১১ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

রিটার্ন দাখিল করতে মেলায় করদাতাদের ঢল

রিটার্ন দাখিল করতে মেলায় করদাতাদের ঢল

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ আজ শুক্রবার ছুটির দিনে আয়কর রিটার্ন দাখিল করতে আয়কর মেলায় করদাতাদের ঢল নেমেছিল। বেলা গরিয়ে যখন দুপুর, তখন ঢাকার অফিসার্স ক্লাব চত্বরে জনতার ভিড়ে তিল ধারণের ঠাঁই ছিল না। ভিড় ঠেলে অনেকে নির্দিষ্ট বুথে গিয়ে সেবা নিয়েছেন। সারাদেশে এই দিন আয়কর আদায় হয়েছে ২৫৩ কোটি ১৫ লাখ ৮১ হাজার ৫৪০ টাকা। রিটার্ন দাখিল করেছেন ৭৫ হাজার ৭৩৬ জন। এছাড়া সেবা নিয়েছেন ২ লাখ ৮৮ হাজার ৪৬ জন করদাতা। ৩ হাজার ৬৫১ জন নতুন ইটিআইএন নিয়েছেন। সাপ্তাহিক ছুটি থাকায় আজ শনিবারও কর মেলায় জনতার ঢল নামবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন মেলা সংশ্লিষ্টরা।

করদাতাদের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণ ও ব্যাপক সাড়ার মধ্য দিয়ে শুক্রবার দেশের ৮টি বিভাগ, ৫৬ টি জেলা এবং ৩ টি উপজেলাসহ মোট ৬৭ টি স্পটে আয়কর মেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। রাজধানী ঢাকার মতই মেলার চতুর্থ দিন সারাদেশে করদাতারা ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে কর প্রদান ও সেবা গ্রহণ করেছেন বলে জানা গেছে। বিশেষ করে পেশাজীবী, চাকরিজীবী, তরুণ করদাতা, নারী করদাতা, অনলাইন রিটার্ন দাখিল বুথে করদাতাদের উপস্থিতি ছিল লক্ষণীয়।

এদিকে, ভবিষ্যত আয়কর দাতা সৃষ্টি ও শিক্ষার্থীদের মধ্যে কর সচেতনতা তৈরির লক্ষ্যে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) অন্যতম উদ্ভাবনী পদক্ষেপ ‘কর শিক্ষণ ফোরাম’। দেশের খ্যাতনামা বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়, কলেজ, ও স্কুলের শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে প্রতিদিন আয়কর মেলায় আয়োজন করা হচ্ছে ‘কর শিক্ষণ’ অনুষ্ঠান। কর শিক্ষণ ফোরামের আওতায় শিক্ষার্থীরা মেলা পরিদর্শন ও কর বিষয়ে জ্ঞান আহরণ করেন। মেলার চতুর্থ দিন শুক্রবার ঢাকা মেডিকেল কলেজের ৪০ জন শিক্ষার্থী কর শিক্ষণ ফোরামে অংশগ্রহণ করেন। তাদের মধ্যে কুইজ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। প্রতিযোগিতায় ১০ জন শিক্ষার্থীকে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়। কুইজ বিজয়ী প্রথম ৩ জন শিক্ষার্থীকে পুরস্কার হিসাবে প্রাইজবন্ড, সনদপত্র ও বই প্রদান করা হয়েছে।

এছাড়া বিজয়ী ১০জন শিক্ষার্থীকে সনদপত্র ও বই প্রদান করা হয়। পাশাপাশি ঢাকা মেডিকেল কলেজকে সনদপত্র প্রদান করা হয়। শিক্ষার্থীদের মাঝে সনদপত্র ও পুরস্কার বিতরণ করেন সিনিয়র সচিব, অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগ ও এনবিআরের মো. মোশাররফ হোসেন ভূইয়া, এনডিসি। জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সদস্য (কর প্রশাসন ও মানবসম্পদ ব্যবস্থাপনা) জিয়া উদ্দিন মাহমুদসহ কর বিভাগের অনান্য উর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।