২২ মার্চ ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

৩০০ ফুট রাস্তা ‘মুক্তিযোদ্ধা সরণি’ করার প্রস্তাব

৩০০ ফুট রাস্তা ‘মুক্তিযোদ্ধা সরণি’ করার প্রস্তাব

অনলাইন রিপোর্টার ॥ মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মানে পূর্বাচলের ৩০০ ফুট রাস্তার নাম ‘মুক্তিযোদ্ধা সরণি’ করার প্রস্তাব করেছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন।

রবিবার মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে বীর মুক্তিযোদ্ধা ও যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা দেয়া এক অনুষ্ঠানে তিনি এমন প্রস্তাব রাখেন রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (রাজউক) কাছে। ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন এই সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

সাঈদ খোকন বলেন, মুক্তিযোদ্ধাদের হোল্ডিং ট্যাক্স মওকুফ করা হয়েছে। জুরাইন কবরস্থানে মুক্তিযুদ্ধের জন্য কবর সংরক্ষণের ব্যবস্থা করা হয়েছে। তাদের জন্য কমিউনিটি সেন্টারে ৫০ শতাংশ পর্যন্ত মওকুফ করা হয়েছে। মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য সিটি কর্পোরেশনের সব সেবা সহজ করে দেয়া হবে। আপনারা আরও বড় বড় কিছু প্রস্তাব নিয়ে আসেন, যাতে আমরা সেগুলো করে দিয়ে ধন্য হতে পারি।

নৌকার পক্ষে ভোট চেয়ে সাঈদ খোকন বলেন, ৩০ তারিখ মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের বিজয়ের দিন। ওইদিন সারাদিন শেখ হাসিনাকে নৌকায় ভোট দিয়ে বিজয়ী করুন। আমরা যদি আরও একটি বিজয় লাভ করতে পারি বিশ্বের বুকে আবারও ঘুরে দাঁড়ানোর পথ সুগম হবে।

তিনি বলেন, আগে এই শহরে প্রতিঘণ্টায় লোডশেডিং হতো। তিন হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ থেকে আজ ১৮ হাজারে উন্নিত হয়েছে। আজ শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ অর্থনৈতিকভাবে এগিয়ে যাচ্ছে। দ্রুততম সময়ের মধ্যে দুই সিটির সড়ক বাতি একযোগে জ্বলবে।

খোকন বলেন, পরিচ্ছন্ন শহর অত্যন্ত একটি কঠিন কাজ। যতক্ষণ পর্যন্ত আমাদের প্রাতিষ্ঠানিক দুর্বলতাগুলো দূর করে নাগরিকদের সম্পৃক্ত করতে সচেতনতামূলক কাজ চালিয়ে যাচ্ছি।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সেক্টর কমান্ডার, বীর মুক্তিযোদ্ধা, যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্যরাসহ উপস্থিত ছিলেন, ডিএনসিসির ভারপ্রাপ্ত মেয়র জামাল মোস্তফা, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মেসবাহুল ইসলাম প্রমুখ।