১৮ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

জয়ের অপেক্ষায় বাংলাদেশ

জয়ের অপেক্ষায় বাংলাদেশ

মিথুন আশরাফ ॥ মিরপুর টেস্টের পঞ্চম ও শেষ দিন আজ। এই দিনে জিম্বাবুইয়ের বিপক্ষে দ্বিতীয় টেস্টে জয়ের অপেক্ষায় বাংলাদেশ। জিম্বাবুইয়ের বিপক্ষে জিততে এখনও দরকার ৩৬৭ রান। এই রানের আগে, দিন শেষ হওয়ার আগে জিম্বাবুইয়ের হাতে থাকা ৭ উইকেট তুলে নিতে পারলেই জয়ের বন্দরে তরী ভেড়াবে বাংলাদেশ।

এই টেস্টে বাংলাদেশ আগেও নিরাপদেই ছিল। এখনও আছে। বাংলাদেশ প্রথম ইনিংসে ২১৮ রানে এগিয়ে ছিল। ফলোঅনে পড়া জিম্বাবুইয়েকে ফের ব্যাটিংয়ে না পাঠিয়ে নিরাপদ জোনে থাকতে নিজেরাই ব্যাটিংয়ে যায়। দ্বিতীয় ইনিংসে ৬ উইকেট হারিয়ে মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের অপরাজিত ১০১ রানে ২২৪ রান করে ইনিংস ঘোষণা করে বাংলাদেশ। জিম্বাবুইয়ের সামনে জিততে ৪৪৩ রানের টার্গেট দাঁড় করে টাইগাররা। এই টার্গেটে খেলতে নেমে ২ উইকেট হারিয়ে বসেছে মাসাকাদজার দল। দলের ১২ রানের মধ্যে স্পিনার তাইজুলের বলে চারির (৪৩) ও পেসার খালেদের বলে মাসাকাদজার (২৫) ক্যাচ মিরাজ লুফে নিতে পারলে ৪ উইকেট পড়তো জিম্বাবুইয়ের। তখন জয় যেন দ্রুতই দুয়ারে কড়া নাড়তো। এখন টেইলর (৪*) ও উইলিয়ামস (২*) আজ ব্যাট হাতে নামবেন। টেন্ডাই চাতারা ইনজুরিতে পড়ে যাওয়ায় ব্যাটিং করতে পারবেন না। তাই এখন টেইলর, উইলিয়ামস, সিকান্দার রাজা, পিটার মুর, চাকাভা, মাভুতা, তিরিপানো, জার্ভিসই জিম্বাবুইয়ের ভরসা। একদিনে ৩৬৭ রান করা জিম্বাবুইয়ের পক্ষে অসম্ভবই। টেইলর, উইলিয়ামস, সিকান্দার ও মুরকে যদি দ্রুত আটকানো যায় তাহলেতো ম্যাচও বাংলাদেশের জয় দিয়ে দ্রুতই শেষ হয়ে যাবে।

অকল্পনীয় কিছু না ঘটলে টেস্টে বাংলাদেশের হারের কোন সম্ভাবনাই এখন আর নেই। অল্প করে ড্র’র সম্ভাবনা উঁকি দিচ্ছে। তবে পঞ্চমদিনে যেহেতু খেলতে হবে জিম্বাবুইয়েকে, সেখানেই বাংলাদেশ বড় আশা দেখছে। পঞ্চমদিনে ব্যাটিং করা যে কোন দলের জন্যই কষ্টকর। চারদিন উইকেট ব্যাটসম্যানদের দখলেই ছিল। কিন্তু চতুর্থদিনের শেষভাগে যেভাবে বল ঘুরেছে, তাতে পঞ্চমদিনে বাংলাদেশ স্পিনাররা জিম্বাবুইয়ে ব্যাটসম্যানদের সামনে আতঙ্কে পরিণত হতে পারেন। তাই যদি হয়, তাহলে প্রথম টেস্টে যে ১৫১ রানে হেরে সিরিজ ১-০তে পিছিয়ে পড়েছে বাংলাদেশ, এবার জিম্বাবুইয়েকে বড় ব্যবধানে হারিয়ে সিরিজ ১-১ ড্র করার দিকেই ঠেলে দেবে মাহমুদুল্লাহর দল। শেষ পর্যন্ত তাই হতে পারে।

জিম্বাবুইয়ের ক্রিকেট ইতিহাস বলছে এতবড় টার্গেটে কখনই জিততে পারেনি জিম্বাবুইয়ে। জিততে হলে এবার বিশ্বরেকর্ড গড়তে হবে। টেস্ট ইতিহাসে ১৬২ রানের টার্গেটে জেতাই জিম্বাবুইয়ের সম্ভব হয়েছে। চতুর্থ ইনিংসে ৩৩১ রানের বেশি কখনও করতেই পারেনি জিম্বাবুইয়ে। বিদেশের মাটিতে ২৬২ রানের বেশি করতে পারেনি। সবদিক দিয়েই পিছিয়ে আছে জিম্বাবুইয়ে। একদিন পুরো খেলা, তাও আবার পঞ্চমদিনে, জিম্বাবুইয়ের জন্য তাই কঠিনই হবে। এখন জিম্বাবুইয়ে একটি কাজ করে ফেলতে পারে। সারাদিন উইকেটে থেকে ড্র করার চেষ্টা করতে পারে। কিন্তু উইকেট ভেঙ্গে যাচ্ছে, স্পিন ধরছে, বল নিচু হয়ে আসছে। তাতে বাংলাদেশ স্পিনাররাই আজ বাংলাদেশকে জেতাতে পারেন। সেই জয়ের অপেক্ষাতেই আছে বাংলাদেশ।

দুই ইনিংসেই দুর্দান্ত ব্যাটিং করা মেহেদী হাসান মিরাজ বাংলাদেশের জয়ই দেখছেন। তিনি বলেছেন, ‘এখন পর্যন্ত ম্যাচ আমাদের দিকেই আছে। আমরা অলমোস্ট ৪৪৩ রান টার্গেট দিছি। ২ উইকেট পড়েছে। কালকের (আজ) একটা দিন আছে। তিনটা সেশন আছে। আশাকরি বোলাররা যদি ভাল জায়গায় বল করতে পারে, টাইট লেন্থে বল করতে পারে, তাহলে ম্যাচটা আমাদের দিকেই আছে অবশ্যই। আজকে (বুধবার) কিন্তু কিছু কিছু সময় উইকেট ভিন্ন আচরণ করেছে। কালকে (আজ) উইকেট আরও চেঞ্জ হবে। আরও আচরণ করবে। সো আমাদের টার্গেট থাকবে স্ট্যাম্প টু স্ট্যাম্প বল করা। তাহলে আরও সুযোগ থাকবে।’

সঙ্গে যোগ করেন, ‘আমি বলব চারটা সেশন মোর দ্যান এনাফ। আমরা যে সময় ছেড়ে দিয়েছি, ওটাতে প্রায় ১২০-১২৫ ওভার কাভার করেছে। চতুর্থ ইনিংসে ১২০ ওভার মানে অনেক ওভার। আমাদেরও তো একটা ব্যালেন্স করে ছাড়তে হবে। টিম ম্যানেজমেন্ট খুব ব্যালেন্স করে ছেড়েছে। আমরা যেন কোন সময় ব্যাকফুটে না যাই, সেভাবেই আমাদের ডিটারমিনেশন ছিল।’ বাংলাদেশের জয়ের অপেক্ষা এখন আজ দ্রুত শেষ হলেই হলো।