১৫ নভেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

নওগাঁর মান্দায় নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের অভিযোগ

নওগাঁর মান্দায় নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের অভিযোগ

নিজস্ব সংবাদদাতা, নওগাঁ ॥ নওগাঁর মান্দা উপজেলার আত্রাই নদীর উজান অংশ থেকে বেশ কিছুদিন ধরে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন ও বিক্রির মহোৎসব চলছে। ভূয়া রশিদ ব্যবহার করে নদীর উজান অংশের অন্তত ৮টি পয়েন্টে অবৈধ বালু উত্তোলন করে বিক্রি করছে বালু ব্যবসায়িদের অসাধু একটি চক্র। এতে স্থানীয়দের মাঝে চরম অসন্তোষ বিরাজ করছে। ঘটনায় অবৈধ বালু উত্তোলনকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবিতে ইউএনওসহ সংশ্লিষ্ট দপ্তরে অভিযোগ দাখিল করা হয়েছে।

অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে, আইনী জটিলতার কারণে চলতি বাংলা ১৪২৫ সনে আত্রাই নদীর মান্দা উপজেলার উজান অংশের বালুমহাল ইজারা দিতে পারেনি সংশ্লিষ্ট দপ্তর। ইজারা না হওয়ায় ১লা বৈশাখ থেকে এ অংশে বালু উত্তোলন বন্ধ রয়েছে। হঠাৎ করে নদীর উজান অংশের আয়াপুর, লক্ষ্মীরামপুর ও মদনচক মৌজায় বালু উত্তোলনসহ বিক্রির মহোৎসব শুরু হয়। বালু বিক্রির কাজে ব্যবহার করা হচ্ছে ইজারাদারের নাম ও ঠিকানা বিহীন ভূয়া রশিদ।

ঘটনায় লক্ষ্মীরামপুর গ্রামের ইমন পারভেজ বাদি হয়ে গত রবিবার উপজেলা নির্বাহী অফিসার, সহকারি কমিশনার (ভূমি) ও নওগাঁর অতিরিক্ত জেলা প্রশাসকসহ (রাজস্ব) বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ দাখিল করেছেন।

অবৈধভাবে বালু উত্তোলন ও বিক্রির কথা স্বীকার করেছেন কথিত ইজারাদার হাজি মোয়াজ্জেম হোসেন। তিনি বলেন, বালুর চাহিদা থাকায় গত কয়েকদিন ধরে উত্তোলন ও বিক্রি শুরু করা হয়েছে। বালুমহালের এ অংশটি ইজারা নেয়ার প্রক্রিয়া চলছে বলেও জানান তিনি।

আজ শনিবার বিকেলে এব্যাপারে মান্দার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা খন্দকার মুশফিকুর রহমানের মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করলেও তিনি ফোন রিসিভ না করায় তার বক্তব্য পাওয়া যায়নি।