২৩ জানুয়ারী ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

আমার পার্সোনাল গাড়ি নেই -নাদিয়া

  • খোকন ভূঁইয়া

সালহা খানম নাদিয়া। বর্তমান সময়ের ছোট পর্দার আলোচিত অভিনেত্রী। দীর্ঘদিন অভিনয়ের সঙ্গে যুক্ত থাকলেও আগে কখনও নাম ভূমিকায় অভিনয় করতে দেখা যায়নি। ‘গল্প হোক তোমার জন্য’ নাটকে এই প্রথমবার নাম ভূমিকায় দেখা যাবে তাকে। এ প্রসঙ্গে নাদিয়া বলেন, দীর্ঘদিন যাবত কাজ করছি। তবে আগে কখনো নাম ভূমিকায় অভিনয় করা হয়নি। এই প্রথমবার নাম ভূমিকায় অভিনয় করলাম। ভাবতেই খুব ভাল লাগছে। প্রতিদিনই লাইট ক্যামেরা এ্যাকশনের মধ্য দিয়ে দিন অতিবাহিত করতে হচ্ছে। তবুও দিন শেষে পরিবারের সঙ্গে রাতযাপন করতে পেরে তৃপ্ত আমি। আমার বাসা ওয়ারী। উত্তরা থেকে অনেক দূরে। ২০০৪ থেকে ২০১৮ টানা শূটিং করছি ওয়ারী থেকে এসেই। প্রতিদিন যাতায়াতে আমার ৪-৫ ঘন্টা গাড়িতে চলে যায়। সবাই বলে উত্তরা বাসা নিতে। কিন্তু আমি পরিবার ছাড়া এক মুহূর্ত থাকতে পারব না। আই লাভ মাই ফ্যামিলি। আমার পার্সনাল গাড়ি নেই। তবে শীঘ্রই নিজেকে নিজে একটি গাড়ি উপহার দেব [হা. হা. হা.]।

ছোট পর্দায় সাফল্য পাবার পর সবারই বড় পর্দায় অভিনয়ের ইচ্ছে জাগে। নাদিয়াও কাজ করতে চান আলো ঝলমলে রুপালি পর্দায়। তবে ভাল গল্প চরিত্র পেলে তাকেও বড় পর্দায় দেখা যাবে বলে তিনি জানান। নাদিয়া বলেন, অনেক আগে থেকেই সিনেমায় কাজ করার প্রস্তাব আসছে। তবে ভাল গল্প চরিত্র পাইনি বলে দেখা যায়নি। কিন্তু নতুন বছরের জানুয়ারিতে রুপালি পর্দায় দেখার সম্ভাবনা রয়েছে। বাংলাদেশ ও কলকাতায় সিনেমার কাজের ব্যাপারে কথা চলছে। ব্যাটে বলে মিলে গেলে ২০১৯ সালে বড় পর্দায় দেখতে পাবে আমার ভক্তরা। বর্তমানে খ--ধারাবাহিক নিয়েই নাদিয়ার ব্যস্ততা। পাশাপাশি ভালবাসা দিবসের জন্য নির্মিত একটি টিভিসি করেছেন। নাম প্রকাশে নিষেধাজ্ঞা থাকায় যোগ করে নাদিয়া জানান ভালবাসা দিবসে কাপলদের জন্য একটি অফার আসবে যারা বিজয়ী হবেন তারা আমাদের সঙ্গে সেন্টমার্টিন দুই দিন থাকার সুযোগ পাবে। বিভিন্ন চ্যানেলে নাদিয়া অভিনীত কয়েকটি ধারাবাহিক প্রচারিত হচ্ছে এবং প্রচারের অপেক্ষায় আছে আজকের দেবদাস ও গুপ্ত প্রেমসহ বেশকিছু নাটক।

‘গুপ্ত প্রেম’ নাটকের গল্প প্রসঙ্গে নাদিয়া বলেন, মধ্যবিত্ত পরিবারের একটি গল্প দেখা যাবে। এ নাটকে রিমি তেমনিই একটি পরিবারের মেয়ে। মা ছাড়া আপন বলতে তেমন আর কেউ নেই তার। বাবার রেখে যাওয়া বাড়ি তাদের একমাত্র সম্বল। রিমি ইউনিভার্সিটির ছাত্রী। পরিবারের প্রয়োজনে তাকে পড়াশোনার পাশাপাশি কিছু করতে হয়। রিমি যে এলাকাতে থাকে সেই এলাকাতেই থাকে রেজা। রেজা রিমিকে অনেক ভালবাসে, সে কথা কোন দিন সাহস করে রিমিকে বলতে পারেনি। কিন্তু নানাভাবে চেষ্টা করে রিমিকে তার মনের কথা বলতে। রিমি সব বুঝেও না বোঝার ভান করে থাকে। এদিকে রিমি অদ্ভুত এক সমস্যায় পড়ে। সে খেয়াল করে প্রতিদিন কে যেন তার দরজার সামনে একটি করে চিরকুট রেখে যায়। সেখানে লেখা থাকে প্রেমের কথা। একেক দিন একেক ছন্দে। তাহলে চিরকুটগুলো কার? জানতে হলে দেখতে হবে নাটক ‘গুপ্ত প্রেম’।

লেটনাইট শূটিং নিষিদ্ধ থাকা সত্ত্বেও নিয়ম মানা হচ্ছে না? নিয়ম মানা হয় না ঠিক তা নয়। মানা হয় তবে ১০০ কাজের মধ্যে ৪-৫টি লেটনাইট হয়ে থাকে। তবে বিভিন্ন কারণে অনেক সময় লেটনাইট করতে হয়। তবে কাজের স্বার্থে নাটকটি ভাল করার জন্য লেডনাইট হয়ে থাকে। নতুন বছরের প্রত্যাশা নিয়ে নাদিয়া জানান, নতুন বছরে আরও ভাল ভাল কাজ উপহার দিতে চাই। নিজেকে নানান চরিত্রে আবিষ্কার করতে চাই