১৮ জুলাই ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বিশ্ব সর্বজনীন স্বাস্থ্য সুরক্ষা দিবস আজ

স্টাফ রিপোর্টার ॥ সর্বজনীন স্বাস্থ্য সুরক্ষা অর্জনের ক্ষেত্রে বাংলাদেশকে আরও অনেক পথ পাড়ি দিতে হবে বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। তারা বলেন, সর্বজনীন স্বাস্থ্য সুরক্ষা বাস্তবায়ন করতে বাংলাদেশকে অনেক চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে হবে। দেশের ক্ষুদ্র আয়তন ও সীমিত সম্পদের বিপরীতে রয়েছে জনসংখ্যার বিস্ফোরণ। এই কাঠামোর বিভিন্ন উপাদানগুলোর মধ্যে নেই কোন সমন্বয়। ধনী ও দরিদ্রের মধ্যে রয়েছে আকাশচুম্বী বৈষম্য। সরকারী প্রতিষ্ঠানগুলোর বিনামূল্যের নামে বিদ্যমান সেবার মান প্রশ্নবিদ্ধ। আর বেসরকারী প্রতিষ্ঠানগুলোর উচ্চমূল্যের স্বাস্থ্য ও চিকিৎসাসেবা সাধারণ মানুষের নাগালের বাইরে। স্বাস্থ্যবীমা শুরু হলেও তা দেশের মাত্র একটি জেলার তিনটি থানায় পাইলট প্রকল্প হিসেবে চালু রয়েছে। এমন অবস্থার মধ্য দিয়ে আজ বুধবার পালিত হচ্ছে বিশ্ব সর্বজনীন স্বাস্থ্য সুরক্ষা দিবস।

সর্বজনীন স্বাস্থ্য সুরক্ষার মূল কথা হচ্ছে, সব মানুষ প্রয়োজনের সময় মানসম্পন্ন চিকিৎসাসেবা পাবে। চিকিৎসাসেবা কিনতে গিয়ে কেউ দরিদ্র হয়ে পড়বে না। উদ্দেশ্য অর্জনে কৌশল হিসেবে বলা হয়েছে, স্বাস্থ্য খাতে বিনিয়োগ বৃদ্ধির পাশাপাশি অপচয় ও দুর্নীতি কমাতে হবে, স্বাস্থ্যবীমা মানুষকে সেবা প্রাপ্তির নিশ্চয়তা দেবে।

স্বাস্থ্যবীমার কার্যক্রম কম ॥ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে রোগীর সুরক্ষায় স্বাস্থ্য বীমা চালু থাকলেও বাংলাদেশে এখনও এ সেবা সফলভাবে চালু করা সম্ভব হয়নি। স্বাস্থ্যবীমা শুরু হলেও তা দেশের মাত্র একটি জেলার তিনটি থানায় পাইলট প্রকল্প হিসেবে চালু রয়েছে। সর্বজনীন স্বাস্থ্য সুরক্ষা কার্যক্রম সম্প্রসারণে দেশের মানুষকে স্বাস্থ্য বীমায় আগ্রহী করতে নানা উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে।

নির্বাচিত সংবাদ