১৫ নভেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

শ্রমিক ছাটাইয়ের প্রতিবাদ ও বকেয়া বেতনের দাবিতে গাজীপুরে শ্রমিক বিক্ষোভ

শ্রমিক ছাটাইয়ের প্রতিবাদ ও বকেয়া বেতনের দাবিতে গাজীপুরে শ্রমিক বিক্ষোভ

স্টাফ রিপোর্টার, গাজীপুর ॥ বকেয়া বেতন ভাতা না দিয়ে শ্রমিক ছাটাইয়ের প্রতিবাদসহ বিভিন্ন দাবিতে গাজীপুর মহানগরের ছয়দানা এলাকায় প্রীতি সোয়েটার কারখানার শ্রমিকরা আজ মঙ্গলবার কর্মবিরতি, বিক্ষোভ ও কারখানায় ভাংচুর করেছে। পরে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

পুলিশ কারখানার শ্রমিকরা জানায়,কারখানার শ্রকিদের ত সেপ্টেম্বর মাসের বেতন গত ৭ অক্টোবর দেয়ার কথা ছিল। শ্রমিকরা ওই দিন থেকে একাধিকবার বেতন দাবি করে আসলেও কারখানা কতৃপক্ষ তা দেয়নি। এছাড়া কারখানার বেশকিছু শ্রমিককে বেতন না দিয়ে জোরপূর্বক স্বাক্ষর রেখে ছাটাই করে দিয়েছে। শ্রমিকরা আরো জানায়, সেপ্টেম্বর ছাড়াও অনেক শ্রমিকের আগস্ট মাসের বেতন বকেয়া রয়েছে। কারখানা কর্তৃপক্ষ ছুটির দিন শুক্রবারও কাজ করিয়ে এবং ওভারটাইম করিয়ে নিয়মিত টাকা পরিশোধ করেনা।শ্রমিকদের বার্ষিক ছুটির টাকা এবং টিফিন ভাতাও নিয়মিত দেয়না। এ নিয়ে শ্রমিকদের মধ্যে অসন্তোষ সৃষ্টি হয়। তাই মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯টা থেকে শ্রমিকরা কারখানায় এসে কাজে যোগ না দিয়ে একত্রে জড়ো হয়ে কর্মবিরতি ও বিক্ষোভ শুরু করে।বিক্ষোভের এক পর্যায়ে শ্রমিকরা কারখানার কাঁচ ও কয়েকটি গাড়ি ভাংচুর করে।

গাছা থানার ওসি মো. ইসমাইল হোসেন জানান, ছাটাই ও বেতনসহ বিভিন্ন ভাতা না দেয়ার প্রতিবাদে মঙ্গলবার সকাল থেকে কারখানার শ্রমিকরা কর্মবিরতি, বিক্ষোভ ও কারখানায় ভাংচুর শুরু করে। খবর পেয়ে থানা পুলিশ ও শিল্প পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে। পরে কারখানা কর্তৃপক্ষের সঙ্গে শ্রমিক প্রতিনিধিদের বৈঠক করে সন্ধ্যায় ৭টায় তাদের পাওনাদি পরিশোধের আশ্বাস দিয়ে শ্রমিকরা আন্দোলন পরিহার করেনে।

প্রীতি গ্রুপের ডিজিএম মো. নাহিদ আক্তার জানান, কারখানায় কাজ না থাকায় প্রায় অর্ধশত শ্রমিককে ছাটাই করা হয়েছে। বকেয়া বেতনের দাবিতে শ্রমিকরা কর্মরিবরতি, বিক্ষোভ এবং কারখানার কাঁচ ও কয়েকটি গাড়ি ভাংচুর করেছে। পুলিশ ও শ্রমিক প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক করে মঙ্গলবার রাত ৭টার দিকে সেপ্টেম্বর মাসের বকেয়া বেতন পরিশোধের সময় দেয়া হয়। এছাড়া ৫শতাংশ হারে বাৎসরিক বেতন বৃদ্ধি, সাত কর্মবিসের বেতন প্রদান, ২৫ অক্টোবর রিজাইনকৃতদের আইনগত বেনিফিট প্রদানসহ বিভিন্ন দাবি মেনে নিলে শ্রমিকরা বিক্ষোভ প্রত্যাহার করে। কারখানায় পর্যাপ্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।