১৭ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

দেশের উন্নয়ন বিশ্ববাসীর নজর কেড়েছে ॥ নাসিম

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বাংলাদেশের উন্নয়ন আজ বিশ্ববাসীর নজর কেড়েছে এবং উন্নয়নের এই ধারা অব্যাহত রাখতে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শেখ হাসিনার বিকল্প নেই বলে মন্তব্য করেছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম। তিনি বলেন, বাংলাদেশে বঙ্গবন্ধুর পর শেখ হাসিনার মতো এমন কোন সফল রাষ্ট্রনায়ক আসেনি। সকল খাতের পাশাপাশি স্বাস্থ্য খাতে তার বিশেষ নজর থাকার কারণে দেশের চিকিৎসা ও স্বাস্থ্যসেবা এতটা উন্নত হচ্ছে। দেশের সর্বত্র বিস্তার লাভ করেছে ডিজিটাল স্বাস্থ্যসেবার নেটওয়ার্ক। এমন মজবুত অবকাঠামোর ওপর দাঁড়িয়ে বাংলাদেশের স্বাস্থ্যসেবা প্রদানের মাত্রার ব্যাপক বিস্তার ঘটেছে। সাধারণ মানুষ ঘরে বসেই স্বাস্থ্য ও চিকিৎসাসেবা বিষয়ক নানা পরামর্শ গ্রহণ করতে পারছে। আর সরকারী হাসপাতালগুলো হয়ে উঠেছে জনগণের চিকিৎসাসেবার শেষ আশ্রয়স্থল।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর শেরেবাংলা নগর জাতীয় হৃদরোগ ইন্সটিটিউট ও হাসপাতাল (এনআইসিভিডি) পরিদর্শন শেষে হাসপাতালটির চিকিৎসক, নার্স ও কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় স্বাস্থ্যমন্ত্রী এসব কথা বলেন। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় হৃদরোগ ইন্সটিটিউট ও হাসপাতালের পরিচালক অধ্যাপক ডাঃ আফজালুর রহমান, অধ্যাপক ডাঃ মীর জামাল উদ্দিন, অধ্যাপক ডাঃ অমল কুমার চৌধুরী, অধ্যাপক ডাঃ কামরুল হাসান, সহযোগী অধ্যাপক ডাঃ কাজল কুমার কর্মকার, উপ-পরিচালক ডাঃ ওসমান গনি প্রমুখ।

জনগণের দোরগোড়ায় স্বাস্থ্য ও চিকিৎসাসেবা পৌঁছে দেয়ার ক্ষেত্রে সকলের সহযোগিতা কামনা করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেন, দেশের স্বাস্থ্য ও চিকিৎসাসেবা জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে বদ্ধপরিকর বর্তমান সরকার। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এই সেক্টরে প্রশংসনীয় উন্নয়ন সাধিত হয়েছে। সীমিত সম্পদ দিয়ে এই সেক্টরের উন্নয়ন দেখে অবাক হয়েছে বিশ্ববাসী। বাংলাদেশের স্বাস্থ্যসেবা আজ বিশ্বের অনেক দেশে রোল মডেল হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছে। আমাদের দেশে দরিদ্রের সংখ্যা অনেক। তাদের চিকিৎসার শেষ আশ্রয়স্থল এসব বিশেষ সরকারী হাসপাতাল। বর্তমানে দেশে সব ধরনের জটিল রোগের বিশেষায়িত হাসপাতাল রয়েছে। আর এই অবদান প্রধানমন্ত্রীর। তাই এই উন্নয়নের ধারা বজায় রাখতে তাকে আবার ক্ষমতায় আনতে হবে। বর্তমানে ভারত, পাকিস্তান থেকেও আমরা স্বাস্থ্য খাতে এগিয়ে আছি।

রাজনৈতিক বিষয়ে আওয়ামী লীগের সভাপতিম-লীর সদস্য মোহাম্মদ নাসিম বলেন, আমরা ক্ষমতায় আসার পর সবাই ভেবেছিল ক্ষমতায় আমরা থাকতে পারব না। কিন্তু শান্তিপূর্ণভাবে বর্তমান সরকার দশ বছর পার করতে চলেছে। এবারও অনেকে ভেবেছিল একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে দেশে অরাজকতা সৃষ্টি হতে পারে। কিন্তু তা করতে পারেনি। শান্তিপ্রিয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সব দলকে এক টেবিলে বসিয়েছেন এবং সবাই শান্তিপূর্ণভাবে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করছে। সব কিছু প্রত্যক্ষ করে চলেছে দেশের জনগণ। আসন্ন জাতীয় নির্বাচনে দেশের জনগণ তাদের মূল্যবান ভোট প্রয়োগের মাধ্যমে ষড়যন্ত্রকারীদের জনবিরোধী কর্মকা-ের জবাব দেবে বলে জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

হাসপাতালে পৌঁছেই স্বাস্থ্যমন্ত্রী হাসপাতালের নিচতলায় নতুন চালু হওয়া হেল্প ডেস্কের কার্যক্রম দেখেন। এনআইসিভিডির পরিচালক অধ্যাপক ডাঃ আফজালুর রহমানের দাবি, বাংলাদেশের সরকারী হাসপাতালের মধ্যে এ রকম হেল্প ডেস্ক এই প্রথম। এটা রোগীদের সঠিক তথ্য দিয়ে সহায়তা করে এবং যার মাধ্যমে দালালদের দৌরাত্ম্য হাসপাতাল থেকে মুছে ফেলা সম্ভব হবে বলে জানান হাসপাতালের পরিচালক। এরপর মন্ত্রী একে একে হাসপাতালের বিভিন্ন বিভাগসহ নির্মিতব্য আইসিইউ, অপারেশন থিয়েটার ঘুরে দেখেন। সেগুলোর নির্মাণকাজ প্রায় শেষ হওয়ার পথে।

পরিদর্শন শেষে হাসপাতাল পরিচালকের কনফারেন্স রুমে এক সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় ডাঃ আফজালুর রহমান মোহাম্মদ নাসিমকে হাসপাতালের কার্যক্রম, সফলতা ও ভবিষ্যত পরিকল্পনা বিস্তারিতভাবে তুলে ধরেন। তিনি জানান, দেশের সরকারী-বেসরকারী হাসপাতাল মিলিয়ে এই হাসপাতালটিকে সর্ব হাসপাতালে পরিণত করার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন।

নির্বাচিত সংবাদ