১৮ জুন ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মুন্সীগঞ্জে কার-ট্রাক সংঘর্ষে নিহত ১

মুন্সীগঞ্জে কার-ট্রাক সংঘর্ষে নিহত ১

স্টাফ রিপোর্টার, মুন্সীগঞ্জ ॥ ঢাকা-মাওয়া-শিমুলিয়া মহাসড়কের মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলার কুমারভোগে প্রাইভেটকার ও রড বোঝাই ট্রাকের সংঘর্ষে প্রাইভেটকার চালক নিহত ও চার আরোহী গুরুতর আহত হয়। লৌহজং থানার ওসি মো: মনির হোসেন জানান, সোমবার ভোরে ঢাকাগামী প্রাইভেটকারের সাথে শিমুলীয়াঘাটগামী ট্রাকের সাথে এই সংঘর্ষে কারটি দুমড়ে মুচরে যায়। ঘটনাস্থলেই কারটির চালকের আসনে বসা ফুয়াদ (৪০) নিহত হয়। সে আমেরিকা প্রবাসী বর্তমানে ঢাকার উত্তরার বাসিন্দা। আহত সামিউল (৪৫) খাদিজা আক্তার (৩৮), মোঃ রাসেল (৪০) নাইমা আক্তারকে (৪২) প্রথমে শ্রীনগর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরে ঢাকা মেডিকেলে কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। চালকসহ তারা সকলেই বন্ধু। ঢাকা থেকে পদ্মা পাড়ে বেড়াতে এসেছিলেন। পুলিশ জানায় দুর্ঘটনা কবলিত কারটি থেকে একটি ফেন্সিডিল ও কিছু গাঁজা পাওয়া গেছে। পুলিশ ধারনা করছে দুর্ঘটনার সময় চালক স্বাভাবিক ছিলেন না তাই কারটি রং সাইডে ছিল।

শ্রীনগর ফায়ার সার্ভিস ইউনিট কর্মকর্তা মোঃ আরিফুজ্জামান জানান, তাৎক্ষনিক খবর পেয়ে শ্রীনগর ফায়ার সার্ভিসের অ্যাম্বুলেন্স আহতদের হাসপাতালে নিয়ে আসে। এদিকে দুর্ঘটনার কারণে মাওয়া পয়েন্টে প্রায় ১ ঘন্টা সিমিত আকারে চলাচল করে। এতে মহাসড়কের দুই পাশে দীর্ঘ ১কিঃমিঃ যানজট সৃষ্টি হয়। শ্রীনগর ফায়ার সার্ভিসের ইউনিট ও নিকটস্থ সেনাবহিনী ঘটনাস্থলে দুমড়ে মুচরে পড়ে থাকা প্রাইভেটকারটি মহাসড়ক থেকে সরিয়ে নিলে যানজট কেটে স্বাভাবিক হয়ে আসে।

পরিবারের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, নিহত ফুয়াদ আমেরিকা প্রবাসী। সেখানে তার স্ত্রী রয়েছেন। তবে বছর দুই ধরে তিনি দেশে এসে ব্যবসা বাণিজ্য করার চেষ্টা করছিলেন। বিকালে উত্তরার বাসা থেকে বের হওয়ার সময় বলে আসেন তিনি বন্ধুদের সাথে ঘুরতে বেরুচ্ছেন। পরে ভোরে খবর আসে এই দুর্ঘটনার।

মহাসড়কটির কুমারভোগ আশ্রয় কেন্দ্রে কাছে এই দুঘটনায় ঘাতক ট্রাকটি পুলিশ আটক করেছে, তবে চালক পালিয়েগেছে। ট্রাকে কোন কাগজপত্রও পাওয়া যায়নি। ট্রাকের গায়ে যে মোবাইল নাম্বারটি ব্যবহার করা হয়েছে সেটিও সঠিক নয় বলে পুলিশ মনে করছে।

নিহত ফুয়াদের লাশ ময়না তদন্তের জন্য মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।