১৯ জানুয়ারী ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বছরের দ্বিতীয় দিনেও শেয়ারবাজারে ইতিবাচক প্রবণতা

বছরের দ্বিতীয় দিনেও শেয়ারবাজারে ইতিবাচক প্রবণতা

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ বছরের প্রথম কার্যদিবসের মতো দ্বিতীয় কার্যদিবসেও উত্থানে শেষ হয়েছে শেয়ারবাজারের লেনদেন। বুধবার উভয় শেয়ারবাজারের সব সূচক বেড়েছে। একইসঙ্গে বেড়েছে হাত বদল হওয়া বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দর। টাকার পরিমাণে লেনদেনও আগের দিন থেকে বেড়েছে। ঢাকা ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই ও সিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

বাজার সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন শান্তিপূর্ণভাবে অনুষ্ঠানের কারণে প্রাতিষ্ঠানিক ও বড় বিনিয়োগকারীদের সঙ্গে সাধারণ বিনিয়োগকারীরাও অংশগ্রহণ বাড়িয়ে দিয়েছে। যার ইতিবাচক প্রভাব শেয়ারবাজারে প্রতিদিনই সূচকের সঙ্গে লেনদেন বাড়ছে। বিশেষ করে ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের দর বেশি বাড়ছে।

জানা গেছে, ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৩১ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫ হাজার ৪৯৫ পয়েন্টে। অপর সূচকগুলোর মধ্যে শরিয়াহ সূচক ৪ ও ডিএসই-৩০ সূচক ৫ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে ১২৪৯ ও ১৯১২ পয়েন্টে।

ডিএসইতে ৬৯৬ কোটি ৪৫ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। আগের দিন থেকে লেনদেন ১৬৬ কোটি টাকা বেশি। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ৫৩০ কোটি টাকার।

এদিকে ডিএসইতে লেনদেন হওয়া ৩৪৫টি কোম্পানির মধ্যে ২২৫টি বা ৬৫ শতাংশ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বেড়েছে। অন্যদিকে দাম কমেছে ৮০টি বা ২৩ শতাংশ কোম্পানির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৪০টি বা ১২ শতাংশ কোম্পানির।

টাকার অঙ্কে ডিএসইতে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে বিবিএস কেবলের শেয়ার। এদিন কোম্পানির ৩০ কোটি ৫১ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। লেনদেনে দ্বিতীয় স্থানে থাকা প্যারামাউন্ট টেক্সটাইলের ২১ কোটি ৯১ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। ১৯ কোটি ৭৫ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনের মাধ্যমে তৃতীয় স্থানে রয়েছে ইফাদ অটোস।

লেনদেনে এরপর রয়েছে- সায়হাম কটন, বেক্সিমকো, খুলনা পাওয়ার, জেএমআই সিরিঞ্জ, ইউনাইটেড পাওয়ার, বিডিকম এবং স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই এদিন ১৩৩ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৬ হাজার ৮৬৩ পয়েন্টে। এদিন সিএসইতে হাত বদল হওয়া ২৫৯টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে শেয়ার দর বেড়েছে ১৮১টির, কমেছে ৫২টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২৬টির দর। সিএসইতে মোট ৩০ কোটি ২৯ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে।