১৯ মার্চ ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

শেখ হাসিনার পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে : তোফায়েল

শেখ হাসিনার পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে : তোফায়েল

নিজস্ব সংবাদদাতা, ভোলা ॥ ভোলা-১ আসনের আওয়ামী লীগের প্রার্থী বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, ৭০ এর নির্বাচনে যেমনি বঙ্গবন্ধুর পক্ষে গণজোয়ার উঠেছিল, এবার তেমনি শেখ হাসিনার পক্ষে গণজোয়ার সৃস্টি হয়েছে। আওয়ামী লীগ এবার নিরঙ্কুশ বিজয়লাভ করবে। শহর ও গ্রামে সর্বত্র নিবাচনী উৎসব শুরু হয়েছে।

গ্রাম গঞ্জে যেখানেই আওয়ামী লীগের পথসভায় হয় সেখানেই হাজার হাজার মানুষ ছুটে আসছে। কারণ মানুষ উন্নয়নের পক্ষে। মানুষ উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষার জন্য আবারও আওয়ামী লীগকেই ভোট দিবে। বুধবার সকালে ভোলার বাংলাবাজার, দক্ষিণ দিঘলদী, ইলিশা ইউনিয়নে গণসংযোগ ও বিভিন্ন পথসমাবেশে এ সব কথা বলেন। এসময় নৌকার পক্ষে মানুষের জোয়ার উঠে।

বাণিজ্যমন্ত্রী আরও বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ ব্যাপী ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। ভোলার নদী ভাঙনরোধসহ বিভিন্ন উন্নয়ন মূলক কর্মকান্ডে হাজার হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন হয়েছ। তাই মানুষ আগামী ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনে শেখ হাসিনার পক্ষে নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে আবারও বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনাকে প্রধানমন্ত্রী বানাবে।

বাণিজ্যমন্ত্রী আরো বলেন,ভোলায় এখন পর্যন্ত কোন নির্বাচনী সংঘাতের ঘটনা ঘটেনি। গত ১০ বছর ভোলার বিএনপি নেতাকর্মীরা শান্তিতে ছিল। এখনো আছে। ২০০১ সালে তারা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের বাড়িঘরে থাকতে দেয় নি। গুরু, ছাগল, হাস মুরগি থেকে শুরু করে পুকুরের মাছ, বাগানের গাছ কেটে নিয়েছে। মানুষের বাড়িঘর পুড়িয়ে দিয়েছে। আমার বাড়িতেও হামলা করে ভাংচুর করেছে। কিন্তু আমরা ক্ষমতায় এসে সেগুলোর প্রতিশোধ নেই নি। আমাদের দ্বারা কেউ অত্যাচারিত হয়নি। কারণ আমরা প্রতিহিংসার রাজনীতি করি না।

তোফায়েল আহমেদ বলেন, ২০০১ সালে বিএনপি সাধারণ মানুষের উপর যে অত্যাচার নির্যাতন করেছে মানুষ তা এখনো ভোলেনি। তাই আজ সাধারণ মানুষ তাদের সাথে নেই। তাদের নেতাকর্মীরাও আওয়ামী লীগে যোগ দিচ্ছে।

বাণিজ্যমন্ত্রী ভোলার উন্নয়নের প্রসঙ্গ তুলে ধরে বলেন, ভোলার মানুষের এখন আর নদী ভাঙনের কোন ভয় নেই। জেলায় প্রায় ৪ হাজার কোটি টাকার নদী ভাঙন রোধে কাজ হয়েছে। মানুষের এখন দাবি ভোলা-বরিশালের মধ্যে ব্রিজ নির্মান করা। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এলেই ওই ব্রিজ নির্মান হবে। গ্যাস ভিত্তিক শিল্পায়ন হবে। বেকার সমস্যা দুর হবে। ভোলার যুবকরা চাকুরি পাবে। এদিকে বাণিজ্যমন্ত্রীর গণসংযোগে শত শত মানুষের ঢল নামে। এরা নৌকার শ্লোগান দিতে থাকে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, জেলা আ্ওয়ামী লীগ সম্পাদক আব্দুল মমিন টুলু, উপজেলা চেয়ারম্যান মোশারফ হোসেন, জেলা আওয়ামী লীগ যুগ্ম সম্পাদক জহুরুল ইসলাম নকিব প্রমুখ । অপরদিকে দুপুরে বাণিজ্যমন্ত্রী বোরহানউদ্দিন উপজেলায় আওয়ামী লীগের নেতা মোঃ রফিকুল ইসলাম নিপু মিয়ার জানাযায় অংশ নেন। এছাড়াও ভোলা-২ আসেনর প্রার্থী আলী আজম মুকুলের গণসংযোগে অংশ নেন।