১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগের অবিস্মরণীয় বিজয় হবে : নাসিম

শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগের অবিস্মরণীয় বিজয়  হবে : নাসিম

স্টাফ রিপোর্টার, সিরাজগঞ্জ ॥ বিজয়ের মাস ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনকে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ নির্বাচন মন্তব্য করে আওয়ামীলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য, ১৪ দলের মুখপাত্র ও স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন এ নির্বাচনে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামীলীগের আরো একটি অবিস্মরণীয় বিজয় অর্জন হবে।

এ নির্বাচনে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তিকে বিজয়ী করতে হবে। উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সিরাজগঞ্জ জেলার ৬টি আসনে বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থীকে বিজয়ী করার জন্যও তিনি দলীয় নেতাকর্মী ও সাধারণ ভোটারদের প্রতি আহবান জানিয়েছেন।

তিনি মঙ্গলবার বিকেলে তাড়াশ উপজেলা আওয়ামীলীগ আয়োজিত এক বিশাল নির্বাচনী জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতা দেন। পরে তিনি তাড়াশের নিমগাছি ও রায়গঞ্জ উপজেলার ধানগড়া বাজারে পৃথক আরো দুইটি নির্বাচনী জনসভায় বক্তৃতা দেন। এ জনসভার মধ্য দিয়ে মোহাম্মদ নাসিমের নেতৃত্বে কেন্দ্রীয় ১৪ দলের আনুষ্ঠানিক নির্বাচনী প্রচারণা শুরু হলো।

এর আগে দিনের শুরুতে নাসিম তাঁর নির্বাচনী এলাকা বহুলীতে আয়শা রশিদ বিদ্যানিকেতনে ছাত্র অভিভাবক সমাবেশে বক্তব্য দেন। উল্লেখ্য মোহাম্মদ নাসিম ব্যক্তিগত নিরাপত্তা ও পতাকাবিহীন গাড়ি নিয়ে নির্বাচনী প্রচারণায় মাঠে নেমেছেন।

তাড়াশ কেন্দ্রীয় ঈদগাহ মাঠে আয়োজিত এ জনসভায় সভাপতিত্ব করেন তাড়াশ উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল হক। জনসভায় কেন্দ্রীয় ১৪ দলের নেতা সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক সাবেক শিল্পমন্ত্রী দীলিপ বড়ুয়া, জাপা (মঞ্জু) প্রেসিডিয়াম সদস্য এজাজ আহমেদ মুক্তা, গাজী আমজাদ হোসেন মিলন এমপি,জেলা আওয়ামীলীগের সহভাপতি আবু ইউসুফ সূর্য্য এবং সংসদ সদস্য পদপ্রার্থী অধ্যাপক ডাঃ আব্দুল আজিজ। এছাড়াও স্থানীয় নেতৃবৃন্দ বক্তব্য দেন। জনসভা সঞ্চালনা করেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সঞ্জিত কর্মকার।

জনসভায় নির্বাচনকে কেন্দ্র চক্রান্ত শুরু হয়েছে উল্লেখ করে ১৪ দলের মুখপাত্র নাসিম বলেন- দেশে বিদেশে ষড়যন্ত্র । ড. কামালকে বেঈমান আখ্যা দিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, জনগণের সাথে ঐক্য না করে ড. কামাল গংরা বঙ্গবন্ধুর খুনিদের সাথে ঐক্য করেছেন, চক্রান্ত করছেন। তবে এদেশের জনগণ তাদের চক্রান্ত ভোটের মাধ্যমে প্রতিহত করবেন। পৃথিবীর কোনো শক্তি নেই নির্বাচন ঠেকাতে পারে। জ্বালাও-পোড়াও ও আন্দোলনে ব্যর্থ দলকে আর কোনোদিন জনগণ ভোট দেবে না। নির্বাচন সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ হবে।

তিনি এও বলেন, ঐক্য প্রক্রিয়ার নেতা ড. কামাল হোসেন একজন নীতিহীন মানুষ। নীতি-আদর্শের কথা বলে উনি এখন বিএনপির এজেন্ডা বাস্তবায়ন করছেন। অপছন্দের জামাত এখন তার গলার মালা। জনগণ এরকম আদর্শহীন ও স্বাধীনতাবিরোধীদের ঘৃনাভরে প্রত্যাখ্যান করবে। বিএনপিকে উদ্দেশে করে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, ‘আপনারা গত নির্বাচনে আসেন নাই। ভুল করেছিলেন।

এবার দলের অস্তিত্ব রক্ষা করার জন্য নির্বাচনে অংশ নিয়েছেন। সুখের কথা, কিন্তু নির্বাচন নিয়ে কোন ফাউল গেম খেলবেন না। ফাউল গেম খেললে এ দেশের জনগণ লাল কার্ড দেখিয়ে নির্বাচনী মাঠ থেকে বের করে দেবে। নির্বাচন সুষ্ঠু ও অবাধ হবে বলে আশ্বস্ত করে আওয়ামী লীগের সিনিয়র এই নেতা বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তো বলেছেন, ইলেকশন ফেয়ার হবে, ভয়ের কোন কারণ নেই।

তিনি সিরাজগঞ্জসহ গোটা দেশের আার্থ-সামাজিক উন্নয়নের চিত্র তুলে ধরে বিশাল এ নির্বাচনী জনসভায় আরো বলেছেন-আওয়ামীলীগ ক্ষমতায় থাকলে দেশের উন্নয়ন হয়। মানুষ শান্তিতে থাকে।