১৫ নভেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ক্রেমলিন কাপে চ্যাম্পিয়ন কাসাতকিনা

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ক্রেমলিন কাপের শিরোপা জিতলেন দারিয়া কাসাতকিনা। শনিবার ফাইনালে তিউনিসিয়ার বাছাই ওনস জেবিয়ারকে পরাজিত করে ষষ্ঠ রাশিয়ান হিসেবে মস্কোর এই টুর্নামেন্টের চ্যাম্পিয়ন হলেন তিনি। তবে জয়টা সহজ ছিল না মোটেও। তিন সেটের লড়াইয়ে রীতিমতো ঘাম ঝরিয়েই তিনি ২-৬, ৭-৬ (৭/৩) এবং ৬-৪ গেমে পরাজিত করেন ওনস জেবিয়ারকে।

তবে মজার ব্যাপার হলো ফাইনাল পয়েন্টের শেষে দুইজনই হাঁটুগেড়ে কান্না শুরু করে দেন। চ্যাম্পিয়ন হয়ে কাসাতকিনার কান্নাটাকে অনেকেই দেখছেন স্বাভাবিকভাবে। তবে হেরেও কেন কাঁদলেন জেবিয়ার? পরবর্তীতে টুইট বার্তায় সেই জবাবটা অবশ্য দিয়েছেন তিনি। এ প্রসঙ্গে তিউনিসিয়ার এই খেলোয়াড় জানান, ‘সে কেঁদেছে কারণ, চ্যাম্পিয়ন হওয়ার ফলে। আমি কাঁদছিলাম কারণ তখন কাঁপছিলাম।’

চ্যাম্পিয়ন হয়ে স্বাভাবিকভাবেই উচ্ছ্বসিত দারিয়া কাসাতকিনা। তবে প্রতিপক্ষ জেবিয়ারকেও প্রশংসায় ভাসিয়েছেন তিনি। এ প্রসঙ্গে ম্যাচের শেষে রাশিয়ান তারকা বলেন, ‘ম্যাচটা খুব কঠিন ছিল। আমি দেখলাম তোমাকে নিজের সেরাটা ঢেলে দিয়েই খেলতে। সত্যি কথা বলতে এটাই খেলা। আমি সত্যিই তোমার প্রশংসা না করে পারছি না। তোমার সঙ্গে এটাই আমার প্রথম ম্যাচ। তবে নিশ্চিত করে বলতে পারি তোমার এটাই শেষ ফাইনাল নয়।’ কাসাতকিনার বয়স যখন ছয় তখন এখানে এসে স্বপ্ন বুনতেন। এবার সেই স্বপ্নই দেখা গেল বাস্তবে রূপ নিতে। রাশিয়ান তারকার অনুভূতিটাও অন্যরকম। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘১০ বছর আগের কথা এখনও সুস্পষ্ট মনে আছে আমার। যখন এখানে এসে স্বপ্ন দেখতাম- একদিন সেন্টার কোর্টে শিরোপা উঁচিয়ে ধরব। এবার ঠিক এখানে সেই স্বপ্নটাকে বাস্তবে পরিণত করেই।’

এদিকে বর্তমানে বিশ্ব টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের ১০১ নম্বরে অবস্থান জেবিয়ারের। ক্রেমলিন কাপের ফাইনালে হেরে গেলেও সমর্থকদের মন জয় করে নিয়েছেন তিনি। ম্যাচ শেষে জানালেন এবার না হলেও পরের বছরে ঠিকই পারবেন জেবিয়ার। তার মতে ‘এখানে দারুণ একটা সপ্তাহ কেটেছে আমার। এটাই আমার প্রথম ডব্লিউটিএ প্রিমিয়ার ফাইনাল। আশাকরি পরের বছরে এখানে আরও ভাল কিছু করতে পারব।’