২৪ মার্চ ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

পীরগঞ্জে গণসংযোগে হামলায় আহত ১

পীরগঞ্জে গণসংযোগে হামলায় আহত ১

নিজস্ব সংবাদদাতা, ঠাকুরগাঁও ॥ ঠাকুরগাঁও-৩ আসনের মহাজোটের প্রার্থীর গণসংযোগে বাঁধা ও হামলার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় প্রার্থীর একজন কর্মী আহত হয়েছেন। এ সময় ছবি তুলতে গেলে পুলিশ সাংবাদিককে বাঁধা দেয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সোমবার বিকেল পৌনে ৫ টায় ঠাকুরগাঁও-৩ আসনের মহাজোটের (নৌকা ) মার্কার প্রার্থী ওয়ার্কাস পার্টির জেলা সভাপতি অধ্যাপক ইয়াসিন আলী পীরগঞ্জ শহরের পুর্ব চৌরাস্তা থেকে গণসংযোগ করে পশ্চিম চৌরাস্তায় বিভিন্ন দোকানদার ও পথচারীদের সঙ্গে গণসংযোগ করছিলেন। ওই সময় ২০/২৫ জনের একদল যুবক তাদের লক্ষ্য করে সতন্ত্র প্রার্থীর মোটর গাড়ির পক্ষে শ্লোগান নিয়ে তাদের উপর চড়াও হওয়ার চেষ্টা চালায়। শুধু তাই নয়, ওই যুবকেরা গণসংযোগকালে এমপি ইয়াসিন আলীর উপর হামলা চালায়। তাকে রক্ষা করতে গিয়ে পীরগঞ্জ ওয়ার্কাস পর্টির সাধারণ সম্পাদক আবু জাহিদ ইবনে জুয়েল আহত হয়। তাকে স্থানীয় হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

ঘটনার পরপরই সেখানে পুলিশ উপস্থিত হয়ে এমপি ইয়াসিন আলীকে রক্ষা করেন এবং পুলিশ পাহারায় তাকে রানীশংকৈলে পৌছে দেয়। ঘটনার সময় পীরগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ও আরটিভির স্টাফ রিপোর্টার জয়নাল আবেদীন বাবুল ছবি তুলতে গেলে পীরগঞ্জ থানার ওসি তাকে ছবি তুলতে বাঁধা দেয় এবং অশালীন আচরন করেন।

এ ব্যাপারে মহাজোটের নৌকার প্রার্থী ইয়াসিন আলী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ২০/২৫ জনের একদল যুবক স্বতন্ত্র প্রার্থী ইমদাদুল হকের সমর্থকরা আমার গণসংযোগে বাঁধা দিলে হামলায় আমার একজন কর্মী আহত হয়। আমি তাৎক্ষনিকভাবে জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারকে অবগত করেছি।

অপরদিকে স্বতন্ত্র প্রার্থী ইমদাদুল হক বলেন, আমি আমার নেতাবর্মীদের নিয়ে রাণীশংকৈলে নির্বাচনী সভায় রয়েছি। যতটুকু মনে হচ্ছে হামলার ঘটনাটি একটি পাতানো খেলা। আমার কর্মীদের হয়রানীর উদ্দেশ্যে ইয়াসিন আলী বানোয়াট অভিযোগ তুলেছেন।

পীরগঞ্জ থানার ওসি বজলুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, হামলায় একজন আহত হলেও গুরুতর নয়। সাংবাদিককে ছবি তুলতে বাঁদা দেওয়ার ব্যাপারে তিনি বলেন, আমি ওই সাংবাদিককে চিনি না। হয়ত না চেনার কারণে এমনটা হয়েছে। সেজন্য আমি অনুতপ্ত।

উল্লেখ্য, ঠাকুরগাঁও-৩ আসনে ওয়ার্কাস পর্টির জেলা সভাপতি নৌকার টিকেট পেলেও জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক এমপি ইমদাদুল হককে নৌকার প্রতীক বরাদ্দ দেওয়ার দাবিতে পীরগঞ্জ ও রাণীশংকৈল উপজেলা আওয়াশীলীগ ও সহযোগী সংগঠনগুলো দীর্ঘদিন যাবত মানববন্ধন বিক্ষোভ করে আসছিলেন। শেষ পর্যন্ত ওয়ার্কাস পার্টির নেতা নৌকার প্রতীক পেলে আওয়ামীলীগ এখানে ইমদাদুল হককে স্বতন্ত্র প্রার্থী দেয়। বর্তমানে মোটরগাড়ি নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।