১৪ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

দত্তক নেয়া শিশুকে নির্মম নির্যাতন, আটক ৩

স্টাফ রিপোর্টার, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ॥ শহরের পশ্চিম মেড্ডা এলাকায় দত্তক হিসেবে নেয়া লামিয়া (৯) নামে এক শিশু গৃহকর্মী নির্মম নির্যাতনের শিকার হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকেলে পুলিশ স্থানীয় লোকজনের মাধ্যমে খবর পেয়ে তাকে উদ্ধার করে নিয়ে আসে। প্রাথমিকভাবে তাকে জেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। সে জেলা শহরের গোকর্ণঘাট এলাকার মৃত কুদ্দস মিয়ার মেয়ে। এ ঘটনায় শুক্রবার ভোরে গৃহকর্ত্রীসহ তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ। আটকরা হলো- গৃহকর্ত্রী নেহার সুলতানা (৪৫) তার দুই মেয়ে রুমা আক্তার রুম্পা (২১) ও তাবাসসুম সুমাইয়া (১৫)। ঘটনার পর থেকে গৃহকর্তা রমজান পালিয়ে গেছে। সদর থানার পরিদর্শক (ওসি-তদন্ত) জিয়াউল হক জানান, শিশুটি মা-বাবা মারা যাওয়ার পরে দুবছর বয়সে তাকে লালন পালনের জন্য রমজান মিয়ার কাছে দত্তক দেয়া হয়। দত্তক দেয়ার কয়েক বছর পর থেকে রমজান তাকে তার বাড়িতে গৃহকর্মীর কাজ করাতে থাকে। এরপর শিশুটির উপর চলতে থাকে শারীরিক নির্যাতন। তিনি জানান, কারণে বা অকারণে গৃহকর্ত্রী নেহার সুলতানাসহ তার মেয়েরা তাকে বেধড়ক মারতো। তার সারা শরীরে অসংখ্য দাগ ও ক্ষত চিহ্ন রয়েছে। এমনকি তাকে মানসিকভাবে বিকারগ্রস্তও করা হয়েছে। সে এখন বাকশক্তি হারিয়ে ফেলেছে। সে কোন কিছু বলতে পারছে না। এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে ওই পরিবারে পাঁচ জনের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন মামলা দায়ের করেছে।