১৩ নভেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ওয়ানডে বিশ্বকাপের ট্রফির বাংলাদেশ ভ্রমন

ওয়ানডে বিশ্বকাপের ট্রফির  বাংলাদেশ ভ্রমন

অনলাইন রিপোর্টার ॥ বিশ্ব ভ্রমণের অংশ হিসেবে ওয়ানডে বিশ্বকাপের ট্রফি এসেছে বাংলাদেশে। আজ দুপুরে ট্রফি নিয়ে ছবি তুলেছেন বাংলাদেশ দলের খেলোয়াড়েরা। শুধু ছুঁয়েই কি তৃপ্তি মেলে? এ ট্রফি সত্যি বাংলাদেশ জয় করবে কবে?

মুশফিকুর রহিমই সবার আগে এলেন। তাঁর পেছনে পেছনে দলের নবীন খেলোয়াড়েরা— আরিফুল হক, নাজমুল ইসলাম, আবু হায়দার, মেহেদী হাসান মিরাজ। একে একে দলের প্রায় সবাই এলেন বিশ্বকাপ ট্রফির কাছে। কিন্তু যাঁর নেতৃত্বে বাংলাদেশ দলের ২০১৯ বিশ্বকাপ খেলতে যাওয়ার কথা, সেই মাশরাফি বিন মুর্তজা কোথায়?

সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরটা মুশফিক দিলেন রসিকতার সুরেই, ‘মাশরাফি ভাই ভাবছেন, কীভাবে কাপটা নেবেন!' বিশ্ব ভ্রমণের অংশ হিসেবে সোনালি রঙা ট্রফিটি এখন বাংলাদেশে। সকালে বিসিবি একাডেমি ভবনের সামনে ট্রফি নিয়ে ইউনিসেফের এক অনুষ্ঠানে ছবি তুলেছে সুবিধাবঞ্চিত শিশুরা। দুপুর একটার দিকে ট্রফি নিয়ে ফটোসেশন করেছেন বাংলাদেশ দলের খেলোয়াড়েরা। কখনো ট্রফি উঁচিয়ে ধরা, কখনো ট্রফি নিয়ে সেলফি—ওয়ানডে বিশ্বকাপ ট্রফির আগমনকে নানাভাবে স্মরণীয় করে রাখলেন তাঁরা।

কিন্তু কেবল ট্রফি ছুঁয়ে দেখে কি তৃপ্তি মেলে? প্রাপ্তির ষোলোকলা পূর্ণ হবে তখনই, যখন বাংলাদেশ সত্যি সত্যিই বিশ্ব মঞ্চে দাঁড়িয়ে এই ট্রফিটি জিততে পারবে। জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক ও বর্তমানে বিসিবির নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন আশাবাদী, বাংলাদেশ সত্যি একদিন বৈশ্বিক শিরোপা জিতবে, ‘এই বিশ্বকাপ ট্রফি আশা করি আমাদের ঘরে আসবে। এখন আমরা যে প্রক্রিয়ায় এগিয়ে যাচ্ছি সামনের বিশ্বকাপে ভালো ফল হবে আশা করি। “বিশ্বকাপ” শব্দটাই অন্য রকম। এটা সব সময়ই উজ্জীবিত করে তরুণ খেলোয়াড়দের। আমার বিশ্বাস আগামী বিশ্বকাপে আমরা ভালো করব।’

যে তরুণ খেলোয়াড়দের ওপর মিনহাজুলের ভীষণ আস্থা, তাঁদের একজন মেহেদী হাসান মিরাজ আজ এলেন সংবাদমাধ্যমের সামনে। তিনিও আশার কথাই শোনালেন, ‘সবারই স্বপ্ন থাকে বিশ্বকাপে ভালো খেলার। আশা করি ভালো কিছুই হবে। দলের সবাই ট্রফি জেতার জন্যই খেলবে।’

স্বপ্নটা বড় হলেও মিরাজ এখনই বিশ্বকাপে চোখ রাখতে চান না। তাঁর কথা, বিশ্বকাপের আগে বাংলাদেশকে খেলতে হবে অনেকগুলো সিরিজ। এই সিরিজগুলোর সাফল্য গড়ে দেবে বড় মঞ্চে দুর্দান্ত কিছু করার ভিত্তি।