২২ আগস্ট ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

উৎসবে ও বাড়ে কোলেস্টেরল

উৎসবে ও বাড়ে কোলেস্টেরল

অনলাইন ডেস্ক ॥ বড় বড় উৎসব শুধু ব্যক্তির পকেট ফাঁকা করে না, স্বাস্থ্যের ওপরও নেতিবাচক প্রভাব ফেলতে পারে—সম্প্রতি ডেনমার্কের একটি গবেষণায় এমন তথ্য পাওয়া গেছে। গবেষকরা বলেন, বড়দিন কিংবা ইংরেজি নববর্ষের কারণে সংশ্লিষ্ট জনগোষ্ঠীর মধ্যে খারাপ কোলেস্টেরলের মাত্রা গড়ে ২০ শতাংশ বেড়ে যায়।

গবেষণাটি করেছেন ডেনমার্কের ‘ইউনিভার্সিটি অব কোপেনহেগেন’-এর ক্লিনিক্যাল বায়োকেমিস্ট্রি বিভাগের একদল গবেষক। গবেষণায় নেতৃত্ব দেন ড. সিগনে ভেদেল-ক্রোগ। বড়দিন ও ইংরেজি নববর্ষের সময় মানুষের কোলেস্টেরলের মাত্রা কেমন থাকে, তা দেখাই ছিল গবেষকদের মূল উদ্দেশ্য। এ জন্য উৎসবের কয়েক দিন ২৫ হাজার ৭০০ মানুষের কোলেস্টেরলের মাত্রা পরীক্ষা করেন তাঁরা। তাতে দেখা গেছে, জানুয়ারি মাসে তাদের রক্তে খারাপ কোলেস্টেরলের মাত্রা অন্য সময়ের চেয়ে গড়ে ২০ শতাংশ বেশি থাকে। কারণ হিসেবে দেখা গেছে, উৎসবের কয়েক দিন প্রায় সবার খাদ্যাভ্যাস অনিয়ন্ত্রিত হয়ে পড়ে। বিশেষ করে চর্বিজাতীয় খাবার খাওয়ার প্রবণতা বেড়ে যায়। গবেষকরা বলেন, এ জন্য জানুয়ারি মাসে কারো শরীরের কোলেস্টেরলের মাত্রাকে স্বাভাবিক ধরা যাবে না। স্বাভাবিক মাত্রা পেতে বছরের অন্য কোনো সময় কোলেস্টেরল পরীক্ষা করার পরামর্শ দিয়েছেন তাঁরা।

উল্লেখ্য, কোলেস্টেরল এক ধরনের চর্বি; দেখতে মোমের মতো নরম। চর্বিজাতীয় খাবার খেলে যকৃতে এই কোলেস্টেরল তৈরি হয় এবং দেহের সব রক্তনালিতে ছড়িয়ে পড়ে। কোলেস্টেরল মূলত দুই ধরনের হয়—‘লো ডেনসিটি লাইপো প্রোটিন’ (এলডিএল) এবং ‘হাইডেনসিটি লাইপো প্রোটিন’ (এইচডিএল)। এলডিএল ধমনির দেয়ালে ক্ষতিকর প্লাক তৈরিতে সাহায্য করে, তাই একে খারাপ কোলেস্টেরল বলা হয়। আর এইচডিএল ধমনির মধ্য দিয়ে যাওয়ার সময় এলডিএল কোলেস্টেরলকে সরিয়ে দিতে সাহায্য করে। ফলে হৃদরোগের ঝুঁকি কমে। এ জন্য এটি ভালো কোলেস্টেরল। সূত্র : ডেইলি মেইল।