২১ মার্চ ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

তবু সাফল্য পেতে আশাবাদী সিআর সেভেন

  তবু সাফল্য পেতে আশাবাদী  সিআর সেভেন

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ হার দিয়ে গ্রুপপর্বের মিশন শেষ করলেও চ্যাম্পিয়ন্স লীগের নকআউট রাউন্ডে ভাল করার বিষয়ে আশাবাদী ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো। আর রিয়াল মাদ্রিদের লজ্জার হারের দায় নিজের কাঁধে নিচ্ছেন কোচ সান্টিয়াগো সোলারি। অন্যদিকে ম্যানচেস্টার সিটি কোচ পেপ গার্ডিওলা এখন থেকেই ভাবনা শুরু করেছেন নকআউট পর্ব নিয়ে।

চলতি মৌসুমে প্রতিপক্ষের মাঠে জুভেন্টাসের প্রথম হারের পরও নকআউট পর্ব নিয়ে নিজের আত্মবিশ্বাসের কথা জানিয়েছেন রোনাল্ডো। সুইস ক্লাব ইয়াং বয়েজের কাছে হারের পর ৩৩ বছর বয়সী এই সুপারস্টার বলেন, এখন চ্যাম্পিয়ন্স লীগের চমৎকার অধ্যায়টা শুরু হলো। আমি আত্মবিশ্বাসী যে আমরা এরজন্য পুরোপুরি প্রস্তুত থাকব। আমি শান্ত আছি কারণ এই দলের সম্ভাবনা ও আমার সক্ষমতা সম্পর্কে আমি জানি। সিআর সেভেন বলেন, আমি সহজেই দুটি গোল করতে পারতাম। কিন্তু এটাই ফুটবল। আমাদের পরের ম্যাচে মনোযোগ দেয়া শুরু করতে হবে। গত এক দশকে প্রথম দল হিসেবে চ্যাম্পিয়ন্স লীগের গ্রুপপর্বে রিয়ালকে দুই লেগেই হারিয়েছে রাশিয়ান ক্লাব সিএসকেএ মস্কো। সর্বশেষ ২০০৮-০৯ মৌসুমে মাদ্রিদের ক্লাবটিকে এই তেতো স্বাদ দিয়েছিল জুভেন্টাস।

ম্যাচ শেষে বেঞ্চের খেলোয়াড়দের সুযোগ দেয়ার সিদ্ধান্তটা কাজে আসেনি বলে মনে করেন রিয়াল কোচ সোলারি। তিনি বলেন, আমি ফলাফলের জন্য দুঃখিত। আমরা ঝুঁকি নিলাম এবং ম্যাচটা অন্যরকম হতে পারত। অধিকাংশ সময়ই চাপ ধরে রাখার ওপর ফুটবলনির্ভর করে। আমরা মাঠের কোন প্রান্তেই ফল নির্ধারক হতে পারিনি। কয়েকজন খেলোয়াড়কে কিছু খেলার সময় দিতে ম্যাচটা একটি সুযোগ ছিল। কারণ সাধারণত তারা মাঠে বেশি সময় পায় না বা তারা মাত্রই চোট থেকে ফিরেছে। আমরা এমন একাদশ সাজানোর ঝুঁকিটা নিয়েছিলাম। আর আমি এর দায় নিচ্ছি। সোলারি বলেন, এই ম্যাচে ভিন্ন কিছু হতে পারত। কারণ এটা শক্তির ওপর নির্ভর করে। আর এদিন আমরা কোন জায়গায় শক্তিশালী ছিলাম না। দ্বিতীয়ার্ধের খেলা আমরা পছন্দ হয়নি। আমরা কেউই এই ফল পছন্দ করিনি। জয়ের প্রত্যাশা ছিল আমাদের।

অন্যদিকে জিতলেও ম্যাচে গোলপোস্টের সামনে অহেতুক কালক্ষেপণ করায় শিষ্যদের প্রতি হতাশা প্রকাশ করেন ম্যানসিটি কোচ পেপ গার্ডিওলা। তিনি বলেন, আমরা কিছুটা ধীরস্থিরভাবেই খেলাটি শুরু করেছিলাম। বুঝতে চেয়েছিলাম প্রতিপক্ষ দলের গতিবিধি। কারণ শারীরিকভাবে তারা আমাদের চেয়ে বেশি শক্তিশালী ছিল। ম্যাচে শেষ পর্যন্ত আমরা গোলের প্রচুর সুযোগ সৃষ্টি করলেও যে জয়টি পেয়েছি তা মন্দ হয়নি। এখন আমরা সেরা ষোলোতে। এখন নকআউট পর্বের ড্রয়ের দিকেই আমরা তাকিয়ে থাকব। এরপর সেরা মুহূর্তটি খুঁজে নিতে হবে। তবে আমাদের ভাবনায় এখন নকআউট পর্বের খেলা। সাদামাটা পারফর্মেন্সের কারণে গ্রুপপর্ব কিছুটা কঠিন হয়ে উঠেছিল ম্যানচেস্টার সিটির জন্য। নিজেদের মাঠেই টুর্নামেন্টের প্রথম ম্যাচে তারা হার মেনেছে লিওঁর কাছে। যে দলটিও রানার্সআপ হিসেবে নিশ্চিত করেছে নকআউট পর্ব। পরাজয় এড়িয়ে চললেই নকআউট হওয়ার সুযোগকে সামনে রেখে শাখতার ডোনেস্কের মুখোমুখি হয় লিওঁ। ম্যাচটি ১-১ গোলে ড্র হওয়ায় নিশ্চিত হয় ‘এফ’ গ্রুপ থেকে তাদের শেষ ষোলো।

খেলা শেষে লিওঁর মিডফিল্ডার হসেম আওয়ার বলেন, প্রতিকূল পরিবেশে ম্যাচটি ছিল বেশ কঠিন। তবে প্রথমার্ধে গোল খাওয়ার পরও হাল ছাড়িনি। সম্মিলিতভাবে আমরা লড়াই করেছি। আসল কথা হচ্ছে আমরা পরের রাউন্ডে উন্নীত হয়েছি।