১৪ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

নির্বাচন নিয়ে দ্বিমুখী ভূমিকায় জনগণ বিএনপির প্রতি বিমুখ ॥ নাসিম

স্টাফ রিপোর্টার, সিরাজগঞ্জ ॥ উন্নয়ন ও জনগনের ভালবাসা নিয়ে বিজয়ের মাসে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে আবারো বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ সরকার গঠন করবে মন্তব্য করে আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য, ১৪ দলের মুখপাত্র ও স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন-বিএনপি জনবিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। নির্বাচন নিয়ে বিএনপির দ্বিমুখী (দ্বিচারিতা) ভূমিকার জন্য জনগণ তাদের কাছ থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে। এ দেশের জনগণ তাদের শাসনামল দেখেছে। এখন আর কেউ অন্ধকারের পথে যেতে চায় না। তিনি শুক্রবার যমুনা নদীর পূর্বপাড়ে কাজিপুরের নিশ্চিন্তপুরে চরাঞ্চলের মানুষের সঙ্গে সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ডের সুফল নিয়ে এক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ কথা বলেছেন।

দুপুরে স্বাস্থ্যমন্ত্রী সরকারের নিরাপত্তা প্রটোকল ছাড়াই স্থানীয় ও ব্যক্তিগত নিরাপত্তা নিয়ে কাজিপুরের বাসা থেকে বেরিয়ে আলমপুর হাই স্কুল সংলগ্ন মসজিদে জুমার নামাজ আদায় করেন এবং সমবেত মুসল্লিদের সঙ্গে কুশল বিনমিয় করেন। পরে তিনি স্পিডবোটে যমুনা নদী পার হয়ে নিশ্চিন্তপুর চরে পৌঁছান। এক সময়ের দুর্গম এই চর যাতায়াতের জন্য অনেক সুগম হয়েছে। পাঁকা স্থাপনা ও পাঁকা সড়কও নির্মিত হয়েছে। শুধু যমুনা নদী এই চরকে মূল ভূখন্ড থেকে আলাদা করে রেখেছে।

চরে পৌঁছে তিনি নিশ্চিন্তপুর হাই স্কুল মাঠে চরবাসী আয়োজিত মতবিনিময় সভায় যোগ দেন। সভায় সভাপতিত্ব করেন নিশ্চিন্তপুর ইউপি চেয়ারম্যান জালাল উদ্দিন মাস্টার। মতবিনিময় সভায় সরকারের উন্নয়ন কর্মকা- নিয়ে বক্তব্য দেন কাজিপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হক বকুল সরকার, উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি শওকত হোসেন, সাধারণ সম্পাদক খলিলুর রহমান প্রমুখ।

মতবিনিময়সভায় স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন-গত ১০ বছরে বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার দেশকে উন্নয়নের আলোয় আলোকিত করেছেন। দেশের মানুষ শান্তিতে আছে, স্বস্তিতে আছে। যমুনার এই দুর্গম চরে অভাবনীয় উন্নয়ন হয়েছে। পাঁকা সড়ক নির্মিত হয়েছে। ইঞ্জিনচালিত যানবাহনও এই চরে চলাচল করছে। অনেক পাঁকা স্থাপনাও নির্মিত হয়েছে। মোহাম্মদ নাসিম বলেন-এ দেশের মানুষ নির্বাচনের জন্য প্রস্তুত হয়ে আছে। বিভিন্ন দলও নির্বাচনে অংশগ্রহণের জন্য মনোনয়ন জমা দিয়েছেন। প্রতীক বরাদ্ধের পর সবাই মাঠে নামবে। তবে সকল দল ও জোটের নেতৃবৃন্দের কাছে তিনি নির্বাচনী পরিবেশ রক্ষার জন্য আহবান জানান।