২৪ জানুয়ারী ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

কলাপাড়ায় শত বছরের ঐতিহ্যবাহী রাস মেলা শুরু

কলাপাড়ায় শত বছরের ঐতিহ্যবাহী রাস মেলা শুরু

নিজস্ব সংবাদদাতা, কলাপাড়া ॥ দক্ষিণাঞ্চলের শত বছরের ঐতিহ্যবাহী রাস মেলা আজ বুধবার সন্ধ্যায় শুরু হয়েছে। কুয়াকাটায় বসেছে তিনদিনের মেলা ও ধর্মীয় অনুষ্ঠান। হিন্দু সম্প্রদায়ের রাস উৎসবকে ঘিরে বিকেল থেকেই জড়ো হতে শুরু করেছেন শত শত রাসভক্ত নর-নারী। বসেছে মেলা প্রাঙ্গনে বিভিন্ন ধরনের দোকান। রাত হতেই ভিড় ক্রমশ বাড়ছে। কুয়াকাটা সৈকত ঘেঁষা রাধাকৃষ্ণ মন্দির প্রাঙ্গনে ধর্মীয় অনুষ্ঠানসহ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে জড়ো হচ্ছেন ভক্তরা।

ইতোমধ্যে মন্দিরে প্রতিস্থাপন করা হয়েছে রাধাকৃষ্ণের ১৭ জোড়া যুগল প্রতিমা। প্রতিমা দর্শন শেষে রাতভর ধর্মীয় অনুষ্ঠানে অংশ নেয়া ভক্তরা সাগরে পুণ্য স্নান শেষে কলাপাড়া পৌরশহরের মদন মোহন সেবাশ্রমে পাঁচ দিনের রাস মেলা ও ধর্মীয় অনুষ্ঠানে মিলিত হবেন। সারা বছরের পঙ্কিলতা দুর করার মানষে হিন্দু সম্প্রদায়ের নর-নারীরা কার্তিক মাসের ভরা পুর্ণিমার এ তিঁথিতে কুয়াকাটায় সাগরে পুণ্য স্নান করেন।

এ উৎসবে মিলিত হন অন্য ধর্মের হাজারো মানুষ। তারা অবলোকন করেন রাস মেলার সামগ্রিক দৃশ্যপট। কলাপাড়া পৌরশহরের মদন মোহন সেবাশ্রমে ১৯২৩ সাল থেকে এ রাস মেলা চলে আসছে বলে সেবাশ্রম কমিটিসুত্রে জানা গেছে। এ রাস মেলা ও ধর্মীয় অনুষ্ঠান নির্বিঘ্নে করতে প্রশাসনের কয়েক স্তরের বিশেষ নিরাপত্তা বলয় তৈরি করা হয়েছে। আগামীকাল বৃহস্পতিবার রাতে রাস পুঁজার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন বরিশাল বিভাগীয় কমিশনার। তবে ভাসমান ব্যবসায়ীরা অভিযোগ করেছেন একটি চক্র সৈকতে পজেশন দেয়ার নাম করে অতিরিক্ত টাকা আদায় করছেন। এতে ব্যবসায়ীরা ক্ষুব্ধ রয়েছেন।

আগত পুণ্যার্থী ও দর্শনার্থীর নিরাপত্তায় গুরুত্বপুর্ণ এলাকায় সিসি ক্যামেরা স্থাপন করা হয়েছে। কলাপাড়ায় মন্দীর এলাকা সিসি ক্যামেরার আওতায় নেয়া হয়েছে। ভক্তদের নিরাপদ পানি সরবরাহ,স্যানিটেশণ ব্যবস্থা, পুণ্য স্নান শেষে কাপড় বদলাতে অস্থায়ী গোসল খানা, নলকুপ বসানোসহ নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুত সরবরাহ ব্যবস্থা থাকছে। থাকছে বিশেষ মেডিকেল ক্যাম্প, তথ্য সেবাসহ নেয়া হয়েছে নানামুখী পদক্ষেপ।

মন্দিরের পুরোহিত শিশির মহারাজ ব্রহ্মচারী জানান, আজ সন্ধায় সন্ধা আরতি, নাম কীর্তন, ভোগ প্রসাদের মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে রাস পুজা। আগামীকাল ভোরে ভগবাত পাঠ, নাম কীর্তণ, সন্ধা আরতি, উদ্বোধণী অনুষ্ঠান, ধর্মীয় আলোচনা , বিশেষ সংগীতানুষ্ঠান। বৃহস্পতিবার মধ্যরাত থেকে শুরু হবে পুণ্য স্নান চলবে শুক্রবার দুপুর পর্যন্ত। এরপরে কলাপাড়া পৌরশহরের মদন মোহন শেবাশ্রমের পাঁচ দিনের মূল অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন রাসভক্তরা।

কলাপাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার তানভীর রহমান জানান, নির্বিঘ্নে রাস উৎসব উদযাপনের সকল প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। তবে কলাপাড়া পৌরশহরের শেখ কামাল সেতুর সংযোগ সড়ক থেকে বাসস্ট্যান্ড পর্যন্ত পৌর টোলের নামে মহাসড়কে রাস ভক্তদের বাসসহ যানবাহন আটকে ব্যাপক চাঁদাবাজী চলায় আগতরা প্রচন্ড ক্ষুব্ধ মনোভাব পোষন করেন।

এই মাত্রা পাওয়া