২৩ জানুয়ারী ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সাত কার্যদিবস পর উর্ধমুখী শেয়ারবাজার

সাত কার্যদিবস পর উর্ধমুখী শেয়ারবাজার

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ টানা সাত কার্যদিবস দরপতনের পর মঙ্গলবার দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) এবং অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সবকটি মূল্যসূচকের উত্থান হয়েছে। সেই সঙ্গে কিছুটা বেড়েছে লেনদেন।

অবশ্য আগের দিন সোমবার ১৭৩ কার্যদিবসের মধ্যে ডিএসইতে সর্বনিম্ন লেনদেন হয়েছিল। ওই দিন ডিএসইতে লেনদেন হয় ৩১৪ কোটি ৫৬ লাখ টাকার শেয়ার। আর মঙ্গলবার লেনদেন হয়েছে ৩৩৪ কোটি ৯ লাখ টাকার শেয়ার। সে হিসেবে আগের কার্যদিবসের তুলনায় বাজারটিতে ১৯ কোটি ৫৩ লাখ টাকার শেয়ার বেশি লেনদেন হয়েছে।

বাজার সংশ্লিষ্টদের মতে, সকালে দেশের বড় দুটি রাজনৈতিক দলের ঈশতেহার ঘোষণার পর থেকে বিনিয়োগকারীদের একটি অংশ শেয়ারের ক্রয়াদেশ বাড়িয়ে দেন। ফলে নি¤œমুখী সূচকটি আবারও ঘুরে দাঁড়ায়। তবে বস্ত্র খাতের কোম্পানিগুলোর চাহিদা ছিল বেশি। খাতটির একাধিক কোম্পানির বিক্রেতাশূণ্য অবস্থায় লেনদেন শেষ হয়েছে।

এদিকে লেনদেন বাড়ার সঙ্গে ডিএসইতে এদিন হাতবদল হওয়া বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বেড়েছে। বাজারটিতে লেনদেনে অংশ নেয়া ১৮০টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম আগের দিনের তুলনায় বেড়েছে। বিপরীতে দাম কমার তালিকায় স্থান করে নিয়েছে ১০৩টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার। আর অপরিবর্তিত রয়েছে ৫৭টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দাম।

বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বাড়ায় মঙ্গলবার ডিএসইর প্রধান মূল্যসূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের তুলনায় ১৫ পয়েন্ট বেড়ে ৫ হাজার ২৩৩ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। অপর দুটি মূল্যসূচকের মধ্যে ডিএসই শরিয়াহ্ সূচক আগের দিনের তুলনায় ৩ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ২০৫ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। আর ডিএসই-৩০ আগের দিনের তুলনায় ১ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ৮৪৩ পয়েন্টে অবস্থান করছে। টাকার অংকে এদিন ডিএসইতে সব থেকে বেশি লেনদেন হয়েছে মেঘনা লাইফের শেয়ার। কোম্পানিটির মোট ১৫ কোটি ৩৭ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। দ্বিতীয় স্থানে থাকা ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশনের শেয়ার লেনদেন হয়েছে ১১ কোটি ১৭ লাখ টাকার। ৮ কোটি ২৫ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনে তৃতীয় স্থানে রয়েছে ইফাদ অটোস।

লেনদেনে এরপর রয়েছে - স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস, সোনালী আঁশ, আনলিমা ইয়াং ডাইং, রূপালী লাইফ, খুলনা পাওয়ার, ভিএফএস থ্রেড ডাইং এবং ওয়েস্টার্ন মেরিন শিপইয়ার্ড।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের সার্বিক মূল্যসূচক সিএসসিএক্স ১১ পয়েন্ট বেড়ে ৯ হাজার ৭০৯ পয়েন্টে অবস্থান করছে। বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ১৩ কোটি ২২ লাখ টাকার শেয়ার। লেনদেন হওয়া ২৪১টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ১১৮টির দাম বেড়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ৮৭টির। আর অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৬টির দাম।