২৩ জানুয়ারী ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ফের টানা পতনের বৃত্তে শেয়ারবাজার

ফের টানা পতনের বৃত্তে শেয়ারবাজার

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ টানা দরপতনের বৃত্তে আটকে গেছে শেয়ারবাজার। মঙ্গলবার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) এবং চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সবকটি মূল্য সূচকের পতন হয়েছে। এ নিয়ে টানা চার কার্যদিবস শেয়ারবাজারে দরপতন হলো।

চার কার্যদিবসে টানা দরপতনে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের প্রধান মূল্য সূচক ডিএসইএক্স কমেছে ৮৬ পয়েন্ট। টানা দরপতনের সঙ্গে মঙ্গলবার ডিএসইতে কমেছে লেনদেনের পরিমাণ। লেনদেনে অংশ নেয়া বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দামও কমেছে। বাজারে লেনদেনে অংশ নেয়া ১০০টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম আগের দিনের তুলনায় বেড়েছে। বিপরীতে কমেছে ২০২টির। আর ৩৯টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে।

বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম কমায় ডিএসইর প্রধান মূল্য সূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের তুলনায় ১৯ পয়েন্ট কমে পাঁচ হাজার ২৭৫ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। অপর দুটি মূল্য সূচকের মধ্যে ডিএসই শরিয়াহ্ সূচক আগের দিনের তুলনায় ছয় পয়েন্ট কমে এক হাজার ২১৩ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। আর ডিএসই-৩০ আগের দিনের তুলনায় দশমিক ৯৭ পয়েন্ট কমে এক হাজার ৮৪৮ পয়েন্টে অবস্থান করছে।

দিনভর ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৪৮৩ কোটি ৪৬ লাখ টাকা। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয় ৫৬৭ কোটি ৬৭ লাখ টাকা। সে হিসাবে লেনদেন কমেছে ৮৪ কোটি ২১ লাখ টাকা। টাকার অঙ্কে এ দিন ডিএসইতে সব থেকে বেশি লেনদেন হয়েছে ভিএফএস থ্রেড ডাইংয়ের শেয়ারের। কোম্পানিটির ২৩ কোটি ৪০ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। লেনদেনে দ্বিতীয় স্থানে থাকা এসকে ট্রিমসের ১৮ কোটি ৬৯ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। ১৩ কোটি ৪৪ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনে তৃতীয় স্থানে রয়েছে জেএমআই সিরিঞ্জ। লেনদেনে এরপর রয়েছে - খুলনা পাওয়ার, রূপালী লাইফ, সোনালী আঁশ, ওয়াটা কেমিক্যাল, ন্যাশনাল টি, ন্যাশনাল টিউবস এবং ইবনে সিনা।

অপরদিকে শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের সার্বিক মূল্য সূচক সিএসসিএক্স ২৪ পয়েন্ট কমে ৯ হাজার ৭৮১ পয়েন্টে অবস্থান করছে। বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ১৯ কোটি ৭৫ লাখ টাকা। লেনদেন হওয়া ২৪২টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ৭০টির দাম বেড়েছে। বিপরীতে কমেছে ১৪২টির। আর দাম অপরিবর্তিত রয়েছে ৩০টির।