১২ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

কুড়িয়ে পাওয়া সেই নবজাতকে দত্তক দিল আদালত

কুড়িয়ে পাওয়া সেই নবজাতকে দত্তক দিল আদালত

সংবাদদাতা, নান্দাইল, ময়মনসিংহ ॥ উপজেলায় ধান ক্ষেতে কুড়িয়ে পাওয়া সেই নবজাতককে দত্তক দিল ঈশ্বরগঞ্জের বিজ্ঞ আদালত। এর আগে বিশ জন নি:সন্তান দম্পতি শিশুটিকে দত্তক নিতে ঈশ্বরগঞ্জের চৌকি আদালতের গার্ডিয়ান এন্ড ওয়ার্ড আ্যক্ট বলে আবেদন করেন। বিজ্ঞ আদালত শুনানির পর শিশুটিকে টাঙ্গাইল জেলার বাসাইল উপজেলার ঝনঝনা গ্রামের নিঃসন্তান দম্পতি নবীমূল ও রণু আক্তারকে দত্তক দেন।

জানা গেছে, গত ২৮ অক্টোবর রাত সাড়ে ৮টার দিকে ময়মনসিংহ-কিশোরগঞ্জ মহাসড়কের পাশে নান্দাইল উপজেলার ঘোষপালা নামক স্থানে শিশুর কান্নার আওয়াজ পান কলেজছাত্র আনিছুর রহমান হৃদয়। পরে মোবাইলের আলো জ্বালিয়ে সন্ধান পান সদ্য জন্ম নেয়া এক নবজাতকের। এ অবস্থায় নিজের শরীরের শার্ট খুলে শিশুটিকে মুড়িয়ে নিয়ে যায় থানায়। পরে ওসি কামরুল ইসলাম মিয়া কুড়িয়ে পাওয়া ওই শিশুটিকে দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে যান। হাসপাতালের খাতায় শিশুটির নাম রাখা হয় ‘উত্তরা’।

এদিকে শিশু নবজাতকটিকে দত্তক নিতে নান্দাইল থানায় ভিড় জমায় প্রায় ৪০ জন নিঃসন্তান দম্পত্তি। এই নিয়ে ৩১ অক্টোবর দৈনিক জনকণ্ঠে ‘কুড়িয়ে পাওয়া শিশু দত্তক নিতে থানায় ভিড়’ শিরোনামে একটি সংবাদ প্রকাশ হয়।

নান্দাইল থানার ওসি কামরুল ইসলাম মিয়া জানায়, এ ঘটনাটি ময়মনসিংহের অতিরিক্ত দায়রা জজ রাশেদ কবিরের শিশু আদালতকে অবহিত করা হয়েছিল। ৬ নবেম্বর শুনানি হলে আদালত আবেদনকারীর কাউকে নবজাতক দেওয়ার সিদ্ধান্ত দেয়নি। এই অবস্থায় বিষয়টি ফয়সালা দেওয়ার জন্য ঈশ্বরগঞ্জ চৌকি আদালতের সহকারী জজ তরিকুল ইসলামের আদালতে স্থানান্তর করা হয়।

সেখানেই ওই দম্পতিকে দত্তক দিতে নান্দাইল সমাজ সেবা কর্মকর্তাকে নির্দেশ দেওয়া হয়। আদেশটি পৌঁছার পর মঙ্গলবার রাতে সমাজ সেবা কর্মকর্তা ইনসান আলী ও থানার ওসি কামরুল ইসলাম মিয়া নবজাতকে নিঃসন্তান দম্পতির কাছে হস্তান্তর করেন।

নির্বাচিত সংবাদ