১৩ ডিসেম্বর ২০১৮

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন ২৭ ডিসেম্বর থেকে কার্যকর

বিশেষ প্রতিনিধি ॥ মৃত্যুদন্ডের বিধান রেখে নতুন প্রণীত ‘মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন-২০১৮’ আগামী ২৭ ডিসেম্বর থেকে কার্যকর হবে। আইনটি কার্যকরের তারিখ ঘোষণা করে গত ১০ ডিসেম্বর স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা সেবা বিভাগের সচিব ফরিদ উদ্দিন আহম্মদ চৌধুরী স্বাক্ষরিত একটি প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।

এর আগে গত ৮ অক্টোবর ‘মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন-২০১৮’ এর খসড়া অনুমোদন দেয় মন্ত্রিসভা। আইনটি জাতীয় সংসদে পাস হয় ২৭ অক্টোবর। আইনের গেজেট জারি হয় ১৪ নবেম্বর। ১৯৯০ সালের আইনটি পুনর্বিন্যাস ও যুগোপযোগী করে নতুন আইনটি করা হয়েছে বলে জানিয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

নতুন আইনে আলোচিত ইয়াবা ‘ক’ শ্রেণীর মাদকদ্রব্য। এর রাসায়নিক নাম এ্যামফিটামিন। নতুন আইন অনুযায়ী এ মাদকদ্রব্য চাষবাদ, উৎপাদন, প্রক্রিয়াকরণ, বহন, পরিবহন, স্থানান্তর ও আমদানি-রফতানির পরিমাণ সর্বোচ্চ ১০০ গ্রাম হলে এক থেকে পাঁচ বছরের কারাদন্ড ও অর্থদন্ড। মাদকদ্রব্যের পরিমাণ ১০০ গ্রামের বেশি থেকে ২০০ গ্রাম পর্যন্ত হলে পাঁচ থেকে ১০ বছরের কারাদন্ড এবং অর্থদন্ড এবং মাদকদ্রব্যের পরিমাণ ২০০ গ্রামের বেশি হলে মৃত্যুদন্ড বা যাবজ্জীবন কারাদন্ড ও অর্থদন্ড হবে।

তবে সরবরাহ, বিপণন, ক্রয়-বিক্রয়, হস্তান্তর, অর্পণ, গ্রহণ, প্রেরণ, লেনদেন, নিলামকরণ, ধারণ, অধিকার অথবা গুদামজাতকরণ ও প্রদর্শনের ক্ষেত্রে ওই মাদকের পরিমাণ সর্বোচ্চ ২০০ গ্রাম হলে এক থেকে পাঁচ বছরের কারাদন্ড ও অর্থদন্ড। মাদকদ্রব্যে পরিমাণ ২০০ গ্রামের বেশি থেকে ৪০০ গ্রাম পর্যন্ত হলে পাঁচ থেকে ১০ বছরের কারাদন্ড এবং অর্থদন্ড। মাদকদ্রব্যের পরিমাণ ৪০০ গ্রামের বেশি হলে মৃত্যুদন্ড বা যাবজ্জীবন কারাদন্ড ও অর্থদন্ড হবে বলে আইনে উল্লেখ করা হয়েছে।