১৯ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বিজয়ের মাসে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষ বিজয় লাভ করবে ॥ নাসিম

বিজয়ের মাসে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষ বিজয় লাভ করবে ॥ নাসিম
  • ১১ ডিসেম্বর থেকে প্রচারে নামবে ১৪ দল

বিশেষ প্রতিনিধি ॥ আওয়ামী লীগের সভাপতিম-লীর সদস্য ও ১৪ দলের মুখপাত্র স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, কোন রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীদের ভোট কেন্দ্র পাহারা দেয়ার দরকার নেই। কেন্দ্র পাহারা দেবে দেশের জনগণ। আর আগামী ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচন হবে স্বাধীনতার পক্ষশক্তির বিজয়ের নির্বাচন। বিজয়ের মাসে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষশক্তির কখনও পরাজয় হতে পারে না। তাই আমরা আশা করি বিজয়ের মাসে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষ শক্তি বিজয় লাভ করবে। বৃহস্পতিবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউস্থ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে কেন্দ্রীয় ১৪ দলের বৈঠক শেষে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব বথা বলেন। আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ১৪ দলীয় জোট প্রার্থীদের বিজয়ী করতে নির্বাচনী প্রচারে মাঠে নামার কর্মসূচী ঠিক করতেই এই বৈঠকের আয়োজন করা হয়।

বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয় আগামী ১১ ডিসেম্বর থেকে সারাদেশে নির্বাচনী প্রচারে নামবে কেন্দ্রীয় ১৪ দল। কর্মসূচী অনুযায়ী ১১ ডিসেম্বর থেকে সিরাজগঞ্জ জেলা সফরের মধ্য দিয়ে এই নির্বাচনী প্রচার শুরু হবে। ১১ ও ১২ ডিসেম্বর সিরাজগঞ্জ, ১৩ ডিসেম্বর কুষ্টিয়া, ২২ ডিসেম্বর রাজশাহী, ২৩ ডিসেম্বর নওগাঁ এবং ২৪ ডিসেম্বর গাইবান্ধায় নির্বাচনী প্রচার ও সভা-সমাবেশ করবে ১৪ দল।

‘ভোট কেন্দ্র পাহারা দিতে হবে’- বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের এমন বক্তব্যের জবাবে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, বিএনপি নেতারা কেন যে অহেতুক হুমকি ধামকি দিচ্ছেন বুঝি না। ভোট কেন্দ্র কেন তাদের পাহারা দিতে হবে। এর কোন দরকার নেই। ভোট কেন্দ্র পাহারা দেবে এ দেশের জনগণ। তিনি বলেন, আগামী ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচন হবে স্বাধীনতার পক্ষশক্তির বিজয়ের নির্বাচন। স্বাধীনতার বিরুদ্ধের শক্তিকে বিজয়ের মাসে আবারও পরাজিত করার নির্বাচন।

‘নির্বাচনের সুষ্ঠু পরিবেশ ও লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরি হচ্ছে না’- জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ড. কামাল হোসেনের এমন বক্তব্যের জবাবে ১৪ দলের এই মুখপাত্র বলেন, অহেতুক অভিযোগ করা তাদের একটা অভ্যাসে পরিণত হয়েছে। ড. কামাল হোসেন যা বলেছেন মিথ্যা বলেছেন। সারাদেশের সবস্থানে নির্বাচনের পরিবেশ এখনও সুষ্ঠু রয়েছে। সব দলের প্রার্থীরাও যে যার মতো করে প্রচার চালাচ্ছেন।

এ সময় তরুণ প্রজন্মকে তাদের প্রথম ভোট স্বাধীনতার পক্ষের প্রার্থীদের দেয়ার আহ্বান জানিয়ে নৌপরিবহনমন্ত্রী ও সম্মিলিত মুক্তিযোদ্ধা সংসদের আহ্বায়ক শাজাহান খান বলেন, এবারের নির্বাচনে স্বধীনতার পক্ষশক্তির বিজয়ের কোন বিকল্প নেই। জনগণকে অনুরোধ করব, স্বাধীনতার বিরোধী শক্তির কোন প্রার্থীকে ভোট দেবেন না।

১৪ দলের নির্বাচনী প্রচারের কর্মসূচী তুলে ধরে সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়ুয়া বলেন, প্রয়োজনে এই কর্মসূচী বাড়তে পারে। এই নির্বাচনী প্রচারকালে ১৪ দল নেতারা এলাকায় এলাকায় গিয়ে সরকারের উন্নয়ন কার্মকা- জনগণের সামনে তুলে ধরবেন। পাশাপাশি ১৪ দল প্রার্থীদের ভোট দিতে জনগনের প্রতি আহ্বান জানাবেন তারা।

এর আগে মোহাম্মদ নাসিমের সভাপতিত্বে বৈঠকে শাজাহান খান, দিলীপ বড়ুয়া, এস কে সিকদার, রেজাউর রশিদ খান, শিরীন আখতার, ডাঃ শাহাদাৎ হোসেন, ইসমাইল হোসেন, আনিসুর রহমান মল্লিক, এজাজ আহমেদ মুক্তা প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।