২১ মার্চ ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

নতুন বছরে সেরেনার আশা

 নতুন বছরে সেরেনার আশা

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ দুই বছর আগে অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের সপ্তম শিরোপা জয়ের স্বাদ পেয়েছিলেন সেরেনা উইলিয়ামস। ২০১৭ সালে ৮ সপ্তাহের অন্তঃসত্ত্বা হওয়া সত্ত্বেও বড় বোন ভেনাস উইলিয়ামসকে পরাজিত করে মেলবোর্নে শিরোপা উঁচিয়ে ধরে ছিলেন আমেরিকান টেনিসের এই জীবন্ত কিংবদন্তি। এরপরই প্রথম কন্যা সন্তানের মা হন তিনি। মা হওয়ার কারণে দীর্ঘ বিরতি কাটিয়ে চলতি বছর আবারও কোর্টে ফিরেন ৩৭ বছরের এই টেনিস তারকা। খেলেছেন দুটি মেজর টুর্নামেন্টের ফাইনালও। কিন্তু এবার অস্ট্রেলিয়ান ওপেনেও ফেরার ঘোষণা দিলেন ২৩ গ্র্যান্ডস্লামের মালিক।

অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের আয়োজক ক্রেইগ টাইলে নিশ্চিত করেছেন বিষয়টি। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘সেরেনা উইলিয়ামসের বর্তমান র‌্যাঙ্কিং ১৬। আট সপ্তাহের অন্তঃসত্ত্বা থাকা অবস্থায় ২০১৭ সালে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর প্রথমবারের মতো মেলবোর্নে ফিরতে দারুণ আশাবাদী।’ শুধু সেরেনা উইলিয়ামস কেন? মৌসুমের প্রথম গ্র্যান্ডস্লাম টুর্নামেন্টে বিশ্ব টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষ ১০২ নারী খেলোয়াড় এবং ১০১ পুরুষ খেলোয়াড়ের প্রত্যেকেই অংশগ্রহণ নিশ্চিত করেছেন। যাদের মধ্যে রয়েছেন বিশ্ব পুরুষ টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের সাবেক এক নম্বর খেলোয়াড় রাফায়েল নাদাল এবং এ্যান্ডি মারেও।

এ বছর চায়না ওপেনে খেলার কথা ছিল সেরেনা উইলিয়ামসের। কিন্তু বেজিংয়ের এই টুর্নামেন্টে খেলেননি ২৩ গ্র্যান্ডস্লামের মালিক। শুধু চায়না ওপেন নয়, এরপর ২০১৮ মৌসুমে আর কোন টুর্নামেন্টেই অংশগ্রহণ করেননি আমেরিকান টেনিসের এই জীবন্ত কিংবদন্তি। গত বছরের সেপ্টেম্বরে প্রথম কন্যা সন্তানের জন্ম দেন সেরেনা। এরপর দীর্ঘ সময় কোর্টের বাইরে ছিটকে পড়েন তিনি। ১৪ মাস টেনিস থেকে নির্বাসনে থাকার পর এ বছরে নতুন মিশন শুরু করেন সেরেনা। বয়সে সাঁইত্রিশকেও ছাড়িয়ে যাওয়া সেরেনা উইলিয়ামস তার দ্বিতীয় অধ্যায়েও দুর্দান্ত পারফর্মেন্স উপহার দেন। বয়সের বাধা অতিক্রম করে উইম্বলডন এবং ইউএস ওপেনে টানা দুটি টুর্নামেন্টের ফাইনালের টিকেট নিশ্চিত করেন তিনি। কিন্তু দুর্ভাগ্য তার। মেজর দুই টুর্নামেন্টেই হেরে যান সেরেনা। মৌসুমের তৃতীয় গ্র্যান্ডস্লাম টুর্নামেন্ট উইম্বলডনে জার্মানির এ্যাঞ্জেলিক কারবারের কাছে হার মানেন উইলিয়ামস পরিবারের এই ছোট মেয়ে। অন্যদিকে জাপানের নাওমি ওসাকার কাছে হেরে ইউএস ওপেনের ফাইনাল জয়ের স্বপ্নভঙ্গ হয় সেরেনার।

তবে ইউএস ওপেনের ফাইনালে হেরে গেলেও চরম বিতর্কের জন্ম দেন সেরেনা। টুর্নামেন্টের চেয়ার আম্পায়ার কার্লোস রামোসের সঙ্গে হাত না মিলিয়ে বরং তাকে ‘চোর’ বলে সম্বোধন করেন তিনি। এ নিয়ে কম জল ঘোলা হয়নি। সেরেনা উইলিয়ামসের এমন কা- ব্যাপকভাবে সমালোচিত হয় বিশ্ব গণমাধ্যমে। শুধু তাই নয়, প্রথমবার কোন গ্র্যান্ডস্লাম জিতে বাজিমাত করা জাপানের নাওমি ওসাকাও সেরেনার এমন বিতর্কের কাছে ছায়া হয়ে পড়েন। ইউএস ওপেনের পর আবারও কোর্টে ফিরতে যাচ্ছেন সেরেনা। মৌসুমের প্রথম গ্র্যান্ডস্লাম টুর্নামেন্টে খেলার ঘোষণা দেয়ার ফলে আমেরিকান টেনিস তারকার সামনে আরেকটি মাইলফলক স্পর্শের হাতছানি। আর মাত্র একটি মাত্র গ্র্যান্ডস্লাম জিতলেই কিংবদন্তি মার্গারেট কোর্টকে ছুঁয়ে ফেলবেন তিনি। যিনি ২৪ গ্র্যান্ডস্লাম জিতে সর্বোচ্চ মেজর টুর্নামেন্ট জয়ের তালিকায় এককভাবে শীর্ষে অবস্থান করছেন।

মহিলা এককে অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ক্যারোলিন ওজনিয়াকি। রোমানিয়ার সিমোনা হ্যালেপকে হারিয়ে ক্যারিয়ারের প্রথম মেজর টুর্নামেন্ট জয়ের স্বাদ পেয়েছিলেন তিনি। ড্যানিশ টেনিস তারকাও মেলবোর্নের মিশন শুরু করবেন শিরোপা ধরে রাখার লক্ষ্য নিয়ে। পুরুষ এককে এই টুর্নামেন্টের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন রজার ফেদেরার।