২৪ মার্চ ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

এলাকাকে নতুন বউয়ের মতো সাজাবো: শামীম ওসমান

এলাকাকে নতুন বউয়ের মতো সাজাবো: শামীম ওসমান

অনলাইন রিপোর্টার ॥ জঙ্গী মতবাদের প্রার্থী মনোনয়ন দিয়ে বিএনপি এখন জঙ্গী সংগঠন হিসেবে রূপ নিচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য ও প্রভাবশালী আওয়ামীলীগ নেতা শামীম ওসমান। মঙ্গলবার (১১ ডিসেম্বর) দুপুরে নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লা থানার বক্তাবলী ইউনিয়নে তার নির্বাচনী এলাকায় গণসংযোগের সময় এ মন্তব্য করেন।

বিএনপির উদ্দেশ্যে শামীম ওসমান বলেন, নির্বাচন করা তাদের উদ্দেশ্য নয়। তাদের যদি নির্বাচন করার ইচ্ছা থাকতো তাহলে আমার এলাকায় এতো নেতা থাকতে একজন জঙ্গি মতবাদের প্রার্থীকে মনোনয়ন দিতেন না। শামীম ওসমান বলেন, তাদের যে উদ্দেশ্যই থাকুক না কেন জনগণ তাদেরকে রুখে দাঁড়াবে।

লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড নিয়ে ঐক্যফ্রন্ট ও বিএনপি নেতাদের অভিযোগের ব্যাপারে শামীম ওসমান বলেন, ড. কামাল গংদের প্রতি এখন মানুষের আর কোন আস্থা নেই। বিশেষ করে ২১ আগস্ট তারেক জিয়া গ্রেনেড হামলার মাধ্যমে শেখ হাসিতাকে যেভাবে হত্যার চেষ্টা করেছিল তাতে মানুষ তাদের ঘৃণা করছে। আর এ কারনে নির্বাচনে বিএনপি কোন ফ্যাক্টর হবে না বলে আমি মনে করি।

তিনি বলেন, মানুষ এখন উন্নয়নে বিশ্বাস করে। আওয়ামীলীগ সরকার ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তা প্রমান করে দিয়েছেন। বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও রুহুল কবির রিজভীর সমালোচনা করে শামীম ওসমান বলেন, তাদের নিজেদের মধ্যে কোন সমন্বয় নেই। তারা একেকজন একেক ধরনের কথা বলছেন।

তিনি আশংকা প্রকাশ করে বলেন, মনে হচ্ছে নির্বাচনের আগ মূহুর্তে তারা এমন কোন ঘটনা ঘটিয়ে নির্বাচনকে বানচাল করার চেষ্টা করবে।

সংসদ সদস্য শামীম ওসমান মঙ্গলবার দুপুর বারোটা থেকে বিকেল পর্যন্ত বক্তাবলী ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় গণসংযোগ করেন এবং সাধারণ মানুষের কাছে দোয়া চান। বেশ কয়েকটি উঠান বৈঠকেও তিনি অংশ নেন।

এসময় তিনি বর্তমান সরকারের বিভিন্ন উন্নয়নের কথা তুলে ধরে এলাকাবাসীর উদ্দেশ্যে বলেন, আমি আপনাদের কাছে ভোট চাইতে আসি নাই। কারন আমি সাড়ে সাত হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন করেছি। আমাকে ভোট চাইতে হবে কেন?

শামীম ওসমান বলেন, গত বিশ বছরে এই আসনে পূর্বের জনপ্রতিনিধিরা যে উন্নয়ন করেছেন, আমার পঞ্চাশ ভাগের এক ভাগও তারা করতে পারেন নি। সাত হাজার চারশ’ কোটি টাকার উন্নয়ন করেছি। ফতুল্লা দূর্গম চরাঞ্চল এই বক্তাবলীকে আমি শহরে রূপান্তরিত করেছি। ফেরি দিয়েছি, রাস্তাঘাট করেছি। স্কুল কলেজ করেছি। ভবিষ্যতে এই এলাকাকে আমি নতুন বউয়ের মতো সাজাবো।

তিনি আগামী নির্বাচনে সৎ ও যোগ্য জনপ্রতিনিধিকে নির্বাচিত করার জন্য এলাকাবাসীর প্রতি আহবান জানিয়ে বলেন, জনপ্রতিনিধি ভালো হলে সমাজের উন্নতি হবে। আর জনপ্রতিনিধি খারাপ হলে সমাজ খারাপ হবে। এখন কাকে নির্বাচিত করবেন সেটা আপনাদের ব্যাপার।

শামীম ওসমানের এই গণসংযোগকালে ফতুল্লা থানা আওয়ামীলীগ সভাপতি এম সাইফুল্লাহ বাদল, সাধারণ সম্পাদক এম শওকত আলী, বক্তাবলী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি আফাজ উদ্দিন ভূঁইয়া, সাধারণ সম্পাদক কামরুল ইসলামসহ স্থানীয় আওয়ামীলীগ ও অঙ্গ-সংগঠনের নের্তৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে আগামী ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতয়ি সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে নারায়ণগঞ্জ শহর ও ফতুল্লার বিভিন্ন এলাকার আনাচে কানাচে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী শামীম ওসমানের পক্ষে তোরণ নির্মান, সাদা কালো পোস্টার, ব্যানার ও পেস্টুনে ছেয়ে ফেলা হয়েছে।