১৬ নভেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মৃত্যুর পর নেভাডার প্রশাসনিক পদে নির্বাচিত হয়েছেন যৌনপল্লির মালিক

মৃত্যুর পর নেভাডার প্রশাসনিক পদে নির্বাচিত হয়েছেন যৌনপল্লির মালিক

অনলাইন ডেস্ক ॥ কয়েক সপ্তাহ আগে আচমকাই ‘রহস্যজনক’ মৃত্যু হয়েছে তাঁর। তদন্তের নিষ্পত্তি হয়নি এখনও। এর মধ্যেই এল জয়ের খবর। নেভাডার প্রশাসনিক পদে নির্বাচিত হয়েছেন কুখ্যাত যৌনপল্লি মালিক ডেনিস হফ।

নেভাডায় পাঁচটি যৌনপল্লি চালাতেন রিপাবলিকান এই প্রার্থী। সেই সঙ্গে একটি স্ট্রিপক্লাবের মালিকও ছিলেন হফ। রাজনৈতিক পরিচয়ের থেকে নিজেকে ‘যৌনপল্লির দালাল’ বলতেই পছন্দ করতেন তিনি। বিয়ে ভেঙেছে তিন বার। ‘দি আর্ট অব দ্য পিম্প’ বইটির ‘লেখক’ হফ একটি প্রথম সারির মার্কিন টিভি চ্যানেলের রিয়্যালিটি শোয়েও অংশ নিয়েছেন। প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ‘ভক্ত’ হফ নিজেই নিজের নাম দিয়েছিলেন, ‘প্রাম্পের ট্রাম্প’। নেভাডার প্রাম্পেই বাড়ি হফের।

নেভাডার ৩৬তম ডিসট্রিক্টে ৭২ বছর বয়সি হফের উল্টো দিকে ছিলেন ডেমোক্র্যাট প্রার্থী লেসিয়া রোমানভ। ওই ডিসট্রিক্টে হফের প্রার্থী হওয়াও চমক ছিল। প্রবীণ ডাকসাইটে দলীয় প্রতিদ্বন্দ্বীকে হারিয়ে তিনি রিপাবলিকান প্রার্থী হয়েছিলেন। ভোট-পরীক্ষার পরের ধাপেও দারুণ ফল করলেন। পেশায় শিক্ষাবিদ লেসিয়াকে হারিয়ে ৬৮ শতাংশ ভোটই নিজের পকেটে পুরেছেন হফ। কিন্তু সে খবর জানাই হল না ‘প্রাম্পের ট্রাম্প’-এর। গত ১৬ অক্টোবর আচমকাই ঘুমের মধ্যে মারা যান ৭২ বছর বয়সি হফ। তবে বিষয়টা নিয়ে ধোঁয়াশা রয়েছে। নেভাডার ক্রিস্টালে তাঁর বা়ড়ি থেকে মৃতদেহ মেলে। ৭২ বছরের জন্মদিনের পার্টির পরের দিন সকালে বন্ধুরা ডাকতে গিয়ে দেখেন, সাড় নেই তাঁর দেহে। তদন্ত এখনও চলছে। মৃত্যুর কারণ কী, তা এখনও চূড়ান্ত ভাবে জানায়নি পুলিশ। কারণ কোনও ভাবে হফকে বিষ দেওয়া হয়েছিল কি না, ‘টক্সিকোলজি’ পরীক্ষার সেই রিপোর্ট এখনও আসেনি। প্রশাসনের তরফে এ দিন জানানো হয়েছে, নেভাডায় হফের জেতা ওই আসনে রিপাবলিকান পার্টির অন্য কাউকে নিয়োগ করা হবে।

কথায় কথায় ‘ট্রাম্প’ আওড়াতেন হফ। গত জুন মাসে নিজের যৌনপল্লি ‘মুনলাইট বানির্যাঞ্চ’-এ বসে একটি সাক্ষাৎকার দিয়েছিলেন হফ। দাবি করেছিলেন, ট্রাম্পের মতো রাজনৈতিক ভবিষ্যৎ তাঁরও হতে পারে। এ-ও বলেন, ‘‘এটা সত্যিই ট্রাম্পের আন্দোলন। মানুষ সব সময়েই এক জন সৎ মানুষকে ক্ষমতায় দেখতে চায়।’’

ভোট-দৌড়ে প্রথম থেকেই এগিয়ে ছিলেন হফ। ২-১-এ তাঁকে এগিয়ে রেখেছিলেন অনেকেই। বুধবার হফের প্রচার ম্যানেজার চাক মুথ টুইট করেন, ‘‘নেভাডায় রিপাবলিকানদের অবস্থা সত্যিই খুব খারাপ। কিন্তু আমাদের ডেনিস হফ তাঁর প্রতিদ্বন্দ্বীকে একেবারে গুঁড়িয়ে দিয়েছেন।’’

মার্কিন মুলুকে একমাত্র নেভাডাতেই যৌনব্যবসা আইনসম্মত। কিন্তা সাম্প্রতিক কালে তার বিরুদ্ধে প্রচারে নামে একাধিক সংগঠন। মুথ এ দিন বলেন, ‘‘যৌনপল্লি বন্ধ করতে প্রচার চলছিল এত দিন। হফের জয়ে এ বার দুরমুশ হবে বিরোধীরা।’’

সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা