২৩ জানুয়ারী ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

নারীদের প্রতি অশালীন মন্তব্য ॥ ধিক্কৃত হারদিক ও রাউল

নারীদের প্রতি অশালীন মন্তব্য ॥ ধিক্কৃত হারদিক ও রাউল

অনলাইন ডেস্ক ॥ ‘কফি উইথ কর্ণ’ পোগ্রামে মহিলাদের প্রতি অশালীন মন্তব্যের জেরে হারদিক পান্ডিয়া ও লোকেশ রাউলকে শোকজ করল ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড। এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে আগামী দিনে অক্রিকেটীয় কোনও অনুষ্ঠানে ক্রিকেটারদের যোগ দেওয়ার ক্ষেত্রে বিধিনিষেধ জারি করতে পারে বিসিসিআই। অন্তত, তেমন ভাবনাই জোরদার।

সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে গড়া প্রশাসকদের কমিটির চেয়ারম্যান বিনোদ রাই বুধবার বলেছেন, "এই ধরনের মন্তব্যের জন্য শোকজ নোটিস পাঠানো হয়েছে হারদিক-রাউল, দু’জনকেই। ২৪ ঘণ্টার মধ্যে উত্তর দিতে হবে ওদের।" অর্থাৎ, রীতিমতো কড়া অবস্থান নিয়েছে বোর্ড। হারদিক ও রাউল দু’জনেই এখন অস্ট্রেলিয়ায়। শনিবার থেকে শুরু হতে চলা তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের দলে আছেন তাঁরা। রাউল অবশ্য পুরো টেস্ট সিরিজেই দলে ছিলেন। খেলেওছেন তিন টেস্ট। আর হারদিক শেষ দুই টেস্টের জন্য স্কোয়াডে এসেছিলেন। কিন্তু কোনও টেস্টে তিনি থাকেননি প্রথম এগারোয়।

তবে বাইশ গজে পারফরম্যান্সের জন্য নয়, দু’জনে প্রচারের আলোয় বেশি করে রয়েছেন টিভিতে ‘কফি উইথ কর্ণ’ পোগ্রামের সাম্প্রতিক পর্বে মন্তব্যের কারণে। দু’জনেই যে ধরনের কথাবার্তা বলেছেন, তা নিয়ে দেশজুড়ে চলছে সমালোচনা। বিশেষ করে মহিলাদের নিয়ে তাঁদের মন্তব্য সোশ্যাল মিডিয়ায় হচ্ছে ধিক্কৃত। হারদিক অবশ্য এর পরিপ্রেক্ষিতেই ক্ষমা চেয়েছেন। কিন্তু ক্ষমা চেয়েও জাতীয় দলের অলরাউন্ডার বোর্ডের রোষের মুখ থেকে বাঁচলেন না। রাউল অবশ্য এখনও কোনও মন্তব্য করেননি।

এই অনুষ্ঠানে জাতীয় দলের দুই ক্রিকেটার একসঙ্গে এসেছিলেন। দুই ক্রিকেটারেরই কিছু কথাবার্তা জন্ম দিয়েছিল বিতর্কের। যে ধরনের কথা হারদিক-রাউল বলেছেন, তাতে তাঁদের মানসিকতা নিয়ে উঠছিল প্রশ্ন। মহিলাদের প্রতি তাঁদের দৃষ্টিভঙ্গি হচ্ছে সমালোচিত। সেই কারণেই দ্রুত হস্তক্ষেপ করল বোর্ড।

হারদিক অবশ্য টুইট করে ক্ষমা চেয়েছেন। তিনি বলেছেন, “কফি উইথ কর্ণ অনুষ্ঠানে আমার বক্তব্যে যদি কেউ আহত হয়ে থাকেন, তবে ক্ষমাপ্রার্থী। আসল ওই অনুষ্ঠানের ধরনই এমন যে নিজেকে সামলাতে পারিনি। তবে কাউকে অসম্মানিত করতে চাইনি। কাউকে আহত করতেও চাইনি। বা কারও আবেগে আঘাত হানতে চাইনি।”

তবে তাঁর ক্ষমাপ্রার্থনাও ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডকে সন্তুষ্ট করতে পারেনি। বোর্ডকর্তারা মনে করছেন ক্ষমা চাওয়াতেই এই ব্যাপারটা শেষ হয়ে যাচ্ছে না। মহিলাদের সম্মান করাকে হারদিক-রাহুল যে একেবারেই গুরুত্ব দেন না তা ফুটে উঠেছে অনুষ্ঠানে। এই ধরনের আচরণ কোনও ভাবেই হালকা ভাবে নিতে চায়নি বোর্ড। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার হিসেবে কী বলা উচিত, তা হারদিক-রাউল জানা দরকার বলেও মনে করা হচ্ছে। সেজন্যই শোকজ করা হল। এর মাধ্যমে বোর্ড একটা জোরালো বার্তাও পাঠাল ক্রিকেটারদের। যে, আচরণ নিয়ে সংযত থাকতে হবে দেশের যাঁরা প্রতিনিধিত্ব করছেন, তাঁদের সবাইকেই।

সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা