১৫ ডিসেম্বর ২০১৮

শহিদদের শ্রদ্ধা জানাতে প্রস্তুত জাতীয় স্মৃতিসৌধ

শহিদদের শ্রদ্ধা জানাতে প্রস্তুত জাতীয় স্মৃতিসৌধ

অনলাইন রিপোর্টার ॥ নিরাপত্তার জন্য সৌধের ভেতরে ও বাইরে লাগানো হয়েছে সিসিটিভি ক্যামেরা। কয়েক হাজার নিরাপত্তা কর্মীসহ বাড়ানো হয়েছে সার্বক্ষণিক গোয়েন্দা নজরদারি। জানাতে বর্ণিল সাজে সেজেছে সাভারের জাতীয় স্মৃতিসৌধ। ইতোমধ্যে নিরাপত্তাসহ সব ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। প্রতি বছরের মতো মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে মাসব্যাপী অক্লান্ত পরিশ্রম ও নিবিড় যত্নে জাতীয় স্মৃতিসৌধকে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করার পাশাপাশি বাহারি রঙের ফুলে ফুলে সাজানো হয়েছে।

যথাযোগ্য মর্যাদায় দিবসটি পালনের জন্য ১০৮ একর জমিতে নির্মিত জাতীয় স্মৃতিসৌধের ৭টি মিনার, পুষ্পবেদী, গণসমাধি, কৃত্রিম হ্রদসহ নানা অবকাঠামো সেজেছে নতুন করে। শেষ হয়েছে লাইটিংসহ রং-তুলির কাজ। নিরাপত্তার জন্য সৌধের ভেতরে ও বাইরে লাগানো হয়েছে ক্লোজড সার্কিট টেলিভিশন (সিসিটিভি) ক্যামেরা। কয়েক হাজার নিরাপত্তা কর্মীসহ বাড়ানো হয়েছে সার্বক্ষণিক গোয়েন্দা নজরদারি। রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য প্রস্তুত হয়েছে তিন বাহিনীর সুসজ্জিত দলের মহড়া।

স্মৃতিসৌধ পরিচ্ছন্ন কাজে নিয়োজিত শ্রমিকরা জানান, এ কাজের মধ্যে আলাদা তারা একটা আনন্দ খুঁজে পান। তাই প্রতিবছরের বিশেষ দিনগুলোতে স্মৃতিসৌধেকে সাজাতে আগ্রহ থাকে তাদের মধ্যে।

আবার এই দিনটি ঘিরে শ্রদ্ধা আর ভালোবাসা নিয়ে নতুন প্রজম্মকে স্মৃতিসৌধের সঙ্গে পরিচিত করতে উৎসাহের কমতি নেই সাধারণ মানুষের। এমন একটি পরিবারের সঙ্গে কথা হয়। তারা জানান, ছোট ছেলে স্কুলে শিক্ষকের কাছে শুনেছে এবং বইয়ে পড়েছে স্মৃতিসৌধের কথা, তাই তাকে পরিচিত করাতে নিয়ে আসলাম। যেন মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে লালন করতে পারে।

জাতীয় স্মৃতিসৌধের ইনচার্জ প্রকৌশলী মিজানুর রহমান জানান, নিরাপত্তার জন্য সৌধের ভেতরে ও বাইরে লাগানো হয়েছে সিসি ক্যামেরা। ঢাকা জেলার পুলিশ সুপার (এসপি) শাহ মিজান শাফিউর রহমান জানান, সামনে জাতীয় সংসদ নির্বাচন। তাই নেওয়া হয়েছে বাড়তি নিরাপত্তাব্যবস্থা। পাশাপাশি ঢাকা জেলা পুলিশের উদ্যোগে দর্শনার্থীদের জন্য বাড়তি আকর্ষণ হিসেবে মুক্তিযুদ্ধের প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শনসহ গান পরিবেশন করবেন শিল্পীরা।