২৪ জানুয়ারী ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সংখ্যালঘুদের স্বার্থবিরোধী কর্মকাণ্ডে জড়িতদের মনোনয়ন না দেয়ার আহ্বান

সংখ্যালঘুদের স্বার্থবিরোধী কর্মকাণ্ডে জড়িতদের মনোনয়ন না দেয়ার আহ্বান

অনলাইন ডেস্ক ॥ আজ শুক্রবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ, সংখ্যালঘু ও আদিবাসী জনগোষ্ঠীর স্বার্থবিরোধী কর্মকাণ্ডে জড়িতদের মনোনয়ন না দিতে আহ্বান জানিয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে বক্তারা বলেন, ‘সব রাজনৈতিক দল ও জোটের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলতে চাই এমন কাউকে মনোনয়ন দেবেন না যারা ইতোপূর্বে জনপ্রতিনিধি হয়ে ধর্মীয় জাতিগত সংখ্যালঘু ও আদিবাসী জনগোষ্ঠীর স্বার্থবিরোধী কর্মকাণ্ডে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ লিপ্ত ছিলেন বা আছেন। এমন কাউকে প্রার্থী করা হলে সেই এলাকায় সংখ্যালঘুদের ভোট দান সম্ভব হবে না বলে মনে হয়।’

তারা আরও বলেন, নির্বাচনকে সামনে রেখে সব রাজনৈতিক দল ও জোটের মিলিত উদ্যোগে উৎসবের আবহ তৈরি হলেও এ দেশে সংখ্যালঘু জনগোষ্ঠীর শঙ্কা ও উদ্বেগ থেকে মুক্ত হতে পারছে না। ৯০ পরবর্তী ব্যতিক্রম বাদে স্থানীয় ও জাতীয় পর্যায়ে যতগুলো নির্বাচন হয়েছে তা সংখ্যালঘু জনজীবনে বিপর্যয় আর উদ্বেগের কারণ হিসেবে দেখা দিয়েছে। প্রায় প্রতিটি নির্বাচনের প্রাক্কালে নির্বাচন কমিশন অতীতে সংখ্যালঘুদের নিরাপত্তা নিশ্চিতের প্রতিশ্রুতি দিলেও কখনো তা রক্ষা হয়নি। আশা করি এবার তার ব্যত্যয় ঘটবে। নির্বাচন কমিশনের কাছে আহ্বান, নির্বাচনে মসজিদ-মন্দির-প্যাগোডা-গীর্জাসহ সব ধর্মীয় উপাসনালয়কে নির্বাচনী কর্মকাণ্ডে ব্যবহার নিষিদ্ধ করতে হবে।

এ সময় আয়োজক সংগঠনের পক্ষ থেকে বেশ কিছু দাবি তুলে ধরা হয়। দাবিগুলোর মধ্যে রয়েছে-সংখ্যালঘু মন্ত্রণালয় ও জাতীয় সংখ্যালঘু কমিশন গঠন, সংখ্যালঘু সুরক্ষা আইন প্রণয়ন, অর্পিত সম্পত্তি প্রত্যর্পণ আইনের যথাযথ বাস্তবায়ন, সমতলের আদিবাসীদের জন্য ভূমি কমিশন গঠন, বর্ণ বৈষম্য বিলোপ আইন প্রণয়ন এবং পার্বত্য ভূমি বিরোধ নিষ্পত্তি আইনের বাস্তবায়নসহ পার্বত্য শান্তি চুক্তির পূর্ণ বাস্তবায়নে নির্বাচনী ইশতেহারে প্রতিশ্রুতি দিতে হবে।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক রানা দাশগুপ্ত, সদস্য নিমচন্দ্র ভৌমিকসহ সংগঠনের অন্যান্য সদস্যরা।

এই মাত্রা পাওয়া