১৪ নভেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

রাজশাহীর আদালতে বিএনপি ও ছাত্রদলের ৫ নেতাকর্মীর ১০ বছর কারাদণ্ড

রাজশাহীর আদালতে বিএনপি ও ছাত্রদলের ৫ নেতাকর্মীর ১০ বছর কারাদণ্ড

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী ॥ দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের সময় চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জের এমপি গোলাম রাব্বানীর বাড়িতে হামলা, ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগ ও বোমা বিস্ফোরণের ঘটনায় বিএনপি ও ছাত্রদলের পাঁচজনকে ১০ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। একইসঙ্গে জরিমানা করা হয়েছে ১০ হাজার টাকা। অনাদায়ে আরও এক বছরের কারাদণ্ড প্রদান করা হয়েছে। একই মামলায় অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় ১৪ আসামিকে বেকসুর খালাস দেওয়া হয়েছে।

সাজাপ্রাপ্তরা সকলেই বিএনপি ও ছাত্রদলের নেতাকর্মী। আজ মঙ্গলবার দুপুর পৌনে ৩টার দিকে রাজশাহীর দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক অনুপ কুমার জনাকীর্ণ আদালতে এ রায় ঘোষণা করেন। এ সময় সাজাপ্রাপ্ত আসামিরা আদালতের কাঠগড়ায় দণ্ডায়মান ছিলেন।

মামলায় সাজাপ্রাপ্ত আসামীরা হলেন- চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার কানসাট এলাকার বিএনপি নেতা সেতাউর রহমান, শরীফুল ইসলাম, রবিউল ইসলাম ওরফে টুটুল এবং ছাত্রদলকর্মী মৃণাল হোসেন ও ইয়াসির আরাফত। রায়ের পর তাদেরকে কারাগারে পাঠানো হয়।

এর আগে ২০১৩ সালের ২ ডিসেম্বর দুপুরে দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ দিনে চাঁপাইনবাবগঞ্জের কানসাটে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী গোলাম রাব্বানীর বাড়িতে হামলা করে অবরোধকারীরা। কানসাটের পুকুরিয়া এলাকায় রাব্বানীর বাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেয় বিএনপি ও জামায়াতের কর্মীরা। এছাড়া রাব্বানীর বড় ভাই আবু বাক্কার সিদ্দিকীর বাড়িতেও আগুন দেয় তারা। হামলার সময় ভাঙচুর ও বোমা বিস্ফোরণের ঘটনাও ঘটে।

রাব্বানীর বাড়িতে দেওয়া আগুনে একটি ট্রাক, একটি প্রাইভেট কার, কয়েকটি মোটরসাইকেলসহ অনেক আসবাবপত্র পুড়ে যায়। পরে নাশকতার এ ঘটনায় শিবগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) বাণী ইসরাইল বাদী হয়ে সন্ত্রাসবিরোধী ও বিস্ফোরক আইনে মামলা দায়ের করেন।

মামলাটি নিষ্পত্তির জন্য পরে রাজশাহীর দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে স্থানান্তর করা হয়। ওই মামলায় সাক্ষ্য-প্রমাণ শেষে মঙ্গলবার রাজশাহীর দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে রায় ঘোষণা করা হয়। রাষ্ট্রপক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন, আদালতের স্পেশাল পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) এন্তাজুল হক বাবু। আর আসামিপক্ষে ছিলেন, অ্যাডভোকেট এনামুল হক।