১৩ নভেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

কলকাতা ও হলদিয়া বন্দর ব্যবহারে বাংলাদেশকে ভারতের প্রস্তাব

জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ বাংলাদেশের জাহাজ ও নৌযান যাতে ভারতের কলকাতা ও হলদিয়া বন্দর ব্যবহার করে, সেজন্য ঢাকাকে আনুষ্ঠানিক অনুরোধ জানিয়েছে দিল্লী। বাংলাদেশের নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধিরা যখন এ সপ্তাহে দিল্লী সফর করবেন, তখনই এ বিষয় আনুষ্ঠানিক সমঝোতা হওয়ার সম্ভাবনা আছে।

বিবিসি জানায়, কিছুদিন আগেই বাংলাদেশের মন্ত্রিসভা ভারতকে চট্টগ্রাম ও মংলা বন্দর ব্যবহার করতে দেয়ার প্রস্তাবে সম্মতি দিয়েছিল, এখন ভারতের এই সিদ্ধান্ত তারই পাল্টা পদক্ষেপ। এতে রুগ্ন কলকাতা বন্দরও যেমন লাভবান হতে পারে, পাশাপাশি বাংলাদেশের গার্মেন্ট শিল্পও উপকৃত হবে বলে পর্যবেক্ষকরা বলছেন। নৌমন্ত্রীর নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধিদল মঙ্গলবার দিল্লীতে গিয়ে পৌঁছার কথা রয়েছে। সফরে সচিব ও মন্ত্রী পর্যায়ে দু’দেশের মধ্যে জাহাজ চলাচল বিষয়ক নানা আলোচনা নির্ধারিত আছে। কলকাতা-হলদিয়া পোর্ট ট্রাস্ট কর্তৃপক্ষ দীর্ঘদিন ধরেই চাইছে বাংলাদেশী নৌযান তাদের জোড়া বন্দর ব্যবহার করুক। এখন এই সফরে সেই প্রস্তাবই চ‚ড়ান্ত রূপ পেতে চলেছে। দিল্লীতে আঞ্চলিক বাণিজ্য ও কানেক্টিভিটি বিশেষজ্ঞ প্রবীর দে মনে করেন বাংলাদেশের গার্মেট শিল্প মালিকরা এ প্রস্তাব লুফে নেবেন। কারণ চট্টগ্রামের চেয়ে হলদিয়া থেকে তাদের রফতানি সহজ ও দ্রæত হবে। ড. দে বলেন, কর্ণফুলীতে ড্রেজিং না-করলে বড় জাহাজ সেখানে ভিড়তে পারে না। তখন ছোট জাহাজে মালপত্র তুলে কলম্বো বা সিঙ্গাপুর থেকে সেটা ট্রান্সশিপমেন্ট করতে হয়। আর সেই কারণেই হলদিয়া-কলকাতা বন্দরের একটা আলাদা আবেদন থাকবে বাংলাদেশের কাছে। কারণ ভারতের শুল্ক বিভাগ অনেক আগেই হলদিয়াকে ট্রান্সশিপমেন্ট পোর্ট হিসেবে ব্যবহারে বাংলাদেশকে ছাড়পত্র দিয়ে রেখেছে।

নির্বাচিত সংবাদ