২৪ জানুয়ারী ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বিমান দুর্ঘটনা মোকাবেলায় শাহজালালে মহড়া

স্টাফ রিপোর্টার ॥ হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের দক্ষিণ পাশের ট্যাক্সিওয়েতে অবতরণের সময় এবিসি এয়ারলাইন্সের এক বিমানে ডানপাশের ইঞ্জিনে আগুন ধরে যায়। মুহূর্তে আগুন বিমানটিতে ছড়িয়ে পড়ে। এতে এক যাত্রী আহত হয়েছেন। দুর্ঘটনার প্রায় দেড় মিনিটের মাথায় ঘটনাস্থলে আসে বিমানবন্দরের ফায়ার সার্ভিস ইউনিট। তাদের সঙ্গে যোগ দেয় বিমানবাহিনী ও ফায়ার সার্ভিসের গাড়ি। যাত্রীদের উদ্ধারের জন্য দ্রæত এগিয়ে আসে মেডিক্যাল টিম ও এ্যাম্বুলেন্স। গুরুতর আহত দু’জনকে বিমানবাহিনীর হেলিকপ্টারে করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। এতে আতঙ্কিত হওয়ার কারণ নেই। পুরো ঘটনাই ছিল মহড়া।

বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে শুরু হয় মহড়া। ব্যাপক তৎপরতায় পুরো অনুশীলন চলে দুপুর ১২টা পর্যন্ত। শাহজালালে বিমান দুর্ঘটনা মোকাবেলার এই অনুশীলন আয়োজন করেন বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক)। তাদের এই আয়োজনে অংশ নেয় বিমান বাহিনী, বাংলাদেশ ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স, সেনাবাহিনী, নৌবাহিনী, পুলিশ, বাংলাদেশ আনসার ও ভিডিপি, বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স, রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি। এছাড়া অংশ নেন কয়েকটি বেসরকারী হাসপাতালের চিকিৎসক ও ফার্স্টএইড কর্মীরা।

এদিকে বিমান দুর্ঘটনা মোকাবেলার এ মহড়া অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী একেএম শাহজাহান কামাল। মন্ত্রী বলেন, আমরা দুর্ঘটনা চাই না। তবু অনাকাক্সিক্ষত ঘটনা সৃষ্টি হলে দ্রুত উদ্ধার কাজ পরিচালনা করতে এই মহড়ার আয়োজন। আন্তর্জাতিক বেসামরিক বিমান চলাচল সংস্থার (আইকাও) নির্দেশনা অনুযায়ী প্রতিটি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে প্রতি দুই বছরে একবার জরুরী দুর্যোগ মোকাবেলার মহড়া অনুষ্ঠানের বাধ্যবাধকতা রয়েছে। সেই অনুযায়ী এটি অনুষ্ঠিত হলো।

এই মাত্রা পাওয়া