১৪ নভেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

প্রথম টেস্টের দ্বিতীয় দিন শেষে চালকের আসনে জিম্বাবুয়ে

প্রথম টেস্টের দ্বিতীয় দিন শেষে চালকের আসনে জিম্বাবুয়ে

অনলাইন ডেস্ক ॥ এমনটা হতে পারে- কেউই কল্পনা করেনি। অন্তত সাম্প্রতিক ফর্ম এবং পারফরম্যান্স সেটা বলে না। ঘরের মাঠে ওয়ানডেতে বাংলাদেশ এখন এক অপ্রতিরোধ্য শক্তির নাম। কিন্তু টেস্টেও তো কম যায় না। অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ডের মত দলকে হারিয়েছে। সেখানে জিম্বাবুয়ে! হয়তো বা এই অহমিকাই বড় ধরণের ধ্বংস ডেকে আনছে। প্রথম ইনিংসে জিম্বাবুয়ের করা ২৮২ রানের জবাবে বাংলাদেশ অলআউট ১৪৩ রানে।

প্রথম ইনিংসেই ১৩৯ রানের লিড নিয়ে নিলো সফরকারী জিম্বাবুয়ে। দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে ১ রান করার পরই অবশ্য দ্বিতীয় দিনের খেলা শেষ হয়ে যায়। ফলে দ্বিতীয় দিন শেষে বাংলাদেশের চেয়ে ১৪০ রান এগিয়ে জিম্বাবুইয়ানরা।

প্রথম দিন শেষে দুই দল ছিল প্রায় সমতায়। দ্বিতীয় দিন প্রথম সেশনে দ্রুত জিম্বাবুয়ের ৫ উইকেট তুলে নিয়ে এগিয়ে গিয়েছিল বাংলাদেশ। তবে শেষ দুই সেশনে স্বাগতিকদের ১৪৩ রানে গুঁড়িয়ে দিয়ে সিলেট টেস্টে চালকের আসনে বসেছে জিম্বাবুয়ে।

দ্বিতীয় দিনের শেষ বেলায় জিম্বাবুয়ের ব্যাটিং করার কথা ছিল ৮ ওভার। কিন্তু আলোকস্বল্পতায় দ্বিতীয় ওভার শেষে দিনের খেলার সমাপ্তি টানেন দুই আম্পায়ার।

দ্বিতীয় দিনের খেলা শেষে জিম্বাবুয়ের স্কোর ১/০। হ্যামিল্টন মাসাকাজা ১ ও ব্রায়ান চারি ০ রানে অপরাজিত আছেন।

১৪৩ রানে গুটিয়ে গেল বাংলাদেশ

লড়াই করলেন কেবল অভিষিক্ত আরিফুল হক। টিকলেন না অন্যরা। গড়ে উঠলো না তেমন কোনো জুটি। নিদারুণ ব্যাটিং ব্যর্থতায় প্রথম ইনিংসে ১৪৩ রানে গুটিয়ে গেল বাংলাদেশ। জিম্বাবুয়ে পেল ১৩৯ রানের বড় লিড। টেস্টে টানা সপ্তম ইনিংসে দুইশ রানের নিচে থামল বাংলাদেশ।

১১ নম্বর ব্যাটসম্যান আবু জায়েদ চৌধুরীকে আগলে রেখে খেলতে চেয়েছিলেন আরিফুল। টেন্ডাই চাটারার প্রথম পাঁচটি বল ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান খেলেন ডট। স্ট্রাইক ধরে রাখতে শেষ বলে নিতে চেয়েছিলেন সিঙ্গেল। আরিফুল স্কয়ার লেগে বল পাঠালে দৌড় শুরু করেন দুই ব্যাটসম্যান। রান সম্ভব নয় দেখে ফিরে যান আরিফুল কিন্তু পড়মড়ি করে দৌড়ানো আবু জায়েদ ফিরতে পারেননি। তার রান আউটে ১৪৩ রানে থামে বাংলাদেশ।

অভিষেক টেস্টে নিজের প্রথম ইনিংসে ৯৬ বলে তিন চারে ৪১ রানে অপরাজিত থাকেন আরিফুল।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

জিম্বাবুয়ে ১ম ইনিংস: ২৮২

বাংলাদেশ ১ম ইনিংস: ৫১ ওভারে ১৪৩ (লিটন ৯, ইমরুল ৫, মুমিনুল ১১, শান্ত ৫, মাহমুদউল্লাহ ০, মুশফিকুর ৩১, আরিফুল ৪১*, মিরাজ ২১, তাইজুল ৮, অপু ৪, আবু জায়েদ ০; জার্ভিস ১১-২-২৮-২, চাটারা ১০-৪-১৯-৩, মাভুটা ৬-০-২৭-০, রাজা ১২-২-৩৫-৩, ওয়েলিংটন মাসাকাদজা ৮-২-২১-০, উইলিয়ামস ৪-০-৫-১)

জিম্বাবুয়ে ২য় ইনিংস: ২ ওভারে ১/০ (হ্যামিল্টন মাসাকাদজা ১*, চারি ০*; তাইজুল ১-০-১-০, অপু ১-১-০-০)