২৪ মার্চ ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

এক হাজার টাকার খাবার খেতে গিয়ে তিন লক্ষ টাকার মু্ক্তো পেলেন রিক

এক হাজার টাকার খাবার খেতে গিয়ে তিন লক্ষ টাকার মু্ক্তো পেলেন রিক

অনলাইন ডেস্ক ॥ হাই স্কুলের পুরনো বন্ধুর সঙ্গে আড্ডা দিতে দিতেই লাঞ্চ সারছিলেন ৬৬ বছরের রিক অ্যান্টোস। অর্ডার দিয়েছিলেন অয়েস্টার বা ঝিনুকের রোস্ট। আড্ডা দেওয়াই ছিল মূল উদ্দেশ্য। সেই জন্য অপেক্ষাকৃত কম দামের এই খাবারটিই পছন্দ করেন তাঁরা। দাম ছিল প্রায় ১০০০ টাকা।

খাওয়ার সময়েই রিক বুঝতে পারেন তাঁর দাঁতে শক্ত মতন কিছু একটা ঠেকছে। প্রথমটা ভয় পেয়ে যান তিনি। তাঁর মনে হয়েছিল খেতে গিয়ে একটি দাঁত বোধহয় খুলে গিয়েছে। দাঁতের ডাক্তার দেখানোর কথাও ভেবে ফেলেছিলেন শুরুতে। একটু পরে সেই শক্ত জিনিসটি মুখ থেকে বাইরে নিয়ে আসতেই কী হয়েছে বুঝতে পারেন রিক। হাতে নিয়ে দেখেন তাঁর মুখের মধ্যে দাঁত নয়, আসলে ছিল একটি মটরের দানার আকারের মুক্তো। কিছু না বলে চুপ চাপ তখনকার মতো মুক্তোটি পকেটে পুরে বাড়ি চলে যান রিক।

ঘটনাটি ঘটেছে গত ৫ ডিসেম্বর নিউইয়র্কের গ্র্যান্ড সেন্ট্রাল অয়েস্টার রেস্তরাঁয়। বাড়ি ফিরে রেস্তরাঁ কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি জানান রিক অ্যান্টোস। শুনে তাজ্জব হয়ে যান তাঁরাও। পাশাপাশি এক জন রত্ন বিশেষজ্ঞকেও মুক্তোটি দেখান রিক। জানতে পারেন এই মুক্তোর এই মুহূর্তে বাজারদর প্রায় তিন লক্ষ টাকা। অর্থাৎ, এক হাজার টাকার খাবার খেতে গিয়ে প্রায় তিন লক্ষ টাকার মু্ক্তো পেলেন রিক অ্যান্টোস।

রেস্তরাঁ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, ভার্জিনিয়া থেকে তাঁরা এই ঝিনুকের অর্ডার দিয়েছিলেন। প্রতি দিন বিভিন্ন খাবারে সব মিলিয়ে তাঁরা প্রায় ৫০০০ ঝিনুক ব্যবহার করেন। কিন্তু সেই ঝিনুক থেকে মুক্তো পাওয়ার ঘটনা একেবারেই বিরল।

আপাতত তাই রীতিমতো সপ্তম স্বর্গে বিচরণ করছেন নিউ ইয়র্কের বাসিন্দা রিক অ্যান্টোস । রেস্তরাঁ কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছেন, এখন থেকে তিনি নিয়মিতই তাঁদের দোকানে ঝিনুকের রোস্ট খেতে যাবেন।

সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা