২৩ জানুয়ারী ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

আয়ারল্যান্ডে বৈধতা পাচ্ছে গর্ভপাত

আয়ারল্যান্ডে বৈধতা পাচ্ছে গর্ভপাত

অনলাইন ডেস্ক ॥ আয়ারল্যান্ডে গর্ভপাত বৈধকরণের বিষয়ে পার্লামেন্টের সবগুলো প্রক্রিয়া শেষ হয়েছে। বৃহস্পতিবার দেশটির রাষ্ট্রীয় সম্প্রচার মাধ্যম আরটিই জানায়, আইরিশ সিনেট (সিন্যাড) এ সবগুলো ধাপ পার হয়ে গেছে গর্ভপাত বৈধকরণের বিলটি। এখন শুধু এটি প্রেসিডেন্টের স্বাক্ষরের অপেক্ষায় রয়েছে।

আয়ারল্যান্ডে গর্ভপাত আইনত নিষিদ্ধ। ১৯৮৩ সালে গণভোটের মাধ্যমে গর্ভপাতকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করে অষ্টম সাংবিধানিক সংশোধনী পাস হয় সেদেশে। অষ্টম সাংবিধান সংশোধনী অনুযায়ী, গর্ভস্থ শিশু এবং মায়ের জীবনের সমানাধিকার রয়েছে। সে দেশে গর্ভপাত করালে ১৪ বছর জেল এবং জরিমানার বিধান রয়েছে।

বিভিন্ন সময়ে দেখা গেছে, আইনি জটিলতার ভয়ে গর্ভস্থ ভ্রুণ নষ্ট হওয়ার পরও গর্ভপাত করাতে রাজি হয়নি সংশ্লিষ্ট হাসপাতাল। যার জেরে অনেকক্ষেত্রেই প্রাণহানি হয়েছে মায়ের। যেমন- ২০১২ সালে ভারতীয় বংশোদ্ভূত চিকিৎসক সবিতা হলপ্পনাবার অন্তঃসত্ত্বা থাকাকালীন শারীরিক জটিলতা শুরু হয়। গর্ভপাত করানো জরুরি হয়ে পড়ে। কিন্তু হাসপাতাল সে পথে হাঁটেনি। ১৭ সপ্তাহের অন্তঃসত্ত্বা সবিতার গর্ভপাত না-করানোয় মৃত্যু হয় তার। বিক্ষোভকারীদের দাবি, ১২ সপ্তাহের অন্তঃসত্ত্বা নারীকে গর্ভপাত করানোর অনুমতি দিক সরকার। এমনকি শরীর সুস্থ থাকলে ২৪ সপ্তাহ পর্যন্তও গর্ভপাত করানোর অনুমতি দাবি করেন তরা। এরপর চাপে পড়ে গণভোটের আয়োজন করে সরকার। সর্বশেষ গণভোটের ফলাফলে দেখা যায়, গর্ভপাত আইনকে আমূল পরিবর্তনের পক্ষে বিপুল ভোট পড়েছে।

বৃহস্পতিবার সিন্যাডে ৯ ঘণ্টা ধরে বিলটি নিয় বিতর্ক চলে। আইরিশ স্বাস্থ্যমন্ত্রী এক টুইটে এই বিলের প্রতি তার সমর্থন প্রকাশ করেন।

গত অক্টোবরে প্রথমবারের মতো সিনেটে উত্থাপন করা হয় বিলটি। এরপর থেকে ছোটখাটো পরিবর্তন আসতে শুরু করে।