১৭ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সম্ভাবনাময় মানবসম্পদ

  • আজহার মাহমুদ

তরুণ কথাটির মানে হচ্ছে, নবীন, নবযুবক কিংবা অপরিণত। এই অপরণিত-নতুন ছেলেদের পরিণত করার দায়িত্ব সমাজের এবং দেশের। একটি দেশের অন্যতম সম্পদ কিন্তু তরুণরাই। এদের সঠিকভাবে ব্যবহার করে বিশ্বের অনেক দেশ আজ উন্নতি করছে। কিন্তু বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে এটা ভিন্ন। কারণ আমাদের দেশে তরুণদের নিয়ে সাড়া জাগানোর মতো কিছু তৈরি হয়নি। তরুণদের প্রত্যাশা অনেক আছে। কিন্তু প্রত্যাশা আর প্রাপ্তির মধ্যে রয়েছে বিশাল ব্যবধান। তরুণদের সুযোগ দিলে তারা যে দেশের জন্য কতটা করতে পারে তার প্রমাণ ’৫২-এর ভাষা আন্দোলন, ’৬৯-এর গণঅভ্যুত্থান, ’৭১-এর মুক্তিযুদ্ধ। ইতিহাসের পাতা উল্টালে দেখতে পাবেন তরুণদের অবদান কতটা। আর এ জন্যই দেশের ইতিহাসে প্রথমবার তরুণদের মুখোমুখি হয়েছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী। তিনি জানতে চেয়েছেন তরুণরা কেমন বাংলাদেশ চেয়েছেন। খুব ভাল একটি উদ্যোগ এটা বলতেই হয়। তবে তরুণদের চাওয়াটা কতটা পূরণ হবে সেটাও চিন্তার বিষয়। আজকের তরুণরা একটি সুন্দর পরিচ্ছন্ন দেশ চায়। যেখানে থাকবে না কোন সহিংসতা আর হানাহানি। আজকের তরুণরা দেশকে নিয়ে অনেক চিন্তা করছে। প্রতিনিয়ত দেশের খবরা-খরব জানতে চেষ্টা করে তারা। কিন্তু প্রশাসন, রাষ্ট্র তরুণদের নিয়ে কতটা ভাবে? দেশের প্রশাসন এবং রাজনৈতিক ব্যক্তিদের একটা কথা জানা চাই, আজকের তরুণরা মুখে আর বিশ্বাস করে না। তারা এখন বাস্তবতায় বিশ্বাস করে। তাদের এখন আশ্বাস দিয়ে কোন লাভ নেই। বর্তমান তরুণ প্রজন্ম কাজে বিশ্বাস করে, কথায় নয়। একটি দেশ নিয়ে তরুণরা যেভাবে চিন্তা করে সেভাবে যদি সকলেই করত তাহলে দেশ আরও অনেক সমৃদ্ধির পথে যেত বলে আমার বিশ্বাস।

আমাদের দেশে তরুণ বেকারের সংখ্যা প্রচুর। এই বেকার তরুণদের মাধ্যমে বাংলাদেশ পিছিয়ে আছে। এদের চিন্তাচেতনা আর বুদ্ধি যদি কাজে লাগাতে পারে রাষ্ট্র, তবে বাংলাদেশ পরিণত হবে সোনার বাংলায়। বর্তমান তরুণ সমাজ এটাই চায়। তাই দেশকে এগিয়ে নিতে হলে তরুণ সমাজের বিকল্প নেই। একটা কথা সকলের মনে রাখতে হবে আজকের তরুণরাই আগামী দিনে দেশ পরিচালনা এবং বড় বড় কাজের নেতৃত্ব দেবে। এখন থেকে যদি তরুণদের দক্ষ করে গড়ে তোলা যায় তবে বাংলাদেশের ভবিষ্যত আরও সুন্দর হবে। তাই দেশ গঠনে তরুণদের চাওয়াকে যেমন গুরুত্ব দিতে হবে ঠিক তেমনি তাদের পর্যাপ্ত সুযোগও দিতে হবে। আজ আমাদের দেশে লাখ লাখ শিক্ষিত বেকার তরুণ একটু আলোর পথ খুঁজছে। যাদের চাইলে দেশের উন্নয়নে কাজে লাগাতে পারে সরকার। তরুণদের দাবি একটাই, পর্যাপ্ত পরিমাণ কর্মসংস্থান। দেশে যেন বেকার না থাকে। ভাল ভাল মেধাসম্পন্ন তরুণদের যেন রাষ্ট্রের কাজে লাগানো যায় সেটাই এখন সমাজের প্রত্যাশা।

খুলশী, চট্টগ্রাম থেকে

নির্বাচিত সংবাদ