১৮ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাতকার নিচ্ছে জাপা

মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাতকার নিচ্ছে জাপা

স্টাফ রিপোর্টার ॥ একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাতকার গ্রহণ কার্যক্রম শুরু করেছে জাতীয় পার্টি।

আজ মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর গুলশান ১ নম্বরে অবস্থিত ইমানুয়েলস মিলনায়তনে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাতকার গ্রহণ কার্যক্রম শুরু হয়।

এ উপলক্ষ্যে সকাল থেকেই মনোনয়ন প্রত্যাশীরা তাদের কর্মী-সমর্থকদের নিয়ে ইমানুয়েলস মিলনায়তনের বাহিরে ভিড় করতে থাকেন। তবে মিলনায়তনের ভিতরে শুধু মনোনয়ন প্রত্যাশীরাই প্রবেশ করতে পারছেন।

দুপুর পৌনে ১২টার দিকে মিলনায়তনে প্রবেশ করেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ, সিনিয়র কো-চেয়ারম্যান ও বিরোধীদলীয় নেতা বেগম রওশন এরশাদ, কো-চেয়ারম্যান জিএম কাদের এবং মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার।

এর আগে গত ১১ নভেম্বর থেকে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের বনানী কার্যালয়ে মনোনয়নপত্র বিক্রি শুরু হয়ে চলে ৫ দিন। এরই ধারাবাহিকতায় আজ মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাতকার গ্রহণ শুরু হয়েছে।

জানা গেছে, জাপা থেকে ২ হাজার ৮৬৫ জন মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছে। তার মধ্যে প্রাথমিক বাছাই করে ৭৮০ জন প্রার্থীর সাক্ষাতকার নেয়া হবে। এখান থেকে ৩০০ আসনের প্রার্থী নির্ধারণ হবে। তবে দেশের স্বার্থে পার্টির চেয়ারম্যান এরশাদ যে সিদ্ধান্ত নিবেন তা সবাইকে মেনে নেবেন বলে জানান দলটির মহাসচিব এ বি এম রুহুল আমিন হাওলাদার।

সাক্ষাতকার গ্রহণ কার্যক্রমের শুরুতে স্বাগত বক্তব্যে রুহুল আমিন হাওলাদার বলেন, একাদশ জাতীয় নির্বাচনে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান প্রার্থী নির্ধারণে যে ধরনের সিদ্ধান্ত নিবেন তা পার্টির সকলে মেনে নেবেন। একই সাথে পার্টির চেয়ারম্যানকে আশ্বস্ত করেছেন, যেকোনো সিদ্ধান্তে পার্টির কেউ তাকে (এরশাদ) ছেড়ে যাবেন না। কারণ আপনাকে সবাই বিশ্বাস করেন।

জাপা মহাসচিব আরও বলেন, বৃহত্তর স্বার্থে মহাজোট কিংবা অন্য কোনো জোটে আপনি (এরশাদ) যাবেন কি না সেটা একান্ত আপনার সিদ্ধান্ত। আপনি নির্ভুল পথে হাটছেন।

জাতীয় নির্বাচনে জাপা চেয়ারম্যানের সিদ্ধান্ত অনেক বড় প্রভাব ফেলবে এমন কথা উল্লেখ করে রুহুল আমিন হাওলাদার বলেন, বহু বছর ধরে সংগ্রাম করে জাপা আজকের এই অবস্থানে এসেছে। আপনি (এরশাদ) যে সিদ্ধান্ত নিবেন তা সবাই মেনে নেবে।