১৫ নভেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সংসদের সর্বশেষ অধিবেশন চলবে ২৫ অক্টোবর পর্যন্ত

সংসদের সর্বশেষ অধিবেশন চলবে ২৫ অক্টোবর পর্যন্ত

সংসদ রিপোর্টার ॥ চলতি সংসদের সর্বশেষ অধিবেশন মাত্র ৫ কার্যদিবস চলবে। রবিবার বিকেলে শুরু হওয়া এই অধিবেশন আগামী ২৫ অক্টোবর শেষ হবে। প্রতিদিন বিকেল সোয়া ৪টায় অধিবেশন বসবে। অধিবেশনে গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ (আরপিও) সংশোধনী বিলসহ বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ সরকারী বিল পাস হবে। এটিই হচ্ছে চলতি সংসদের সর্বশেষ অধিবেশন।

স্পীকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে জাতীয় সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত সংসদের কার্যউপদেষ্টা কমিটির বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। বৈঠকে সংসদ নেতা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, বিরোধী দলীয় নেতা রওশন এরশাদ, শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু, বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, ডেপুটি স্পীকার মো. ফজলে রাব্বী মিয়া, আইনমন্ত্রী আনিসুল হক, সমাজকল্যাণ মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন, জাসদের মইন উদ্দীন খান বাদল ও প্রধান হুইপ আ স ম ফিরোজ উপস্থিত ছিলেন।

কার্যউপদেষ্টা কমিটির বৈঠক শেষে সংসদ অধিবেশন শুরু হয়। অধিবেশনের শুরুতে স্পীকার ও ডেপুটি স্পীকারের অনুপস্থিতিতে অধিবেশন পরিচালনার জন্য ৫ সদস্যের সভাপতিমন্ডলী নির্বাচিত করা হয়। তাঁরা হলেন- এ বি তাজুল ইসলাম, ফরিদুল হক খান, সাধন চন্দ্র মজুমদার, মো. ফখরুল ইমাম ও সেলিনা জাহান লিটা। এরপর শোক শোক প্রস্তাব উত্থাপন ও তা গ্রহণ করা হয়।

সংসদে শোক প্রস্তাব উত্থাপন করা হয় সদ্য প্রয়াত জনপ্রিয় ব্যান্ড সংগীত শিল্পী আয়ুব বাচ্চুর মৃত্যুতে। একইসঙ্গে সাবেক সংসদ সদস্য শাহ আজিজুর রহমান, সাদির উদ্দিন আহমেদ, শাহ মো আবদুর রাজ্জাক, আবদুল গণি ও শাহ মোস্তানজিদুল হক খিজিরের নামে শোক প্রস্তাব আনা হয়। এছাড়া ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) প্যানেল মেয়র ওসমান গণিসহ ইন্দোনেশিয়ায় ভূমিকম্প ও সুনামিতে, তানজানিয়ায় ফেরি ডুবিতে, যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডায় ঘূর্ণিঝড় মাইকেল, ভারতের ওড়িশা ও অন্ধপ্রদেশে ঘূর্ণিঝড় তিতলি এবং দেশের বিভিন্ন স্থানে দুর্ঘটনায় নিহতদের নামে শোক প্রস্তাব গ্রহণ করা হয়। এরপর প্রয়াত ওই সকল ব্যক্তির বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করে মোনাজাত করা হয়।

এদিকে সংসদ অধিবেশনকে সামনে রেখে সংসদ ভবন এলাকায় কঠোর নিরাপত্তা বেষ্টনি গড়ে তোলা হয়। সকাল থেকেই চারপাশে অবস্থান নেয় বিপুল সংখ্যক র্যাব ও পুলিশসহ আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। যে কোন ধরণের অনাকাঙ্খিত পরিস্থতি এড়াতে জলকামান থেকে শুরু করে সব ধরণের ব্যবস্থা রাখে প্রশাসন। এমনকি সংসদ ভবনে প্রবেশেও ছিলো কঠোর কড়াকড়ি।

উল্লেখ্য, দশম সংসদের প্রথম অধিবেশন শুরু হয়েছিল ২০১৪ সালের ২৯ জানুয়ারি। এ হিসেবে আগামী বছর ২৮ জানুয়ারি সংসদের ৫ বছরের মেয়াদ পূর্ণ হচ্ছে। মেয়াদ পূর্ণ হওয়ার আগের তিন মাসের মধ্যে পরবর্তী সংসদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। আর নির্বাচনকালীণ সরকারের আমলে সংসদ অধিবেশন বসার বাধ্য-বাধকতা নেই। তাই নির্বাচনী তফশিল ঘোষণার পর অধিবেশন বসবে না। ফলে এটিই হবে চলতি সংসদের সর্বশেষ অধিবেশন।