১৪ নভেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সুয়ারেসের জোড়া গোলে বার্সার জয়

সুয়ারেসের জোড়া গোলে বার্সার জয়

অনলাইন ডেস্ক ॥ শক্তিতে অনেক পিছিয়ে থাকা রায়ো ভাইয়েকানোর বিপক্ষে শুরুতে এগিয়ে গিয়েও একসময় হারের শঙ্কায় পড়ে গিয়েছিল বার্সেলোনা। তবে শেষ দিকে দারুণভাগে ঘুরে দাঁড়িয়ে রোমাঞ্চকর জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে এরনেস্তো ভালভেরদের দল।

ভাইয়েকানোর মাঠে শনিবার রাতে লিগ ম্যাচটি লুইস সুয়ারেসের জোড়া গোলে ৩-২ ব্যবধানে জেতে শীর্ষে থাকা কাতালান ক্লাবটি।

একাদশ মিনিটে ম্যাচের প্রথম সুযোগেই কিছুটা সৌভাগ্যপ্রসূত গোলে এগিয়ে যায় বার্সেলোনা। বাঁ দিক দিয়ে ডি-বক্সে ঢোকা জর্দি আলবার কাটব্যাক ছোট ডি-বক্সের মুখে পেয়ে সুয়ারেসের নেওয়া শট একজনের গায়ে লেগে দিক পাল্টে জালে জড়ায়।

পিছিয়ে পড়ার পর আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলতে থাকে অবনমন অঞ্চলে থাকা দলটি। ৩৫তম মিনিটে কাঙ্ক্ষিত গোলও পেয়ে যায় তারা। প্রায় ২৫ গজ দূর থেকে জোরালো শটে বল ঠিকানায় পাঠান স্প্যানিশ মিডফিল্ডার হোসে পোসো।

৪১তম মিনিটে রাফিনিয়ার সঙ্গে বল দেওয়া নেওয়া করে সুয়ারেসের জোরালো শট পোস্টে লাগলে বিরতির আগে আর এগিয়ে যাওয়া হয়নি বার্সেলোনার।

দ্বিতীয়ার্ধের ষষ্ঠ মিনিটে গোলরক্ষককে একা পেয়েও রাফিনিয়া লক্ষ্যভ্রষ্ট শট নিলে বার্সেলোনার আবারও এগিয়ে যাওয়ার সহজ সুযোগ নষ্ট হয়। এরপরই ব্রাজিলিয়ান এই মিডফিল্ডারকে তুলে নিয়ে উসমান দেম্বেলেকে নামান কোচ।

অন্যদিকে, বদলি হিসেবে মাঠে নামার এক মিনিটের মধ্যে স্বাগতিকদের এগিয়ে নেন আলভারো গার্সিয়া। ৫৭তম মিনিটে রাউল দে তমাসের হেড পোস্টে লাগলে ফিরতি বল অনায়াসে ফাঁকা জালে পাঠান স্প্যানিশ মিডফিল্ডার। মাঠে নামার পর বলে এটাই ছিল তার প্রথম ছোঁয়া।

পিছিয়ে পড়ার পর যেন খেই হারিয়ে ফেলে বার্সেলোনা। আগের মতোই অধিকাংশ সময় বল দখলে রেখে খেলতে থাকে তারা। কিন্তু তাদের খেলা ছিল বেশ অগোছালো। উল্টো মাঝে মধ্যেই তাদের রক্ষণের পরীক্ষা নিচ্ছিল স্বাগতিকরা।

তবে নির্ধারিত সময়ের শেষ তিন মিনিটে পাল্টে যায় চিত্র। দেম্বেলের সমতা ফেরানো গোলের পর জয় নিশ্চিত করেন সুয়ারেস।

৮৭তম মিনিটে বাঁ দিক থেকে উড়ে আসা বল জেরার্দ পিকের হেডের পর পেয়ে যান দেম্বেলে। নিচু হাফ ভলিতে দূরের পোস্ট দিয়ে গোলটি করেন বদলি নামা ফরাসি ফরোয়ার্ড।

আর ৯০তম মিনিটে ডান দিক থেকে সের্হিও রবের্তোর লম্বা ক্রস ছোট ডি-বক্সে পেয়ে প্রথম ছোঁয়ায় ডান পায়ের শটে পোস্ট ঘেঁষে নিজের দ্বিতীয় গোলটি করেন সুয়ারেস।