১৬ ডিসেম্বর ২০১৮

লক্ষ্মীপুর আধুনিক হাসপাতালে ভুল চিকিৎসা

লক্ষ্মীপুর আধুনিক হাসপাতালে ভুল চিকিৎসা

নিজস্ব সংবাদদাতা, লক্ষ্মীপুর ॥ লক্ষ্মীপুরে ভুল চিকিৎসায় মোহাম্মদ সেকান্তর মিয়া নামের এক সরকারি কর্মচারীর মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় নিহতের স্বজনরা হাসপাতালে ভাংচুর চালায়। শনিবার রাত সাড়ে ৯ টার দিকে শহরের আধুনিক হাসপাতালে এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পুলিশ ও জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এ সময় হাসপাতালের চিকিৎসক ও সেবক-সেবিকারা পালিয়ে যায়। নিহত সেকান্তর লক্ষ্মীপুর জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের স্থানীয় সরকার শাখার অফিস সহায়ক ও সদর উপজেলার আবিরনগর গ্রামের বাসিন্দা।

জানা গেছে এদিন সন্ধ্যা ৭টার দিকে বুকে ব্যাথা অনুভব হলে সরকারি কর্মচারী সেকান্তরকে শহরের আধুনিক হাসপাতালে নিয়ে আসেন স্বজনরা। হাসপাতালে তিনি নিজে হেটে জরুরী বিভাগে আসেন। এ সময় হাসপাতালে কোন চিকিৎসক ছিলেন না। এক পর্যায়ে রোগীর অবস্থা দেখে হাসপাতালের স্টাফরা তার হাতে কয়েকটি ইনজেকশান পুশ করেন। মুহুর্তেই ছটপট করে মারা যান ওই রোগী। এ সময় নিহতের স্বজনরা বিক্ষুব্ধ হয়ে হাসপাতাল ভাংচুর করে।

লক্ষ্মীপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রিয়াজুল কবির জানান, সরকারি কর্মচারী মারা যাওয়ার ঘটনায় প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে আইনের ব্যত্যয় ঘটেছে। তদন্ত করে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। ময়না তদন্তের জন্য লাশটি সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়না তদন্ত শেষে বিকেলে নামাজে জানাযা শেষে নিজ গ্রামের বাড়ীতে পারিবারিক কবরস্থানে লাশ দাফন করা হয়।

এদিকে আজ রবিবার বিকেলে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা লোকমান হোসেনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, এ ঘটনায় সদর মডেল থানায় একটি মামলা রুজু হয়েছে। তবে এ পর্যন্ত কেউ গ্রেফতার হয়নি। তবে ময়না তদন্ত সাপেক্ষে অপরাধীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।