেমকে সুরক্ষিত, স্থিতিশীল এবং স্বাভাবিক করতেই বিশ্বব্যাপী ইন্টারনেট ৪৮ ঘণ্টা বন্ধ রাখার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। রাশিয়া টুডে ও এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে। তাদের প্রতিবেদনে ৪৮ ঘণ্টা কখন থেকে শুরু হবেÑ আর কখন শেষ হবে সে বিষয়ে বিস্তারিত কিছু বলা হয়নি। যদি এমন ঘটনা ঘটে তাহলে বিশ্বজুড়ে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীরা নতুন অভিজ্ঞতার সম্মুখীন হবেন। এর আগে কখনও এ ধরনের সমস্যা তৈরি হয়নি।

বাংলাদেশ সাবমেরিন কেবল কোম্পানি লিমিটেডের (বিএসসিসিএল) ব্যবস্থাপনা পরিচালক মশিউর রহমান বলেন, ইন্টারনেট বন্ধ থাকার বিষয়ে আমাকে অনেকেই ফোন করে জানতে চেয়েছেন। আমি বলেছি, এ ধরনের কোন খবর আমার জানা নেই। যদি বিশ্বজুড়ে ইন্টারনেট বন্ধ থাকে তাহলে এটা হবে সবচেয়ে বড় খবর। এই খবর শুধু রাশিয়া টুডে দেবে কেন। বিশ্বের বড় বড় মিডিয়া এ খবর দেবে। সারাবিশ্বে হৈচৈই পড়ে যাবে। এক মিনিটের জন্য ইন্টারনেট বন্ধ থাকলেই হৈচৈই পড়ে যায়। ৪৮ ঘণ্টা তো অনেক সময়। এখন পর্যন্ত আমাদের কাছে এমন কোন খবর আসেনি যে ইন্টারনেট বন্ধ থাকবে।

রাশিয়া টুডের ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিশ্বের ইন্টারনেট ব্যবহারকারীরা নেটওয়ার্ক সংযোগ ফেইলর অভিজ্ঞতার মুখোমুখি হতে যাচ্ছেন। ইন্টারনেটের মূল ডোমেইন সার্ভার এবং সংশ্লিষ্ট অন্য নেটওয়ার্কগুলো কিছু সময়ের জন্য বন্ধ করে দেয়া হবে। নিয়মিত রক্ষণাবেক্ষণের অংশ হিসেবে ৪৮ ঘণ্টা বন্ধ থাকতে পারে ইন্টারনেটের মূল ডোমেইন সার্ভারগুলো। বৃহস্পতিবার রাশিয়া টুডে (আরটি) এমন একটি প্রতিবেদনে প্রকাশ করে। এরপরই একই রকমের একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করে এনডিটিভি। দ্য ইন্টারনেট কর্পোরেশন অব এ্যাসাইনড নেমস এ্যান্ড নাম্বারস (আইসিএএনএন) এই সময়ের মধ্যে ইন্টারনেট রক্ষণাবেক্ষণের কাজ করবে। ইন্টারনেটের এ্যাড্রেস বুক ও ডোমেইন নেম সিস্টেমকে (ডিএনএস) সুরক্ষিত করতেই এ কার্যক্রম চালাবে তারা। আইসিএএনএন বলছে, বিশ্বব্যাপী দিন দিন বাড়তে থাকা সাইবার হামলা থেকে ইন্টারনেটকে বাঁচাতেই এমন পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে।

কমিউনিকেশন্স রেগুলেটরি অথরিটির (সিআরএ) এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ডোমেইন নেম সিস্টেমকে সুরক্ষিত, স্থিতিশীল এবং স্বাভাবিক করতেই বিশ্বব্যাপী ইন্টারনেট সংযোগ কিছু সময়ের জন্য বন্ধ রাখা হবে। তবে সেটা কবে, কখন হবে তা বলা হয়নি ওই বিবৃতিতে। এটা পরিষ্কার করে বলা দরকার যে, ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডাররা (আইএসপি) যদি এ পরিবর্তনের জন্য প্রস্তুত না থাকে তাহলে তাদের কিছু ইন্টারনেট ব্যবহারকারী বিপদে পড়তে পারে।

এদিকে, ৪৮ ঘণ্টা সময়ে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীরা ওয়েব পেজে প্রবেশ ও ইন্টারনেটে লেনদেনে জটিলতার সম্মুখীন হতে পারেন। ব্যবহারকারীরা যদি কোন অপ্রচলিত ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডার ব্যবহার করেন তাহলে বৈশ্বিক নেটওয়ার্কে ঢুকতে অসুবিধায় পড়তে পারেন।

এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, আগামী ৪৮ ঘণ্টায় মূল ডোমেইন সার্ভার নিয়মিত রক্ষণাবেক্ষণ (রুটিন মেইনটেন্যান্স) কাজ হবে। এতে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের নেটওয়ার্ক সমস্যায় পড়তে হতে পারে। ইন্টারনেট কর্পোরেশন ফর এ্যাসাইন্ড নেমস এ্যান্ড নাম্বারস (আইসিএএনএন) ওই রক্ষণাবেক্ষণের কাজ করবে। এই রক্ষণাবেক্ষণের মাধ্যমে ‘ক্রিপটোগ্রাফিক কি’ পরিবর্তন করা হয় যা ডোমেইন নেম সিস্টেম (ডিএনএস) বা ইন্টারনেট এ্যাড্রেস বুক সুরক্ষিত রাখতে সাহায্য করবে।

নির্বাচিত সংবাদ