১৫ নভেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

কেউই খোঁজ দিতে পারেননি রহস্যময় সেই যুগলের

কেউই খোঁজ দিতে পারেননি রহস্যময় সেই যুগলের

অনলাইন ডেস্ক ॥ আমেরিকার ইয়োসেমাইট ন্যাশনাল পার্কে ছবি তুলতে গিয়েছিলেন ফোটোগ্রাফার ম্যাথিউ ডিপ্পেল। হুট করেই তাঁর নজর যায় এক্কেবারে টাফ্ট পয়েন্টে। নজর যে যাওয়ারই কথা। কারণ, সেখানেই প্রেম নিবেদন করছিলেন এক যুগল। সঙ্গে সঙ্গে ২৪ বছরের ম্যাথিউ তাঁর ক্যামেরা বার করে ফ্রেমবন্দি করেন দুর্লভ সেই মুহূর্ত। ম্যাথিউ ছবিটি তোলেন চলতি বছরের ৬ অক্টোবর। কিন্তু ম্যাথিউ তো বটেই এমনকি আজ অবধি সেই যুগলকে খুঁজে পেলেন না কেউ।

একটি সংবাদমাধ্যমকে ম্যাথিউ জানিয়েছেন যে, তাঁর সঙ্গে আরও বেশ কয়েকজন ফোটোগ্রাফার ছিলেন। ম্যাথিউর কথায়, ‘‘ওঁদের দেখা মাত্রই ক্যামেরায় সব কিছু তৈরি করে রেখেছিলাম। কিন্তু ছবিটা তোলার পরই দেখছি তাঁরা বেপাত্তা।’’

তার পরেই ছুটে ওই টাফ্ট পয়েন্টের দিকে চলে আসেন ম্যাথিউ ডিপ্পেল। কিন্তু সেখানে আরও ডজনখানেক যুগল ম্যাথিউর দিকে পোজ দিতে এগিয়ে আসেন।

১৭ অক্টোবর ওই যুগলের প্রেম নিবেদনের মুহূর্তটি ফেসবুকে শেয়ার করেন ম্যাথিউ। শুধু ফেসবুকই নয়। টুইটার এবং আরও বেশ কিছু সোশ্যাল প্ল্যাটফর্মেও সে ছবি শেয়ার করেছিলেন ম্যাথিউ। কিন্তু তাতেও আখেরে লাভের লাভ কিছুই হয়নি। কেউই খোঁজ দিতে পারেননি রহস্যময় সেই যুগলের।

ফেসবুকে ম্যাথিউ লিখেছিলেন, ‘‘ইন্টারনেট তোমার সাহায্যের প্রয়োজন। এই বছরেরই ৬ অক্টোবর ছবিটা তোলা হয়েছিল ইয়োসেমাইট ন্যাশনাল পার্কের টাফ্ট পয়েন্টে। আমিই ছবিটা তুলেছি আর এখন ওই যুগলকে আমি তন্ন তন্ন করে খুঁজছি।’’

ফেসবুকে শেয়ার হওয়া মাত্রই ভাইরাল হয়ে যায় সেই ছবি। টুইটারে প্রায় ১.৫ লক্ষ রিটুইট এবং ফেসবুকে ১৫,০০০ এরও বেশি শেয়ার হয়েছে ম্যাথিউর সেই পোস্ট।ফেসবুকের কমেন্ট বক্স জুড়ে কমেন্টের বন্যা বয়ে গিয়েছে। তবুও ওই যুগলের হদিশ কেউ দিতে পারেননি।

তবে এখনও অবধি ওই যুগলকে খুঁজে না পেয়ে ভাবিত নন ম্যাথিউ। তাঁর কথায়, ‘‘ পাঁচ দিন হতে চলল পোস্ট করেছি ফেসবুকে। এখনও এই ছবি মানুষের নজর কাড়ছে।আমি আশা করছি, একদিন ওঁদের ঠিক খুঁজে পাব।’’

সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা