১৪ নভেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মইনুলকে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাইতে হবে ॥ ৫৫ সম্পাদক সাংবাদিকের বিবৃতি

স্টাফ রিপোর্টার ॥ নারী সাংবাদিকের প্রতি অশ্রদ্ধা প্রদর্শন ও অবমাননাকর মন্তব্য করায় যারপরনাই কোণঠাসা ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন। বর্ণচোরা ব্যারিস্টারকে এবার প্রকাশ্যে ক্ষমা চাওয়ার আহŸান জানিয়েছেন ৫৫ সম্পাদক ও সিনিয়র সাংবাদিক। শনিবার এক বিবৃতিতে তারা এই আহŸান জানান।

বিবৃতিতে বলা হয়, কেবলমাত্র সাংবাদিকসুলভ প্রশ্ন করায় কাউকে এরকম ক্ষিপ্ত হয়ে ‘চরিত্রহীন’ বলার এখতিয়ার কারো নেই। স্বাধীন সাংবাদিকতা ও উম্মুক্ত গণমাধ্যম যখন বিভিন্নভাবে আক্রান্ত, তখন রাজনীতিবিদ ও আইনবিদ হিসেবে ব্যারিস্টার মইনুলের কাছ থেকে এ রকম আচরণ মোটেই গ্রহণযোগ্য নয়। তারা আরও বলেন, এই ব্যাপারে দেশের বিভিন্ন শ্রেণী ও পেশার ক্ষুব্ধ মানুষের সঙ্গে একাত্মতা ঘোষণা করে আমরা ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনের এই নিন্দনীয় আচরণে চরম ক্ষোভ প্রকাশ করছি। অবিলম্বে ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনের এই বক্তব্য প্রত্যাহার করে তাকে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাওয়ার দাবি জানাই। বিবৃতিতে বলা হয়, এটা শুধু মাসুদা ভাট্টিকে অপমান করা হয়েছে বলে নয়, বরং ভবিষ্যতে যাতে কেউ আর এভাবে কাউকে ব্যক্তিগত আক্রমণ না করেন সেটা নিশ্চিত করার জন্যই অবিলম্বে তার কাছ থেকে প্রকাশ্যে একটি মার্জনা প্রার্থনা আসা প্রয়োজন।

বিবৃতি দাতাদের মধ্যে রয়েছেনÑ দৈনিক প্রথম আলোর সম্পাদক মতিউর রহমান, দ্য ডেইলি স্টারের সম্পাদক মাহফুজ আনাম, দ্য ডেইলি অবজারভারের সম্পাদক ও প্রধানমন্ত্রীর তথ্য উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী, দৈনিক আমাদের নতুন সময়ের সম্পাদক নাঈমুল ইসলাম খান, দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিনের সম্পাদক নঈম নিজাম, দৈনিক ভোরের কাগজের সম্পাদক শ্যামল দত্ত, দ্য ঢাকা ট্রিবিউনের সম্পাদক জাফর সোবহান, মানবকণ্ঠের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক আবু বকর চৌধুরী, দৈনিক আমাদের অর্থনীতির সম্পাদক নাসিমা খান মন্টি। রয়েছেন সিনিয়র সাংবাদিক কলামিস্ট স্বদেশ রায়।

টেলিভিশনগুলোর মধ্যে ইটিভির এডিটর ইন চিফ এ্যান্ড সিইও মঞ্জুরুল আহসান বুলবুল, একাত্তর টেলিভিশনের প্রধান সম্পাদক মোজাম্মেল বাবু, ডিবিসির প্রধান সম্পাদক ও সিইও মঞ্জুরুল ইসলাম মঞ্জু, এটিএন নিউজের সংবাদ ও অনুষ্ঠান প্রধান মুন্নী সাহা, জিটিভির প্রধান নির্বাহী ও এডিটর ইন চীফ সৈয়দ ইশতিয়াক রেজা, ইন্ডিপেন্ডেন্ট টেলিভিশনের প্রধান নির্বাহী এডিটর ইন চীফ শামসুর রহমান বিবৃতি দিয়েছেন। রয়েছেন বাসসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবুল কালাম আজাদ, পিআইবির মহাপরিচালক শাহ আলমগীর, বিডিনিউজ২৪.কম-এর প্রধান সম্পাদক তৌফিক ইমরোজ খালেদী। বিবৃতি দাতাদের মধ্যে আরও রয়েছেন সিনিয়র সাংবাদিক মোজাম্মেল হোসেন মঞ্জু, সোহরাব হোসেন, আনিসুল হক, আবু সাঈদ খান, বিভুরঞ্জন সরকার, সাজ্জাদ শরীফ, শাহীন রেজা নূর, ইনাম আহমেদ। রয়েছেন অজয় দাশগুপ্ত, জায়েদুল আহসান, সেলিম সামাদ, সুকান্ত গুপ্ত অলক, নবনীতা চৌধুরী, মাসুদ কামাল, প্রণব সাহা, প্রভাষ আমিন প্রমুখ।

প্রসঙ্গত সাংবাদিক কলামিস্ট ও দৈনিক আমাদের নতুন সময়ের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মাসুদা ভাট্টি একাত্তর টেলিভিশনের টকশোতে অংশ নিয়ে একটি প্রশ্ন করার প্রেক্ষিতে ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন তাকে ‘চরিত্রহীন’ বলে মন্তব্য করেন। এরপর থেকেই তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েন ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন।