১৯ জানুয়ারী ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

আগামীকাল সাকিবের না খেলার কোনো কারণ নেই ॥ রোডস

আগামীকাল সাকিবের না খেলার কোনো কারণ নেই ॥ রোডস

অনলাইন ডেস্ক ॥ উইন্ডিজের বিপক্ষে বাংলাদেশ ওয়ানডে সিরিজ জিতে যাওয়ার পর শনিবার পুরোদস্তুর বিশ্রাম নিয়ে রবিবার থেকে শুরু হয়েছে টি-টোয়েন্টি সিরিজের জন্য আনুষ্ঠানিক অনুশীলন। কিন্তু অনুশীলনের প্রথম দিনেই বাংলাদেশ শিবিরে দুর্যোগের ঘনঘটা।

রবিবার সকালে নেটে ব্যাটিং করার সময় পায়ের আঙ্গুলের চোটে মাঠ ছেড়ে চলে যান ড্রেসিংরুমে। সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামের নেটে পাশাপাশি ব্যাটিং করছিলেন মুশফিকুর রহিম ও সাকিব আল হাসান।

বেলা এগারোটায় শুরু হওয়া অনুশীলনে শুরু থেকেই সাবলীল ছিলেন সাকিব। কিন্তু হুট করেই একটি ডেলিভারী এসে আঘাত হানে সাকিবের পায়ের নিচের দিকে। সাথে সাথে ড্রেসিংরুমে চলে যান তিনি।

সাকিবের ইনজুরির ধরন কতটা গুরুতর? সেটা কি কালকের ম্যাচ খেলার জন্য কোনো হুমকি? সাকিব কি আগামীকালের ম্যাচ খেলতে পারবেন? তাৎক্ষণিকভাবে এসব প্রশ্নের উত্তর পাওয়া যায়নি। টিম ম্যানেজম্যান্ট থেকেও জানানো হয়নি কিছুই।

তবে বিসিবি প্রধান চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরী খানিক পরে নিশ্চিত করেছেন সাকিবের সামনের পায়ের দ্বিতীয় আঙ্গুলে বল লেগেছে, এখন ড্রেসিংরুমে বরফ দেয়া হচ্ছে। দেবাশীষ বলেন, ‘বেশ ভালোই ব্যথা পেয়েছে, বরফ দেয়া হচ্ছে। সাকিব বলেছে খুব সিরিয়াস মনে হচ্ছে না, তারপরও আমরা তাকে নিবিড় পর্যবেক্ষণে রেখেছি। পরবর্তী অবস্থা বুঝে ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

সবাই তখন অপেক্ষায় ছিলেন দুপুরে বাংলাদেশ দলের আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলনের। কেননা সেখানে সাকিব এলে তার মুখ থেকেই শোনা যেতে পারতো বিস্তারিত। কিন্তু সবাইকে অবাক করে দিয়ে সংবাদ সম্মেলনে আসেন দলের প্রধান কোচ স্টিভ রোডস।

এতে করে বেড়ে যায় শঙ্কা। তবে কি গুরুতর ইনজুরি পেয়ে বসেছে সাকিবকে? সংবাদ সম্মেলন শুরুর আগে বাংলাদেশ দলের মিডিয়া ম্যানেজার রাবিদ ইমাম জানিয়েছেন মূলত ড্রেসিংরুমে বরফ দেয়া হচ্ছে বলেই সাকিব আসেননি সংবাদ সম্মেলনে। তার পরিবর্তে এসেছেন রোডস।

অনুমিতভাবেই সংবাদ সম্মেলনে ওঠে সাকিবের প্রসঙ্গ। প্রধান কোচ সেই ডেলিভারিটি ছিলো মূলত দলের পেস বোলিং অলরাউন্ডার মোহাম্মদ সাঈফউদ্দীনের করা একটি ইনসুইঙ্গিং ইয়র্কার। যা খেলতে গিয়ে আঙুলে লাগে সাকিবের। এ কারণেই তিনি নেট ছেড়ে চলে যান।

তবে রোডস আশ্বস্ত করেছেন আগামীকালকের ম্যাচে সাকিবই নেতৃত্ব দেবেন বাংলাদেশ দলকে। এসময় সাঈফউদ্দীনের সেই ইয়র্কারের প্রশংসা করে স্মিত হেসে রোডস বলেন, ‘এটা ভালো ডেলিভারী ছিলো। তবে এখন সাকিব ভালো আছে। বরফ দিচ্ছে পায়ে। আমার মনে হয় না আগামীকাল তার না খেলার কোনো কারণ আছে।’