২১ মার্চ ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ইউনাইটেডের অগ্নি-পরীক্ষা এ্যানফিল্ডে

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগে আজ তিনটি ম্যাচ। চেলসি খেলবে ব্রাইটনের বিপক্ষে। আর্সেনাল সাউদাম্পটন সফর করবে। তবে ফুটবলপ্রেমীদের চোখ থাকবে এ্যানফিল্ডে। কেননা নিজেদের মাঠে লিভারপুল যে স্বাগত জানাবে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডকে। যে কারণেই লিভারপুল-ম্যানইউর হাড্ডাহাড্ডি লড়াই দেখার জন্যই মুখিয়ে থাকবে গোটা দুনিয়ার ফুটবলপ্রেমীরা।

ইংলিশ ফুটবলের উত্তেজনা ইউরোপের অন্য লীগগুলোর চেয়ে একটু বেশিই। দলগুলোর শক্তির জায়গা কাছাছাছি থাকায় হয় হাড্ডাহাড্ডি লড়াই। তবে প্রতিদ্বন্দ্বিতার বিচারে সবচেয়ে বেশি উত্তেজনা ছড়ায় ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড-লিভারপুলের দ্বৈরথ। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দল দুটি আবার মুখোমুখি হচ্ছে আজ। চলতি মৌসুমে দুর্দান্ত লিভারপুল। গত সপ্তাহে ম্যানচেস্টার সিটিকে সরিয়ে ১ পয়েন্টে এগিয়ে থেকে শীর্ষস্থানটাও দখল করে নেয় জার্গেন ক্লপের দল। অন্যদিকে কঠিন অবস্থায় ম্যানইউ। শিরোপা দৌড় তো দূরে থাক, চ্যাম্পিয়ন্স লীগে খেলার জায়গাতেও নেই তারা। চতুর্থ স্থানে থাকা চেলসির চেয়ে পিছিয়ে ৮ পয়েন্টে, আর শীর্ষে থাকা লিভারপুলের সঙ্গে তাদের ব্যবধান ১৬ পয়েন্টের। এরপরও ম্যাচটি যখন চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ম্যানইউয়ের বিপক্ষে তখন কঠিন লড়াইয়ের উত্তাপ পাওয়াটাই স্বাভাবিক। তাছাড়া দুর্দান্ত আক্রমণভাগ নিয়ে জোশে মরিনহো থাবা মারতে আছেন প্রস্তুত। যদিও লিভারপুল ডিফেন্ডার ভ্যান ডাইক জানিয়েছেন, তারা ভয় পাচ্ছেন না রেড ডেভিলদের।

মরিনহো দায়িত্ব নেয়ার পর গত দুই মৌসুমে একবারও ম্যানইউকে হারাতে পারেনি লিভারপুল। চারবারের সাক্ষাতে তিন ড্রয়ের পাশাপাশি একটিতে হেরেছে অলরেডরা। চলতি মৌসুমে ম্যানইউ সংগ্রাম করলেও এ্যানফিল্ডের ম্যাচে ঘুরে দাঁড়াতে তারা মরিয়া। আর সেখানে আত্মবিশ্বাস জোগাচ্ছে রোমেলু লুকাকু, মার্কাস রাশফোর্ড, এ্যান্থনি মার্শাল ও পল পগবাদের নিয়ে গড়া আক্রমণভাগ।

পয়েন্ট টেবিলে পিছিয়ে থাকলেও ম্যানইউকে হাল্কা করে নেয়ার কোন সুযোগ নেই লিভারপুলের। ঘরের মাঠে তাই তাদের নিয়ে সতর্ক জার্গেন ক্লপ। যদিও চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীদের ভয় পাচ্ছেন না দলটির ডাচ ডিফেন্ডার ডাইক। স্কাই স্পোর্টসকে দেয়া সাক্ষাতকারে তিনি বলেন, ‘আমরা জানি কার বিপক্ষে নামতে যাচ্ছি। আমাদের দলের গতিও বেশ ভাল, তাই আমরা কোন কিছুতেই ভয় পাচ্ছি না। যদিও তাদের ভয়ঙ্কর রূপ থেকে আমাদের সতর্ক থাকা জরুরী।’ ম্যানইউর আক্রমণভাগ নিয়ে বেশি দুশ্চিন্তা এই ডিফেন্ডারের। তিনি বলেন, ওদের দারুণ খেলোয়াড় আছে, বিশেষ করে ওপরের দিকে। তাই আমাদের এটার জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে। অন্যদিকে আমাদের নিজেদের মতো খেলতে হবে। নিশ্চিত করতে হবে শীর্ষস্থান এবং ওদের চাপে রাখা।

লিভারপুল-ম্যানইউ ছাড়া বাকি দুই ম্যাচে অবশ্য একতরফা ফলাফল আশা করছেন চেলসি আর আর্সেনালের সমর্থকরা। চেলসির প্রতিপক্ষ ব্রাইটন। ব্লুজরা এই মুহূর্তে পয়েন্ট টেবিলের চার নম্বরের দল। অন্যদিকে টেবিলের ১৩ নম্বরে অবস্থান করছে ব্রাইটন। পাঁচে থাকা আর্সেনালের প্রতিপক্ষ সাউদাম্পটন অবশ্য আরও তলানিতে। এই মুহূর্তে তারা ৯ পয়েন্ট নিয়ে ১৯ নম্বরে অবস্থান করছে।

এদিকে শনিবার ম্যানচেস্টার সিটি এভারটনকে পরাজিত করে পূর্ণ তিন পয়েন্ট নিয়েই মাঠ ছেড়েছে। সেই সঙ্গে লিভারপুলের কাছে হারানো শীর্ষস্থানও পুনরুদ্ধার করেছে। নিজেদের মাঠে এদিন সিটিজেনরা ৩-১ গোলে পরাজিত করেছে এভারটনকে। টুর্নামেন্টের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ম্যানচেস্টার সিটির হয়ে জোড়া গোল করেন গ্যাব্রিয়েল জেসুস। দুই অর্ধে গোল দুটি করেন এই ব্রাজিলিয়ান। স্বাগতিকদের হয়ে তৃতীয় গোলটি করেন রহিম স্টার্লিং। আর এভারটনের হয়ে সান্ত¡নার একটি গোল করেন কালভার্ট লেউইন।